এডওয়ার্ড লু

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
এডওয়ার্ড লু
— জলদস্যু —
Edwardlowepicture.jpg
লন্ডনের জাতীয় ম্যারিটাইম জাদুঘরের দেওয়ালে ঝুলানো এডওয়ার্ড লু এর ছবি।
ডাকনাম নেড লু
ধরন জলদস্যু
জন্ম সি. ১৬৯০
জন্মস্থান ইংল্যান্ড ওয়েস্টমিন্সটার, লন্ডন
মৃত্যু সি. ১৭২৪ (৩৪ বছর)
মৃত্যুর স্থান বিতর্কিত, সম্ভবতমার্তিনিক
আনুগত্য নাই
কার্যকাল সিএ. ১৭২১ – সিএ. ১৭২৪
স্থান ক্যাপ্টেন
অপারেশনের বেজ আটলান্টিক
ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জ
কমান্ড রেবেকা
ফেঞ্চি
রোজ পিংক
রেঞ্জার
মেরি খ্রিস্টমাস

ক্যাপ্টেন এডওয়ার্ড নেড লু (সিএ. ১৬৯০ - সিএ. ১৭২৪) ছিলেন জলদস্যুতার স্বর্ণযুগ বলে পরিচিত আঠারোশ শতকের প্রথমদিকের একজন কুখ্যাত ইংরেজ জলদস্যু। তিনি ১৬৯০ সালের কোন এক সময় লন্ডনের ওয়েস্টমিন্সটারে এক দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহন করেন। যুবক বয়সে তিনি চুরি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। লু তার যুবক বয়সেই মেসাচুয়েটস-এর বোস্টনে স্থানান্তরিত হন। ১৭১৯ সালের শেষের দিকে তার স্ত্রী, সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এর দুই বছর পর তিনি জলদস্যু হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেন ও তিনি সাধারনত নিউ ইংল্যান্ড, আজোরিস এবং ক্যারিবীয় অঞ্চলে বিচরন করতেন।

এডওয়ার্ড লু একই সাথে কয়েকটি জাহাজের ক্যাপ্টেন ছিলেন, তিনি সাধারনত তিন বা চারটি জাহাজের সমন্বয়ে গঠিত ছোট একটি বহরের নেতৃত্ত দিতেন। যদিও তিনি মাত্র তিন বছর সক্রিয় ছিলেন, তবুও তিনি তার বন্দিদের হত্যার পূর্বে নির্যাতন করার জন্য তার সময়ের সবচেয়ে কুখ্যাত জলদস্যুর খেতাব অর্জন করেন।[১] ক্যাপ্টেন লু তার এই সল্প জলদস্যুতার জীবনে তিনি ও তার জলদস্যু ক্রুরা মিলে কমপক্ষে একশত জাহাজ আটক করেছিলেন যার অধিকাংশই তিনি পুড়িয়ে দিয়েছেন। স্যার আর্থার কোনান ডয়েল এডওয়ার্ড লুকে নৃশংস ও বেপরোয়া এবং বিষ্ময়কর বিকৃত মানসিকতার অধিকারী ব্যক্তি হিসেবে বর্ননা করেছেন।[২] দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস তাকে নির্যাতনকারী ও স্পেনীয় অন্ধকার যুগের উদ্ভট মানসিকতার অধিকারী ব্যক্তিদের সাথে তুলনা করেছেন।[৩] ১৭২৪ সালের দিকে এডওয়ার্ড লু এর মৃত্যুকে ঘিরে অনেক বিতর্ক রয়েছে।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

চার্লস জনসনের অ্য জেনারেল হিস্টোরি অফ দ্য পাইরেটস গ্রন্থ অনুসারে এডওয়ার্ড লু ১৬৯০-এর দিকে লন্ডনের ওয়েস্টমিন্সটারে জন্মগ্রহণ করেন।[৪] বর্ননা অনুসারে তিনি ছিলেন নিরক্ষর, ঝগড়াটে স্বভাবের ও সবসময় লোকজনের সাথে প্রতারনা করতেন।[৫][৬] যৌবনে তিনি পকেট মারতেন ও জুয়া খেলে চরম বিশৃঙ্খলতার মধ্যে জীবন অতিবাহিত করেছেন।[৪]

তার পরিবারের অধিকাংশ সদস্য ছিল চোর। তার চেয়ে কয়েক বছরের ছোট ভাই রিচার্ড তার বন্ধুদের কাছ থেকে বাক্স চুরি করত ও পথচারীদের টুপি চুরি করত। রিচার্ড লুকে পরবর্তীতে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও স্টেপনির একটি বাড়ি থেকে সিঁধ কেটে চুরি করার অপরাধে ১৭০৭ সালে টেবার্ণে ফাঁসিতে ঝুলানো হয়।[৪][৬][৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "London and the Pirates"। PortCities। ২০০৪। সংগৃহীত ২০০৭-০৯-২৫ 
  2. Doyle, Arthur Conan (১৯০০)। "III"The Green FlagProject Gutenberg 
  3. "The "Great" Edward Low: The Most Merciless Pirate Known to Modern Times"। The New York Times। ১৮৯২-০৮-১৪। 
  4. Johnson, Charles (১৯৯৯) [১৭৪২]। "Chap. XIII—Of Captain Edward Low And his Crew"। A General History of the Pyrates। Courier Dover। পৃ: 318–336। আইএসবিএন 0-486-40488-9ওসিএলসি 40473801  Some content available on Google Books: [১].
  5. Ellms, Charles (১৮৩৭)। "The Life of Edward Low."The Pirates Own Book: Authentic Narratives of the Most Celebrated Sea RobbersProject Gutenberg 
  6. Dow, George Francis; Edmonds, John Henry (১৯৯৬) [১৯২৩]। "X—Ned Low of Boston and how he became a pirate captain"। The Pirates of the New England Coast, 1630–1730। Courier Dover। পৃ: 141–156। আইএসবিএন 0-486-29064-6ওসিএলসি 33246073  Some content available on Google Books: [২].
  7. "Old Bailey Proceedings Online (www.oldbaileyonline.org, version 6.0), trial of Richard Low (t17071210-24)"। Old Bailey। ১০ ডিসেম্বর ১৭০৭। সংগৃহীত ৭ সেপ্টেম্বর ২০১১ 

আরো পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]