ইঙ্গ–আফগান যুদ্ধ (১৮৩৯–১৮৪২)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইঙ্গ–আফগান যুদ্ধ (১৮৩৯–১৮৪২)
মূল যুদ্ধ: গ্রেট গেম
Britattack.jpg
একটি ব্রিটিশ-ভারতীয় বাহিনী ১৮৩৯ সালে গজনী দুর্গ আক্রমণ করছে
তারিখমার্চ ১৮৩৯ – অক্টোবর ১৮৪২
অবস্থানআফগানিস্তান
ফলাফল

আফগান বিজয়[১][২]

যুধ্যমান পক্ষ
আফগানিস্তান

ব্রিটিশ সাম্রাজ্য ব্রিটেন

সেনাধিপতি
দোস্ত মোহাম্মদ খান আত্মসমর্পণকারী
ওয়াজির আকবর খান
উইলিয়াম হে ম্যাকনাঘটেন 
জন কিয়েন
উইলৌঘবি কটন
জর্জ পোলোক
ব্রিটিশ সাম্রাজ্য উইলিয়াম এলফিনস্টোন আত্মসমর্পণকারী
শাহ সুজা 
হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতি
১,৫০০+ সৈন্য নিহত
১,৫০০ সৈন্য যুদ্ধবন্দি
ব্রিটিশ সাম্রাজ্য ৪,৭০০ সৈন্য নিহত
~১২,০০০ শিবির অনুগামী নিহত[৩]

ইঙ্গ–আফগান যুদ্ধ (১৮৩৯–১৮৪২) (আফগানিস্তান বিপর্যয় নামেও পরিচিত[৪]) ১৮৩৯ থেকে ১৮৪২ সালে ব্রিটিশ ভারত এবং আফগানিস্তানের মধ্যে সংঘটিত হয়। যুদ্ধের প্রথমদিকে ব্রিটিশরা আফগানিস্তানের আমির দোস্ত মোহাম্মদ খান (বারকাজাই বংশ) এবং প্রাক্তন আমির শাহ সুজা দুররানীর (দুররানী বংশ) মধ্যবর্তী উত্তরাধিকার সংক্রান্ত দ্বন্দ্বে সফলভাবে হস্তক্ষেপ করে, এবং ১৮৩৯ সালের আগস্টে কাবুল জয় করে শাহ সুজাকে সিংহাসনে অধিষ্ঠিত করে। কিন্তু ১৮৪১ সালে ২৪,০০০ থেকে ২৮,০০০ সৈন্যবিশিষ্ট ব্রিটিশ 'আর্মি অফ দি ইন্ডাস' আফগান বিদ্রোহীদের নিকট কয়েক দফা যুদ্ধে পরাজিত হয়[২]। ১৮৪২ সালের জানুয়ারিতে কাবুল দখলকারী মূল ব্রিটিশ ভারতীয় ও শিখ বাহিনী প্রখর শীতের মধ্যে পশ্চাৎপসরণের সময় ধ্বংস হয়ে যায়[২]। এটি ছিল রাশিয়াব্রিটেনের মধ্যে সংঘটিত গ্রেট গেমের প্রথম বৃহৎ সংঘর্ষগুলোর মধ্যে অন্যতম[৫]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Encarta-encyclopedie Winkler Prins (1993–2002) s.v. "Afghanistan. §5.3 De tijd van de Britse invloed". Microsoft Corporation/Het Spectrum.
  2. Kohn, George Childs (২০১৩)। Dictionary of Wars. Revised Edition। London/New York: Routledge। পৃষ্ঠা 5। আইএসবিএন 9781135954949 
  3. Baxter, Craig। "The First Anglo–Afghan War"। Federal Research Division, Library of Congress। Afghanistan: A Country Study। Baton Rouge, LA: Claitor's Pub. Division। আইএসবিএন 1-57980-744-5। সংগ্রহের তারিখ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  4. Antoinette Burton, “On the First Anglo-Afghan War, 1839–42: Spectacle of Disaster”
  5. Keay, John (২০১০)। India: A History (revised সংস্করণ)। New York, NY: Grove Press। পৃষ্ঠা 418–19। আইএসবিএন 978-0-8021-4558-1