ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী
ब्रिटिश भारतीय सेना
সক্রিয়১৮৯৫-১৯৪৭
আনুগত্য ব্রিটিশ সাম্রাজ্য
শাখাসেনাবাহিনী
আকারপ্রথম বিশ্বযুদ্ধ: ≈১,৭৫০,০০০ সেনা
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ: ≈২,৫০০,০০০ সেনা
গ্যারিসন/সদরদপ্তরজেনারেল হেডকোয়ার্টার্স (ভারত)
যুদ্ধসমূহদ্বিতীয় ইংরেজ-আফগান যুদ্ধ
তৃতীয় ইংরেজ-আফগান যুদ্ধ
তৃতীয় ইংরেজ-বার্মা যুদ্ধ
দ্বিতীয় আফিম যুদ্ধ
ইংরেজ-মিশর যুদ্ধ
আবিসিনিয়াতে ব্রিটিশ সামরিক বাহিনীর অবস্থান
প্রথম মোহমান্দ অভিযান
বক্সার যুদ্ধ
তিরাহ অভিযান
তিব্বতে ব্রিটিশ সেনাবাহিনী
মেহেদী যুদ্ধ
প্রথম বিশ্বযুদ্ধ
ওয়াজিরিস্তান অভিযান
ওয়াজিরিস্তান অভিযান ২
দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ
উত্ত্র পশ্চিম সীমান্ত সেনা অভিযান
প্রথম বিশ্বযুদ্ধে রাজপুত রেজিমেন্টের সৈনিকেরা

ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী ছিলো ভারতের ব্রিটিশ শাসনামলের অর্থাৎ ব্রিটিশ ভারতের প্রধান সেনাবাহিনী। ব্রিটিশ সরকার এবং ব্রিটিশ সামরিক কর্মকর্তা দ্বারা পরিচালিত এই বাহিনীতে মূলত ভারতীয় স্থানীয় সৈনিকেরাই সংখ্যায় বেশী ছিলো। এই বাহিনী ১৮৯৫ সালে তৈরি করা হয় ভারতে শাসন করা ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির বিভিন্ন প্রেসিডেন্সি আর্মিকে একত্রিত এবং পুনর্গঠিত করে। ভারতীয় ভূখণ্ডকে যে কোনো বহিঃশত্রুর আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করার গুরুদায়িত্ব পালন করতো এই বাহিনী।[১] বিভিন্ন বড় বড় যুদ্ধে এই সেনাবাহিনীর ভূমিকা ছিলো বীরত্বপূর্ণ, বাহিনীটি ছিলো আগেকার যুগের যুক্তরাষ্ট্র সামরিক বাহিনীর চেয়েও অনেক বড়।[২] ১৯৪৭ সালের ১৪ই আগস্ট এই বাহিনীর এক অংশ নতুন, পৃথক এবং স্বাধীন পাকিস্তান সেনাবাহিনী গঠন করে।[৩]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯২৩ সালের ছবিতে গোর্খা রাইফেলসের সৈনিকরা

১৮৫৭ সালের সিপাহি বিদ্রোহের ঘটনার পর ব্রিটিশ সরকার ভারতে কম্পানি শাসনের অবসান ঘটিয়ে রাণী ভিক্টোরিয়ার হাতে শাসন ক্ষমতা তুলে দেয়; ব্রিটিশ রাণী কম্পানির প্রেসিডেন্সী সেনাবাহিনী ব্যবস্থার পরিবর্তে একটি রাষ্ট্রীয় সেনাবাহিনী বানানোর পরিকল্পনা করেন এবং ফলশ্রুতিতে ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী গড়ে ওঠে ১৮৯৫ সালে। ব্রিটিশরা তাদের নিজেদের দেশে এবং নিজেদের মধ্যে ভারতে তাদের দ্বারা পরিচালিত প্রেসিডেন্সী বা একক সেনাবাহিনীকে 'ভারতীয় সেনাবাহিনী' বলেই সম্বোধন করতো।[৪]

'ভারতের সেনাবাহিনী'কে বিভিন্ন সময়ে যা যা বলা হতোঃ

১৮৫৮-১৮৯৪ ভারত যখন ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির শাসনাধীন তখন ভারতে তিনটি অঞ্চল ভিত্তিক প্রেসিডেন্সি আর্মি ছিলো, এগুলো হলোঃ বেঙ্গল আর্মি, মাদ্রাজ আর্মি এবং বোম্বে আর্মি, এগুলোকে মিশ্রিতভাবে 'ভারতীয় সেনাবাহিনী' বলা হতো
১৮৯৫-১৯০২ ১৮৯৫ সাল থেকে 'ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী' ভারতীয় সেনাবাহিনী হিসেবে পরিচিতি পেয়ে যায়
১৯০৩-১৯৪৭ জেনারেল লর্ড কিচেনার, ভারতের সেনাপ্রধান (১৯০২-১৯০৯) ভারতের সকল পূর্ব সেনাবাহিনীগুলোকে সত্যিকারের সরকারীভাবে একত্রিত করার উদ্যোগ নেন; এই প্রথম কোনো সামরিক কর্মকর্তা ভারতের সেনাবাহিনীর সরকারী একত্রিতকরণের সত্যিকারের ঘোষণা দেন, জেনারেল কিচেনার উচ্চ সেনা ফরমেশন তৈরি করার পরিকল্পনা করে বাস্তবায়ন করেছিলেন; তিনি 'ভারতীয় সেনাবাহিনী'কে সত্যিকারের জাতীয় মর্যাদা দিয়েছিলেন, তিনি ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনীকে 'ভারতীয় সেনাবাহিনী' নামে ডাকার সরকারী ঘোষণা দিয়েছিলেন[৫]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "British Indian Army – A Brief History (1857–1947)"। ৯ জুন ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Imperial Gazetteer of India, Volume IV 1908, পৃ. 85 Quote: "The British Government has undertaken to protect the dominions of the Native princes from invasion and even from rebellion within: its army is organized for the defence not merely of British India, but of all possessions under the suzerainty of the King-Emperor."
  3. "journey from scratch to nuclear power"www.pakistanarmy.gov.pk 
  4. Harold E. Raugh, The Victorians at war, 1815–1914: an encyclopedia of British military history (2004) pp 173–79
  5. Oxford History of the British Army

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]