আলাপ:বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

নিবন্ধের মান বিশ্বকোষীয় নয়[সম্পাদনা]

এই নিবন্ধটির লেখার ধরণ বিশ্বকোষীয় নয়, মনে হচ্ছে এই সংগঠনের প্রচারণার কাজে ব্যবহৃত হচ্ছে। এর তথ্যসূত্রও পর্যাপ্ত নয় এবং মাত্র একটি সূত্র দেয়া আছে। দ্রুত এর মানোন্নয়ন দরকার।

--আলী হায়দার খান তন্ময় (আলাপ) ১৮:১০, ২ জুলাই ২০১১ (ইউটিসি) নিবন্ধটি যিনি লিখেছেন তাকে বলি আপনেকি ফাজলামোপেয়েছেন ?একটি আদর্শ ছাত্রসংগঠনের নামে অপবাদ দিচ্ছেন । আপনি কি শিবিরের ছোয়া পেয়েছেন? পেলে বুঝতেন ।এসব অপপ্রচার বন্ধ করুন প্লিজ ।ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

নিবন্ধটি যিনি লিখেছেন তাকে বলি আপনেকি ফাজলামোপেয়েছেন ?একটি আদর্শ ছাত্রসংগঠনের নামে অপবাদ দিচ্ছেন । আপনি কি শিবিরের ছোয়া পেয়েছেন? পেলে বুঝতেন ।এসব অপপ্রচার বন্ধ করুন প্লিজ ।বাংলার চোখ


তথ্যগুলো এবার কিছুটা সমৃদ্ধ হয়েছে বলে মনে করি ফোকাস বাংলা

দ্রুত অপসারণ ট্যাগ সংযোজন[সম্পাদনা]

অবিশ্বকোষীয় এবং অসংলগ্ন তথ্য থাকায় এই নিবন্ধে দ্রুত অপসারণ ট্যাগ সংযোজন করা হল। -- কাজী ফয়সাল (আলাপ | অবদান) ১৮:০৫, ৮ আগস্ট ২০১২ (ইউটিসি)

উইকিপিডিয়া কি কুত্‍সা রটানোর মাধ্যম? এটা কি উইকিপিডিয়ার নীতিমালার সাথে সাংঘর্ষিক নয়? 119.30.38.78 (আলাপ) ০০:৪৬, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ (ইউটিসি)

না, কুৎসা রটানোর স্থান এটি নয়, এবং সেজন্যই অবিশ্বকোষীয় সকল লেখা অপসারণ করা হয়েছে। — তানভিরআলাপ • ০০:৫০, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ (ইউটিসি)

প্রচারণা বা বিরোধিতা[সম্পাদনা]

আমি মনে করি উইকিপিডিয়াকে কোন নির্দিষ্ট মতবাদের প্রচারণা বা বিরোধিতার জন্য ব্যাবহারের চেষ্টা করা উচিৎ নয়। এতে শুধু সামগ্রিক বিচারে নিরপেক্ষ ও স্বচ্ছ তথ্যই দেওয়া উচিৎ। কোন সঠিক তথ্যকেই শুধু মুছে দেবার ক্ষমতাবলে মুছে দেওয়া ঠিক নয়।

মাহমুদ, কোনো মতাদর্শ প্রচারের দায়িত্ব উইকিপিডিয়া নেয়নি বলেই লেখাগুলো অপসারণ করা। লেখাগুলো যোগ করা হয়েছে একচ্ছত্রভাবে দলের ওয়েবসাইট থেকে, যা কখনোই উইকিপিডিয়ার নিরপেক্ষতার নীতি অনুসরণ করে তথ্যের নিরপেক্ষতা নিশ্চিত করে না। তাছাড়া কার্যালয়ের ঠিকানা যোগ করে যেভাবে নিবন্ধ লেখা হয়েছিল, তা কখনও বিশ্বকোষীয় কোনো নিবন্ধ হতে পারে না, কারণ ভুলে গেলে চলবে না উইকিপিডিয়া কোনো ডিরেক্টরি নয়। তাছাড়া আমাদের মনে রাখা উচিত, উইকিপিডিয়া কোনো প্রচারযন্ত্রও নয়। আপনি, খুব ভালো হয়, যদি তৃতীয় পক্ষীয় পত্র-পত্রিকা কিংবা বই-পুস্তক থেকে শিবির সম্বন্ধে তথ্য যোগ করতেন। আপনার আগের যোগ করা লেখাগুলো এখনও ইতিহাসে রক্ষিত আছে, আপনি তা নিয়ে গুছিয়ে, তৃতীয় পক্ষীয় তথ্যসূত্র সহকারে বিশ্বকোষীয় ধাঁচে নিবন্ধ লিখুন, এখানে কেউ আপনার লেখা অযৌক্তিকভাবে অপসারণ করতে আসবে না। আপনার রাজনৈতিক মতাদর্শকে পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, অনিরপেক্ষ তথ্য উইকিপিডিয়ায় রাখা হয় না। ...আরেকটা কথা, কোনো নিবন্ধ থেকে রক্ষণাবেক্ষণ ট্যাগ অপসারণ করবেন না; উপযুক্ত যুক্তি থাকলে আলোচনা করুন, আলোচনায় সাব্যস্ত হলে তা অপসারিত হবে। আর আলাপ পাতায় বার্তার শেষে চারটি টিল্ডা (~~~~) দিয়ে আপনার স্বাক্ষর যোগ করুন। ভালো থাকবেন। —মঈনুল ইসলাম (আলাপ * অবদান) ১৫:১৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১২ (ইউটিসি)

অবিশ্বকোষীয় কন্টেন্ট[সম্পাদনা]

উইকিপিডিয়াতে কারও প্রতি প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে কোন অভিযোগ করা যাবে না। কারও সম্পর্কে যদি কোন সমালোচনা প্রকাশিত হয়ে থাকে তাহলে তা অবশ্যই নির্ভরযোগ্য সূত্রসহ দেওয়া যেতে পারে। মনে রাখুন যে পত্রিকা বা ম্যাগাজিন কোন নির্ভরযোগ্য তথ্যসূত্র নয়। তাই পত্রিকার সূত্র দিয়ে কে কি করেছে তার বিস্তারিত উইকিপিডিয়ায় পোষ্ট করবেন না। কে ভাল কে মন্দ তা যাচাই করার দায়িত্ব উইকিপিডিয়ার নয়।--বেলায়েত (আলাপ | অবদান) ১৬:২৭, ২৬ নভেম্বর ২০১২ (ইউটিসি)

সম্পাদনার অনুরোধ, ২১ আগস্ট ২০১৭[সম্পাদনা]

শিবির একটি আদর্শ ইসলামী সংগঠন। তাই শিবিরের নামে অপ প্রচার না করে সঠিক তথ্য উপস্থাপন করাই শ্রেয়। 180.211.248.225 (আলাপ) ০৬:০০, ২১ আগস্ট ২০১৭ (ইউটিসি)

নিবন্ধে সম্পাদনা করুন। --আফতাব (আলাপ) ১৮:৩১, ২২ আগস্ট ২০১৭ (ইউটিসি)

সম্পাদনার অনুরোধ, ৭ জুন ২০১৮[সম্পাদনা]

আন্তর্জাতিক অন্তর্ভুক্তিঃ Asian Federation of Muslim Youth, International Islamic Federation of Student Organizations, World Assembly of Muslim Youth Rafid Al Haque (আলাপ) ১০:১৫, ৭ জুন ২০১৮ (ইউটিসি)

সূত্র? --আফতাব (আলাপ) ২২:০৫, ২০ জুন ২০১৮ (ইউটিসি)

সম্পাদনার অনুরোধ, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯[সম্পাদনা]

103.230.106.29 (আলাপ) ১২:১৩, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি) আস্সালামু আলাইকুম, বাংলাদেশ ইসলামি ছাত্রশিবিরি যে 6 জন ভাই নিয়ে গঠিত তাদের নাম জানা অতি জরুরি।

অপ্রাসঙ্গিক। --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ০০:২২, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

সম্পাদনার অনুরোধ, ৯ মে ২০১৯[সম্পাদনা]

ছাত্রশিবিরকে জামায়াতের অঙ্গসংগঠন লেখা হয়েছে, যা সম্পূর্ণরুপে একটি ভূল তথ্য। জামায়াত এবং ছাত্রশিবিরের গঠনতন্ত্র দেখলেও পরিস্কার হওয়া যাবে। আপাতত তথ্যসূত্র হিসেবে প্রথম আলোর একটি প্রতিবেদনের লিংক দিচ্ছি - http://archive.prothom-alo.com/detail/date/2010-04-28/news/59712 Rahatadnan17 (আলাপ) ০৫:৪০, ৯ মে ২০১৯ (ইউটিসি) রাহাত