আলাপ:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

ছবি[সম্পাদনা]

কারো কাছে এর কোনো ছবি আছে কি? (মানে অবশ্যই নিজের তোলা ছবি, ওয়েবসাইট থেকে নেয়া না :) ). --রাগিব (আলাপ | অবদান) ০১:১০, ১ অক্টোবর ২০০৬ (UTC)

ম্যানেজম্যান্ট স্টাডিজ নাকি ব্যবস্থাপনা[সম্পাদনা]

এই ডিপার্টমেন্টটি আমার নিচতলায়। এর নাম ইংরেজিতে "ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ" হলেও বাংলায় "ব্যবস্থাপনা বিভাগ"-ই লেখা হয়। মুখে যদিও ম্যানেজমেন্টই বলি। তাই নামটি পরিবর্তন করে বাংলায় নেওয়ার অনুরোধ করছি। — তানভির আলাপ অবদান ১৬:৪৩, ১৬ এপ্রিল ২০১০ (UTC)

হল আন্দোলন[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে একমাত্র হলবিহীন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এর যাত্রা হয় ২০০৫ সনে। প্রতিষ্ঠার সময় থেকে শিক্ষার্থীদের প্রাণের দাবী ছিল আবাসন সহ সকল সুবিধা বাস্তবায়ন করার কিন্তু সেই অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা আবাসন সুবিধা পাইনি। পূর্বতন জগন্নাথ কলেজ এর ১৩ টি ছাত্রাবাস আশির দশকে স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনের সময় বেদখল হয়ে যায়। এই বেদখল হওয়া হলগুলো পুনরুদ্ধার করার জন্য ২০০৯ সালে তুমুল ছাত্র আন্দোলন হয়। সর্বশেষ ২০১৪ সালে শিক্ষার্থীরা রাজপথে নেমে আসে। টানা ৩৭ দিনের আন্দোলন সংগ্রামে ঢাকার রাজপথ কেঁপে উঠে যা ইতোপূর্বে দক্ষিণ এশিয়ার অন্য কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে দেখা যায় নি। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম( বিবিসি, সিএনএন, আল জাজিরা সহ আরো অনেক গণমাধ্যম) ও দেশীয় গণমাধ্যম গুলো ফলাও করে খবর প্রকাশ করে। এই আন্দোলনে শত শত শিক্ষার্থী গুলিবিদ্ধ হয়। পুলিশের গুলিতে আহত হয় ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর নাসির উদ্দিন। Sakib Al Mamun (আলাপ) ০২:৫৬, ৫ ডিসেম্বর ২০১৭ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

সাকিব আল মামুন Sakib Al Mamun (আলাপ) ০২:৫৮, ৫ ডিসেম্বর ২০১৭ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

উল্লেখযোগ্য শিক্ষার্থী ও শিক্ষক[সম্পাদনা]

@NahidSultan: যে উল্লেখযোগ্য শিক্ষার্থী ও শিক্ষক সরানো হয়েছে (যেগুলির নিবন্ধ আছে), আমার মনে হয় না সেগুলির জন্য তথ্যসূত্র দরকার। নিবন্ধগুলিতে ক্লিক করলেই পাওয়া যাবে। --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ১৫:৫৪, ৩১ জানুয়ারি ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

সমস্যা অন্য স্থানে। নিবন্ধে ক্লিক করলে হয়ত পাওয়া যাবে কিন্তু নিয়ম অনুসরণ না করলে অন্যগুলোতে ঠেকাবা কিভাবে। এখন নাহয় দিয়ে দিলাম কিন্তু বাংলাতে এমনিতেই লোকজন কম বারবার এগুলো পর্যালোচনাওতো কেউ করবে না যে আসলেই আছে কিনা। ~ যুদ্ধমন্ত্রী আলাপ ১৫:৫৮, ৩১ জানুয়ারি ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]
এই কথার সাথে আরো একটা বিষয় মনে হলো যেহেতু আলোচনা শুরুই হয়েছে তাই এটাও ঠিক করে ফেলা যায় কিনা দেখি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এবং জগন্নাথ ও আরো কয়েকটাতে এরকম হাজারখানেক নিবন্ধ আছে এমন ব্যক্তি পাওয়া যাবে। সুতরাং তালিকাতে কাকে কোন নিয়মে রাখা হবে সেটাও বিশ্ববিদ্যালয় সবকটার ক্ষেত্রে ঠিক করা দরকার। তাহলে সবগুলো একসাথে শেষ করে দিতে পারি। ~ যুদ্ধমন্ত্রী আলাপ ১৬:০০, ৩১ জানুয়ারি ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]
আমি পরীক্ষা করে যোগ করেছি, যেগুলি পাইনি তা লুকিয়ে রাখছি। যদি ব্যক্তির নিবন্ধ না থাকে তবে অবশ্যই তথ্যসূত্র দরকার হবে। --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ১৬:১০, ৩১ জানুয়ারি ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]
@আফতাবুজ্জামান এবং NahidSultan: ভাই, যারা জগন্নাথ কলেজে পড়াশোনা করেছেন, মানে ২০০৫ সালের আগে যারা এই কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন, তারা কী বিষয়শ্রেণী:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী এই বিষয়শ্রেণীতে থাকবে ?? এই বিষয়টার নিয়ম কী?? Prodipto Deloar (আলাপ) ০২:১০, ০৯ এপ্রিল ২০২১ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]
@Prodipto Deloar: আমার মতে "বিষয়শ্রেণী:জগন্নাথ কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী" সৃষ্টি করা উচিত, এই কারণে যে যারা জগন্নাথ কলেজে পড়ে স্নাতক ডিগ্রি নিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নীত হবার পর তাঁদের ডিগ্রি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিতে উন্নীত হয়ে যায়নি। তাদের ক্ষেত্রে বিষয়শ্রেণী:জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থী দিলে ভুল বার্তা প্রকাশ করবে। -- আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ২০:৩৮, ৮ এপ্রিল ২০২১ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]
@আফতাবুজ্জামান: আমিও এমন কিছুই ভাবছিলাম, বিষয়শ্রেণী:জগন্নাথ কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী নামে নতুন একটি বিষয়শ্রেণী থাকা উচিৎ। এমনকি নিবন্ধে খেয়াল করলেও দেখা যায়, যখন প্রতিষ্ঠানটি বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত হয়নি, সেই সময়ের ইতিহাস বর্ণনা করতে গিয়ে জগন্নাথ কলেজ উল্লেখ করা হয়। সেই হিসেবে আলাদা বিষয়শ্রেণী তৈরি করাটাই সমুচিত। Prodipto Deloar (আলাপ) ০২:৪৮, ০৯ এপ্রিল ২০২১ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]