গাব্রিয়েল বাতিস্তুতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গাব্রিয়েল বাতিস্তুতা
Gabriel batistuta.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম গাব্রিয়েল ওমার বাতিস্তুতা
জন্ম (১৯৬৯-০২-০১) ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯ (বয়স ৪৫)
জন্ম স্থান রেকনকুইস্তা, আর্জেন্টিনা
উচ্চতা ১.৮৫ মি (৬ ফু ১ ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান স্ট্রাইকার
তারূণ্যের কর্মজীবন
১৯৮৭–১৯৮৮ নিওয়েলস ওল্ড বয়েজ
বলিষ্ঠ কর্মজীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
১৯৮৮–১৯৮৯ নিওয়েল'স ওল্ড বয়েজ ২৪[১] (১[১])
১৯৮৯–১৯৯০ রিভার প্লেত ২১[১] (৪[১])
১৯৯০–১৯৯১ বোকা জুনিয়র্স ৩০[১] (১৩[১])
১৯৯১–২০০০ ফিওরেন্তিনা ২৬৯ (১৬৮)
২০০০–২০০৩ রোমা ৬৩ (৩০)
২০০৩ ইন্তারনাজিওনালে (ধার) ১২ (২)
২০০৩–২০০৫ আল আরাবি ২১ (২৫)
মোট ৪৪০ (২৪৯)
জাতীয় দল
১৯৯১–২০০২ আর্জেন্টিনা ৭৮ (৫৬)
* পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে।
† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

গাব্রিয়েল ওমার বাতিস্তুতা (স্পেনীয়: Gabriel Omar Batistuta, জন্ম ১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৯), একজন প্রাক্তন আর্জেন্টিনীয় পেশাদার ফুটবলার। ভক্তদের কাছে তিনি বাতিগোল বা এল আনহেল গাব্রিয়েল নামে সুপরিচিত। এই প্রখ্যাত আর্জেন্টিনীয় স্ট্রাইকার তাঁর ক্যারিয়ারের অধিকাংশ সময়ই কাটিয়েছেন ইতালীয় ক্লাব ফিওরেন্তিনায়। সেখানে ৩১৮ খেলায় ১৮৪ গোল করে তিনি ইতালীয় সিরি এ-এর সর্বকালের এগারতম সর্বোচ্চ গোলদাতা।

আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে ৭৮ খেলায় ৫৬ গোল করে তিনি দলের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা। এছাড়া তিনি তিনটি বিশ্বকাপেও আর্জেন্টিনার হয়ে অংশগ্রহন করেছেন। তিনি পরপর দুটি বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় হ্যাট্রিক করেছেন, যা একটি বিশ্ব রেকর্ড। ১৯৯৯ সালে, ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড় পুরস্কারে তিনি তৃতীয় স্থান অর্জন করেন।[২] ২০০৪ সালে তিনি ১২৫ জন জীবিত শ্রেষ্ঠ ফুটবলারের তালিকা ফিফা ১০০-তে স্থান পান।[৩] দূর্দান্ত ফিনিশিং, হেডিং এবং ফ্রি-কিক নেবার ক্ষমতার কারণে, তাকে তাঁর সময়ের একজন অন্যতম পূর্ণ স্ট্রাইকার হিসেবে গন্য করা হয়। দিয়েগো মারাদোনা তাঁর সম্পর্কে বলেছিলেন বাতিস্তুতা তাঁর দেখা সেরা স্ট্রাইকার।[৪][৫]

১৯৯৩ সালে, যখন তার ক্লাব ফিওরেন্তিনার সিরি বি-তে অবনমন ঘটে তখন তিনি ক্লাবকে শীর্ষ বিভাগে ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করেন। ১৯৯৬ সালে, ফিওরেন্তিনার সমর্থকগন বাতিস্তুতার একটি প্রতিমূর্তি তৈরি করেন। এটি তৈরি করা হয় ফিওরেন্তিনাতে তার কর্তৃত্বকে স্মরণ করে রাখার জন্য।[৬] ফিওরেন্তিনার হয়ে তিনি কখনও ইতালীয় লীগ জিতেননি, কিন্তু ২০০০ সালে রোমায় যোগ দেবার পর তিনি অবশেষে সিরি এ চ্যাম্পিয়নশিপ জিততে সক্ষম হন।[৭] ২০০৫ সালে অবসর গ্রহনের পূর্বে তিনি তার ক্যারিয়ারের শেষ পেশাদার মৌসুম পার করেন কাতারের ক্লাব আল আরাবিতে[৮]

ক্লাব কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

কর্মজীবন পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

ক্লাব[সম্পাদনা]

ক্লাব মৌসুম লীগ কাপ[৯] মহাদেশীয়[১০] মোট
উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল
নিওয়েল'স ১৯৮৮-৮৯ ২৪ ২৯ ১১
রিভার প্লেত ১৯৮৯-৯০ ২১ ২১
বোকা জুনিয়র্স ১৯৯০-৯১ ৩০ ১৩ ১০ ৪০ ১৯
ফিওরেন্তিনা ১৯৯১–৯২ ২৭ ১৩ ৩০ ১৪
১৯৯২-৯৩ ৩২ ১৬ ৩৫ ১৯
১৯৯৩-৯৪ ২৬ ১৬ ৩২ ২১
১৯৯৪-৯৫ ৩২ ২৬ ৩৭ ২৮
১৯৯৫-৯৬ ৩১ ১৯ ৩৯ ২৭
১৯৯৬-৯৭ ৩২ ১৩ ৪২ ১৯
১৯৯৭-৯৮ ৩১ ২১ ৩৭ ২৪
১৯৯৮-৯৯ ২৮ ২১ ৩৭ ২৬
১৯৯৯-০০ ৩০ ২৩ ১১ ৪৪ ২৯
রোমা ২০০০-০১ ২৮ ২০ ৩১ ২১
২০০১-০২ ২৩ ৩২
২০০২-০৩ ১২ ২০
ইন্তারনাজিওনালে ২০০২-০৩ ১২ ১২
আল-আরাবি ২০০৩-০৪ ১৮ ২৫ ১৮ ২৫
২০০৪-০৫
ফিওরেন্তিনায় সর্বমোট ২৬৯ ১৬৮ ৪০ ২৬ ২৩ ১৩ ৩৩২ ২০৭
কর্মজীবনে সর্বমোট ৪৪০ ২৪৯ ৪৩ ২৭ ৪৭ ২৪ ৫১৬ ৩০০

সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. ১.০ ১.১ ১.২ ১.৩ ১.৪ ১.৫ National-Football-Teams.com-এ গাব্রিয়েল বাতিস্তুতা
  2. "Rivaldo on top of the world"ফিফা। সংগৃহীত ২৮ মে ২০১৪ 
  3. "Pele's list of the greatest"। BBC Sport। 4 March 2004। সংগৃহীত 15 June 2013 
  4. Richards, Alex (২৫ এপ্রিল ২০১৩)। "Radamel Falcao: The Natural Heir to Gabriel Batistuta"। ব্লেচার রিপোর্ট। সংগৃহীত ২৮ মে ২০১৪ 
  5. Fryer, Rupert (২৬ মার্চ ২০১৩)। "Why Messi will struggle to surpass Batistuta's Argentina record"। Goal.com। সংগৃহীত ২৮ মে ২০১৪ 
  6. "Gabriel Batistuta - History - His Fans"Gabrielbatistuta.net। সংগৃহীত ৩০ মে ২০১৩ 
  7. "Roma-scudetto, racconta il tuo 17 giugno 2001" (ইতালীয় ভাষায়)। Corriere dello Sport। ১৭ জুন ২০১২। সংগৃহীত ২৮ মে ২০১৪ 
  8. "Argentine striker Gabriel Batistuta retires from soccer"। ইউএসএ টুডে Today। ১৪ মার্চ ২০০৫। সংগৃহীত ২৮ মে ২০১৪ 
  9. এতে রয়েছে কোপ্পা ইতালিয়া, সুপারকোপ্পা ইতলিয়ানা এবং এমির অফ কাতার কাপের পরিসংখ্যান।
  10. এতে রয়েছে কোপা লিবের্তাদোরেস, অ্যাংলো-ইতালিয়ান কাপ, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ, উয়েফা কাপ এবং উয়েফা কাপ উইনার্স কাপের পরিসংখ্যান।

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]