সোম্যাটিক স্নায়ুতন্ত্র

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সোম্যাটিক স্নায়ুতন্ত্র
Somatic Nervous System Image.svg
1. (Brain) Precentral gyrus: the origin of nerve signals initiating movement.

2. (Cross Section of Spinal Cord) Corticospinal tract: Mediator of message from brain to skeletal muscles.

3. Axon: the messenger cell that carries the command to contract muscles.

4. Neuromuscular junction: the messenger axon cell tells muscle cells to contract at this intersection
বিস্তারিত
যার অংশপ্রান্তীয় স্নায়ুতন্ত্র
শনাক্তকারী
এফএমএFMA:9904
শারীরস্থান পরিভাষা

সোম্যাটিক স্নায়ুতন্ত্র (ইংরেজি: somatic nervous system) এসএনএস বা স্বেচ্ছাপ্রবৃত্ত স্নায়ুতন্ত্র হচ্ছে প্রান্তীয় স্নায়ুতন্ত্রের একটি অংশ[১] যা ঐচ্ছিক পেশীর মাধ্যমে শরীরে নড়াচড়ার স্বতঃপ্রবৃত্ত নিয়ন্ত্রণের সাথে যুক্ত।

অ্যাফারেন্ট স্নায়ু তন্তু (ইংরেজি: afferent nerve fiber) বা সংজ্ঞাবহ স্নায়ুইফারেন্ট স্নায়ু তন্তু (ইংরেজি: efferent nerve fiber) বা মোটর স্নায়ু মিলে সোম্যাটিক স্নায়ুতন্ত্র গঠিত। অ্যাফারেন্ট স্নায়ু শরীরের বিভিন্ন অংশ থেকে কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রে সংবেদনশীলতা পরিবহনের কাজ করে; আর ইফারেন্ট স্নায়ুগুলোর কাজ সম্পূর্ণ বিপরীত, অর্থাৎ তারা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্র থেকে নির্দেশনা শরীরের নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করে। ইফারেন্ট স্নায়ুগুলো এই কাজটি করে পেশীর সংকোচনের মাধ্যমে, যেখানে অসংবেদনশীল (নন-সেনসরি) স্নায়ুকোষ রয়েছে যা দেহের কঙ্কালের সাথে থাকা পেশীত্বকের সাথে যুক্ত। ‘অ্যাফারেন্ট’ শব্দের ‘a’ ও ‘ইফারেন্ট’ শব্দের ‘e’ ইংরেজিতে যথাক্রমে ‘ad-’ (অর্থাৎ ‘to’, ‘toward’ বা ‘দিকে’ বা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের দিকে) এবং ‘ex-’ (‘out of’ বা ‘বাইরে’ বা কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের বাইরে) অর্থের দিকে নির্দেশ করে।

গঠন[সম্পাদনা]

মানবদেহে স্নায়ুর ৪৩টি বিভাগ বা সেগমেন্ট রয়েছে। প্রতিটি বিভাগের সাথে এক জোড়া সংজ্ঞাবহ (সংবেদনশীল বা সেনসরি) এবং মোটর স্নায়ু রয়েছে। শরীর থাকা স্নায়ুর এই ৪৩টি বিভাগের মধ্যে ৩১টির উৎপত্তি সুষুম্নাকাণ্ড থেকে ও বাকি ১২টি ব্রেইনস্টেম থেকে।

এগুলি ছাড়াও শরীরে কয়েক হাজার এর সাথে সংযোগকারীর স্নায়ুর উপস্থিতি রয়েছে।

সোম্যাটিক স্নায়ুতন্ত্র দুটি অংশ নিয়ে গঠিত:

  • সুষুম্না স্নায়ু : এগুলো হচ্ছে প্রান্তীয় স্নায়ু তা সংবেদনশীলতার তথ্য (সেনসরি ইনফরমেশন) সুষুম্নাকাণ্ডের দিকে ও মোটর নির্দেশনা সুষুম্নাকাণ্ড থেকে বাইরের দিকে বহন করে।
  • করোটিকা স্নায়ু : এগুলো হচ্ছে সেই স্নায়ুতন্তু যা ব্রেইনস্টেমের থেকে ও শরীরের অন্যন্য অংশ থেকে ব্রেইনস্টেমের দিকে তথ্য পরিবহন করে। বহনকৃত তথ্য বা অনুভূতির গন্ধ, দৃষ্টি, চোখ, চোখের পেশী, মুখ, স্বাদ, কান, ঘাড়, কাঁধ এবং জিহ্বা অন্তর্ভুক্ত।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]