সরোজ খান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সরোজ খান
Saroj khan nachle ve with saroj khan.jpg
নাচলে ভে সেটে, সরোজ খান
জন্ম
নির্মলা নাগপাল

(1948-11-22) ২২ নভেম্বর ১৯৪৮ (বয়স ৭১)
মৃত্যু৩ জুলাই ২০২০(2020-07-03) (বয়স ৭১)[১]
মুম্বই, মহারাষ্ট্র, ভারত
অন্যান্য নামসরোজ খান
পেশানৃত্য পরিচালক
কর্মজীবন১৯৫৮-২০২০

নির্মলা নাগপাল সুপরিচিত সরোজ খান নামে, (২২ নভেম্বর ১৯৪৮ - ৩ জুলাই ২০২০[১]), বলিউডের নৃত্য পরিচালকদের মধ্যে অন্যতম। তিনি মহারাষ্ট্র রাজ্যের রাজধানী বোম্বে শহরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। চল্লিশ বছরের কর্মজীবনে তিনি ২০০০ এরও বেশি গানের নৃত্য পরিচালনা করেছিলেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ছোট নির্মলা তার পিতা মাতার সাথে ভারতবর্ষের বিভক্ত পর, ভারতে চলে আসে। মাত্র তিন বছর বয়সে শিশু শিল্পী হিসাবে তার কর্মজীবন শুরু করেন, 'নজরানা' চলচ্চিত্রে শিশু শিল্পী শ্যামা হিসাবে,[২] এবং ১৯৫০ সালের দশকের শেষদিকে তিনি ব্যাকগ্রাউন্ড নর্তকী হিসাবে সুযোগ পান। চলচ্চিত্র কোরিগ্রাফার বি. সোহানলালের অধীনে কাজ করার সময় তিনি নাচ শিখেছিলেন। পরে, তিনি একজন সহকারী কোরিওগ্রাফার হিসেবে কাজ শুরু করেন এবং পরবর্তীকালে, ১৯৭৪ সালে, তিনি নিজে কোরিওগ্রাফার হিসাবে "গীতা মেরা নাম" চলচ্চিত্রে দিয়ে আত্মপ্রকাশ করেন। তবে, তাকে, কয়েকটি বছর অপেক্ষা করতে হয়েছিল পরিচিতি পেতে, অবশেষে ১৯৮৭ সালে, তিনি সফলতার প্রথম মুখ দেখেন, যখন তিনি শ্রীদেবীর সঙ্গে তার কাজের শুরু করেন, "মিঃ ইন্ডিয়া" চলচ্চিত্রে, "হাওয়া হাওয়াই" প্রশংসিত পায়, পরে, নাগিনা (১৯৮৬) এবং চাঁদনি (১৯৮৯), এবং পরবর্তীকালে, মাধুরী দীক্ষিতের সাথে, তেজাব (১৯৮৮) তে "এক দো তিন", থানেদার (১৯৯০) তে "তাম্মা তামমা লোগে"[৩] এবং "ধাক ধাক কর্নে লাগা", বেটা (১৯৯২) খুবই প্রশংশিত হয়। ফল ধীরে ধীরে তিনি সবচেয়ে সফল বলিউড কোরিগ্রাফার হয়ে ওঠেন।[২][৪]

২০১৪ সালে, "গুলাব গ্যাং" চলচ্চিত্রে এবং ২০১৮ সালে "কলঙ্ক" চলচ্চিত্রে, সরোজ আবার মাধুরী দীক্ষিতের সাথে কাজ করেন।[৫]

টেলিভিশনে উপস্থিতি[সম্পাদনা]

২০০৫ সালে, সরোজ, "নাচ বালিয়ে", একটি রিয়ালিটি নাচের শোতে দুই বিচারক কে সঙ্গে নিয়ে বিচারক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, যা স্টার ওয়ান চ্যানেলে প্রচারিত হয়েছিল। তিনি শো এর দ্বিতীয় বছরেও হাজির ছিলেন। তারপর তিনি কয়েক বছর ধরে কয়েকটি রিয়ালিটি শো করেন, যেমন, "উস্তাদো কা উস্তাদ" যেখানে তিনি বিচারক ছিলেন, যা সোনি এন্টারটেনমেন্ট টেলিভিশন (ভারত) -এ প্রচারিত হয়। ২০০৮ সালে, "নাচলে ভে উইথ সরোজ খান", যা এনডিটিভি ইমাজিনে প্রচারিত হয়েছিল, এটি একটি ড্যান্স ক্লাস শো। ডিসেম্বর ২০০৮ সালে, জাভেদ জাফরি, নাভেদ জাফরি ​​এবং রবি বেহলের সাথে একজন বিচারক হিসেবে তিনি সোনি চ্যানেলে "বুগি উগি" (টিভি সিরিজ) শোতে উপস্থিত হন। ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ সালে, থেকে শুরু হওয়া "ঝালাক দিখলা যা" রিয়ালিটি শো,তৃতীয় পর্বেতে, বৈভিভি মার্চেন্ট এবং অভিনেত্রী জুহি চাওয়লা কে সঙ্গে নিয়ে বিচারক ছিলেন এবং যা সোনি এন্টারটেনমেন্ট টেলিভিশন (ভারত) -এ প্রচারিত হয়েছিল।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

২০২০ সালের ৩ জুলাই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সরোজ খান শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷ ১৭ জুন, ২০২০ থেকে তিনি বান্দ্রার গুরু নানক হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন৷ তার করোনা পরীক্ষাও করা হয়, তবে ফলাফল নেগেটিভ আসে৷[৬]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "প্রয়াত বলিউডের 'মাস্টারজী' সরোজ খান"এই সময়। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-০৩ 
  2. Gulzar; Govind Nihalani; Saibal Chatterjee (২০০৩)। Encyclopaedia Of Hindi Cinema। Popular Prakashan। পৃষ্ঠা 573। আইএসবিএন 978-81-7991-066-5। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৩ 
  3. "'Tamma tamma loge' got okayed in the 48th take: Saroj Khan"। Times Of India। ২৩ মে ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৩ 
  4. Shoma A. Chatterji (২৮ অক্টোবর ২০১২)। "Diva of Dance"। The Tribune। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৩ 
  5. "Madhuri is still superb: Saroj Khan"। The Times of India। ২২ মে ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ১৩ জুন ২০১৩ 
  6. "চলে গেলেন বলিউডের নৃত্য সম্রাজ্ঞী সরোজ খান… থেমে গেল হৃদয়ের ধক-ধক স্পন্দন!"bangla.hindustantimes.com। ২০২০-০৭-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৭-০৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]