শাহে আলম তালুকদার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শা‌হে আলম তালুকদার
বরিশাল-২ জাতীয় সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
ডিসেম্বর ২০১৮ – বর্তমান
সংসদীয় এলাকাবরিশাল-২
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মবানারিপাড়া, বরিশাল, পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমানে — বাংলাদেশ)
নাগরিকত্ব বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীআতিয়া আলম মিলি[১]
প্রাক্তন শিক্ষার্থীব্রজমোহন কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
পেশারাজনীতিবিদ

শা‌হে আলম তালুকদার হলেন বাংলাদেশের একজন রাজনীতিবিদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ-সম্পাদক এবং বর্তমান সংসদ সদস্য। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সভাপতি ছিলেন।[২] তিনি । একাদশ জাতীয় নির্বাচনে বরিশাল-২ আসন থেকে তিনি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

স্কুল জীবনে ছাত্রলীগের মাধ্যমে রাজনীতিতে পদার্পণ ঘটে তার।[৪] ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধু সপরিবারে নিহত হওয়াকালীনও তিনি বরিশাল অঞ্চলে দলের হাল ধরতে এবং প্রতিবাদে জানাতে সোচ্চার ছিলেন। বরিশাল ব্রজমোহন কলেজের ছাত্র শাহে আলম পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন এবং এরমধ্য দিয়ে তৃণমূল থেকে কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে তার প্রবেশ ঘটে। পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, পাঠাগার সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদক, সহ-সভাপতি ও সর্বশেষ সভাপতির আসনে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৮১ সাল থেকে ৯০ সাল পর্যন্ত ছাত্রলীগকে সুগঠিত রাখায় শেখ হাসিনা ১৯৯০ সালে ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগের তৎকালীণ সভাপতি ও সম্পাদকের পরিবর্তে সহ সভাপতি শাহে আলমকে ভিপি প্রার্থী করেন। সাংগঠনিক দক্ষতার কারণে তাকে ছাত্রলীগের সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। নব্বইয়ের স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।[২]

১৯৯১, ৯৬, ২০০১, ২০০৮২০১৪ এর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হলেও পাননি।[৫] অবশেষে ২০১৮-এর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন লাভ করেন[৬] এবং সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বরিশালে শাহে আলমের স্ত্রীর নিবার্চনী প্রচারণা"দৈনিক যায় যায় দিন। ২২ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "জাপার সোহেল রানা নাকি আ.লীগের শাহে আলম?"দৈনিক প্রথম আলো। ২৯ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  3. "বরিশাল-২: বেসরকারিভাবে নৌকার শাহে আলম নির্বাচিত"দৈনিক ইত্তেফাক। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  4. "আমি কেন প্রার্থী হলাম"দৈনিক ভোরের কাগজ। ২৬ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  5. "আওয়ামী লীগের শাহে আলমের পক্ষে একাট্টা সবাই"দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন। ৭ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 
  6. "বরিশাল-২ আসনে মনোনয়ন পেলেন শাহে আলম"দৈনিক যুগান্তর। ১ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]