লিয়াম নিসন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লিয়াম নিসন
Liam Neeson Deauville 2012.jpg
লিয়াম নিসন (সেপ্টেম্বর, ২০১২)
জন্ম
লিয়াম জন নিসন

(1952-06-07) ৭ জুন ১৯৫২ (বয়স ৬৭)[১]
বেলিম্যানা, আন্ট্রিম কাউন্টি, উত্তর আয়ারল্যান্ড
পেশাঅভিনেতা
কার্যকাল১৯৭৩-বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীনাতাশা রিচার্ডসন
(১৯৯৪-২০০৯, মৃ.)
সন্তান২ (মাইকেল, ডেনিয়েল)
আত্মীয়ভেনেসা রেডগ্রেভ
(শাশুরী)
টনি রিচার্ডসন (শশুর)
জোলি রিচার্ডসন
(শ্যালিকা)

লিয়াম জন নিসন (জন্মঃ ৭ জুন, ১৯৫২)[২] একজন আইরিশ চলচ্চিত্র অভিনেতা। তার আলোচিত ছবিগুলো হলো শিন্ডলার্স লিস্ট, স্টার ওয়ারস এপিসোড ১: দ্য ফেনটম মেনাক, টেকেন (সিরিজ) মাইকেল কলিন্স, কিনসি, বেটম্যান বিগিন্স, ডার্কম্যান, সেরাফিম ফলস। তিনি অস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন।

জন্ম ও প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

লিয়াম নিসন অ্যান্ট্রিম কাউন্টির ব্যালিম্যানাতে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম বার্নার্ড নিসন ও মাতার নাম ক্যাথেরিন নিসন। তার মা ছিলেন গ্রহেনী ও পিতা স্থানীয় বেলিম্যানা বয়েস আল সেইন্ট প্রাইমারি স্কুলের কেয়ারটেকার।[৩] তিনি রোমান ক্যাথোলিক হিসেবে বেড়ে উঠেন[৪][৫][৬] এবং তার নামকরণ করা হয় একজন যাজক লিয়ামের নামানুসারে।[৭] চর ভাই-বোনের মধ্যে তিনি তৃতীয়। তার অন্য তিন বোন হলেন, এলিজাবেথ, বার্নার্ডতি, রোজেলিন।[৮] নয় বছর বয়েসে নিসন আল সেইন্ট ইয়থ ক্লাবে বক্সিং শেখা শুরু করে এবং পরে অলস্টারের অ্যামেচার সিনিয়র বক্সিং এ জয়ী হয়।[৯] ১১ বছর বয়সে প্রথম মঞ্চে অভিনয় করেন। তার স্কুলের ইংরেজি শিক্ষক তাকে স্কুলের একটি নাটকে অভিনয় করার প্রস্তাব দেন ও নিসন তা গ্রহণ করেন কারণ তার স্কুলের যে মেয়েকে তার ভাল লাগত সেও নাটকটিতে অভিনয় করবে।[১০] এরপর থেকে স্কুলের সবগুলো অনুষ্ঠানেই তিনি অভিনয় করে গেছেন।[১১]

১৯৭১ সালে তিনি কুইন’স বিশ্ববিদ্যালয় বেলফাস্টে’ পদার্থ ও কম্পিউটার সায়েন্সের ছাত্র হিসেবে ভর্তি হন।[১২] তিনি কিছুদিন বিভিন্ন ক্লাবে ফুটবলও খেলেছেন।[১৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Monitor"। Entertainment Weekly (1209/1210)। 1/8 Jun 2012। পৃষ্ঠা 35।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  2. Morales, Tatiana (১৫ ডিসেম্বর ২০০৪)। "Liam Neeson on Kinsey"। CBS News। 
  3. "Liam Neeson Biography"। ১৮ জানুয়ারি ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মে ২০১৩ 
  4. Blaney, Retta। "Acting Is a Form of Prayer"। Beliefnet। 
  5. "Liam Neeson: Bloody Sunday made me learn my history"The Belfast Telegraph। ১ এপ্রিল ২০১০। : (Commentary;"Hollywood superstar Liam Neeson has told how he grew up in a religious Catholic background untouched by the Troubles.")
  6. Flynn, Gaynor (২৩ আগস্ট ২০০৮)। "Always a Wanted man"The New Zealand Herald 
  7. Mansfield, Stephanie (1993-12)। "Liam Neeson Puts the Kettle On"। GQ  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য);
  8. "Liam Neeson" 
  9. "Star who shone in the boxing ring"। BBC News। ১৩ ডিসেম্বর ২০০৬। 
  10. Frankel, Martha (1990-12)। "'Man' of the Year"। American Film।  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য);
  11. Dewson, Lisa (1986-06)। "A Man With a Mission"। Photoplay (UK)  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য);
  12. "Liam Neeson graduates 40 years on"। BBC News। ৭ মে ২০০৯। 
  13. Gaffers: 50 Years of Irish Football Managers by Trevor Keane

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]