লাউডগা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

লাউডগা সাপ
Ahaetulla threat.jpg
Ahaetullahead.jpg
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: Animalia
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: Reptilia
বর্গ: Squamata
উপবর্গ: Serpentes
পরিবার: Colubridae
উপপরিবার: Colubrinae
গণ: Ahaetulla
প্রজাতি: A. nasuta
দ্বিপদী নাম
Ahaetulla nasuta
(Lacépède, 1789)
প্রতিশব্দ

Dryophis nasuta
Dryophis mycterizans

লাউডগা সাপ, (ইংরেজি: common vine snake), (বৈজ্ঞানিক নাম: Ahaetulla nasuta) সবুজ কচি লতার মত দেখতে, কলুব্রিডি পরিবারের খুবই মৃদু বিষযুক্ত (মানুষের জন্য প্রকৃতপক্ষে নির্বিষ) সাপদক্ষিণদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, ভুটান, লাওস, ব্রুনাই, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, মায়ানমার, কম্বোডিয়া, ভিয়েতনাম, সিঙ্গাপুর, ফিলিপাইন এবং পূর্ব এশিয়ার চীনে এ প্রজাতিটি দেখা যায়।[১] ইংরেজি নাম কমন ভাইন স্নেক (common vine snake, ভাইন মানে লতা)[২]

বাংলাদেশের ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইনে এ প্রজাতিটি সংরক্ষিত।[৩]

বিবরণ[সম্পাদনা]

লাউডগা সাপের দেহ মসৃণ, লম্বাটে ও নলাকার এবং নাক লম্বা ও সুচালো। প্রাপ্তবয়স্ক সাপের দৈর্ঘ্য প্রায় ২০০ সেমি, লেজের দৈর্ঘ্য দেহের মোট দৈর্ঘ্যের ৩৪%। সদ্যোজাত সাপের দৈর্ঘ্য ৫সেমি হতে পারে। দেহের পৃষ্ঠীয় ভাগ উজ্জ্বল সবুজ রঙের; কখনও কখনও বাদামি-ধূসর রঙের হতে পারে। অঙ্কীয়ভাগ উজ্জ্বল এবং হলুদ বা সাদা রেখার মাধ্যমে দেহের পৃষ্ঠীয়ভাগ থেকে পৃথক থাকে। দেহের পিছনের অংশে কালো ও সাদা আন্তঃত্বকীয় রেখা থাকে।[৪]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Thy, N., Nguyen, T.Q., Golynsky, E., Demegillo, A., Diesmos, A.C. & Gonzalez, J.C. (২০১২)। "Ahaetulla prasina"The IUCN Red List of Threatened Species। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০৪-১০ 
  2. "ইণ্ডিয়ান স্নেকস ওয়েব সাইটে এই সাপের বিবরণ ও নানা ভারতীয় ভাষায় নাম"। ৬ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুন ২০১৩ 
  3. বাংলাদেশ গেজেট, অতিরিক্ত, জুলাই ১০, ২০১২, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, পৃষ্ঠা-১১৮৪৪৪
  4. জিয়া উদ্দীন আহমেদ (সম্পা.) (২০১১)। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ: উভচর প্রাণী ও সরীসৃপ (খণ্ড ২৫)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১২৩–৪। আইএসবিএন 9843000002860 |আইএসবিএন= এর মান পরীক্ষা করুন: invalid prefix (সাহায্য)