লক্ষ কোটি ডলারের ক্লাব

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

লক্ষ কোটি ডলারের ক্লাব বা ট্রিলিয়ন ডলার ক্লাব বিশ্বের প্রধান কিছু জাতীয় অর্থনীতির একটি অনানুষ্ঠানিক শ্রেণী, যাদের প্রত্যেকের স্থূল অভ্যন্তরীণ উৎপাদন তথা মোট জাতীয় আয় বছরে ১ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি। ২০১৭ সালের উপাত্ত অনুযায়ী এরকম ১৬টি রাষ্ট্র আছে। এগুলি হল উত্তর আমেরিকা মহাদেশের রাষ্ট্র কানাডা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রমেক্সিকো, দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের রাষ্ট্র ব্রাজিল, এশিয়া মহাদেশের রাষ্ট্র জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, ভারতইন্দোনেশিয়া, ইউরোপ মহাদেশের রাষ্ট্র জার্মানি, ফ্রান্স, ইতালি, যুক্তরাজ্য, স্পেনরাশিয়া এবং ওশেনিয়ার রাষ্ট্র অস্ট্রেলিয়া[১][২]

১৯৮০-র দশকের শুরুর দিকে বিশ্বের মাত্র দুইটি রাষ্ট্র লক্ষ কোটি ডলার ক্লাবের সদস্য ছিল: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়ন। ১৯৮০-র দশকের শেষে এসে জাপান, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও ইতালি এই দলে যোগ দেয়। কিন্তু সোভিয়েত ইউনিয়নের অর্থনীতিতে মন্দা শুরু হলে সেটি দল থেকে বের হয়ে যায়। ১৯৯০-এর দশকে একটিমাত্র রাষ্ট্র এই দলে যোগ দেয় : চীন। ২০০৪ সালে কানাডা ও স্পেন এবং ২০০৬-২০০৮ সালের মধ্যে রাশিয়া, ব্রাজিল, মেক্সিকো, দক্ষিণ কোরিয়া, ভারত ও অস্ট্রেলিয়াও এই দলে আগমন করে। ২০১০-এর দশকে এসে ২০১৭ সালে ইন্দোনেশিয়া সর্বশেষ রাষ্ট্র হিসেবে লক্ষ কোটি ডলারের ক্লাবে অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। ভবিষ্যতে নেদারল্যান্ডসতুরস্কের যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা আছে।[২] এদের বাইরে সৌদি আরব (১৯তম) ও সুইজারল্যান্ড (২০তম) বিশ্বের বৃহত্তম ২০টি অর্থনীতির মধ্যে স্থান পেয়েছে।[১]

উল্লেখ্য যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি এতই বৃহৎ যে এর চারটি অঙ্গরাজ্যের রাজ্য অর্থনীতির আকার ১ লক্ষ কোটি ডলারের বেশি। এগুলি হল ক্যালিফোর্নিয়া (৩ লক্ষ কোটি ডলার), টেক্সাস (১.৮ লক্ষ কোটি ডলার), নিউ ইয়র্ক (১.৭ লক্ষ কোটি ডলার) ও ফ্লোরিডা (১ লক্ষ কোটি ডলার)। অনুরূপে চীনের তিনটি প্রদেশ কুয়াংতুং (১.৪৭ লক্ষ কোটি ডলার), চিয়াংসু (১.৩৯ লক্ষ কোটি ডলার) ও শানতুং (১.১৫ লক্ষ কোটি ডলার) প্রদেশগুলির প্রাদেশিক অর্থনীতির আকার ১ লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারের বেশি।

সারণি[সম্পাদনা]

রাষ্ট্র অর্থনীতির আয়তন (২০১৭)
(লক্ষ কোটি মার্কিন ডলারে)[১]
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯.৩৯
গণচীন ১২.০১
জাপান ৪.৮৭
জার্মানি ৩.৬৮
যুক্তরাজ্য ২.৬২
ভারত ২.৬১
ফ্রান্স ২.৫৮
ব্রাজিল ২.০৫
ইতালি ১.৯৩
কানাডা ১.৬৫
দক্ষিণ কোরিয়া ১.৫৩
রাশিয়া ১.৫২
অস্ট্রেলিয়া ১.৩৮
স্পেন ১.৩১
মেক্সিকো ১.১৫
ইন্দোনেশিয়া ১.০১

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Caleb Silber (জুন ৭, ২০১৯), Top 20 Economies in the World: Ranking the "Richest" Countries in the World 
  2. Bruce D. Jones (২০১৪), Still Ours to Lead: America, Rising Powers, and the Tension between Rivalry and Restraint, Brookings Institution Press, পৃষ্ঠা 40-41