রুস্তম কাসিমঝানভ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
Jump to navigation Jump to search
রুস্তম কাসিমঝানভ
Kasimdhzanov Torino 2006.JPG
২০০৬ সালে তুরিন অলিম্পিয়াডে রুস্তম কাসিমঝানভ
পূর্ণ নাম রুস্তম কসিমজনভ
দেশ উজবেকিস্তান
জন্ম (১৯৭৯-১২-০৫) ৫ ডিসেম্বর ১৯৭৯ (বয়স ৩৮)
তাশখন্দ, উজবেক সোভিয়েত সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র, সোভিয়েত ইউনিয়ন
খেতাব গ্র্যান্ডমাস্টার
বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ২০০৪–০৫ (ফিদে)
ফিদে রেটিং 2699 (অক্টোবর ২০১৮)
(ডিসেম্বর, ২০১৪ সালে ৪৫নং ফিদে বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং)
এলো রেটিং ২৭১৫ (মে, ২০১৫)

রুস্তম কাসিমঝানভ (উজবেক: Rustam Qosimjonov; রুশ: Рустам Касымджанов; জন্ম: ৫ ডিসেম্বর, ১৯৭৯) সাবেক উজবেক সোভিয়েত সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রের তাশখন্দে জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত উজবেক দাবাড়ু।[১] তিনি দাবায় গ্র্যান্ডমাস্টার খেতাব লাভ করেছেন। ২০০৪ সালের ফিদে বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা জয় করে বৈশ্বিকভাবে পরিচিতি পেয়েছেন।[২] তিনি উজবেক জাতিগোষ্ঠীর সদস্য।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালের এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশীপে প্রথম স্থান দখল করেন। এরপর ১৯৯৯ সালের বিশ্ব জুনিয়র দাবা চ্যাম্পিয়নশীপে দ্বিতীয় স্থানে ছিলেন। ২০০১ সালে এসেনে, ২০০২ সালে পাম্পলোনায়, ২০০৩ সালে ভিসিনজেন ওপেনে প্রথম হন। তন্মধ্যে পাম্পলোনায় ভিক্টর বোলোগানের সাথে যৌথভাবে ৩//৬ পয়েন্ট লাভ করেছিলেন। ২০০৫ সালে পুনেতে লিভিউ ডায়েটার নিসিপিনু’র সাথে যৌথভাবে প্রথম হন।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপ[সম্পাদনা]

২০০০ সালের দাবা অলিম্পিয়াডে ৯//১২ পয়েন্ট পেয়ে বোর্ডে ব্রোঞ্জপদক পান। এছাড়াও, ২০০২ সালের ফিদে দাবা বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতীয় দাবাড়ু বিশ্বনাথন আনন্দের কাছে পরাজিত হয়ে রানার-আপ হন। মর্যাদাপূর্ণ উইক আন জি প্রতিযোগিতায় দুইবার অংশ নিলেও কোনবারই তেমন ভালো করেননি।

লিবিয়ার ত্রিপোলিতে ২০০৪ সালের ফিদে বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশীপে আলেজান্দ্রো রামিরেজ, এহসান গায়েম মাগামি, ভাসিলি ইভানচুক, জোল্টান আলমাসি, আলেকজান্ডার গ্রিসচুক ও ভেসেলিন তোপালভের বিপক্ষে জয় পান। এরপর মাইকেল অ্যাডামসের বিপক্ষে জয় পেয়ে শিরোপা লাভ করেন ও গ্যারি কাসপারভের বিপক্ষে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দাবাড়ু হবার জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হন। ছয় খেলার ফাইনালে উভয়েই দুই খেলায় জয় পান। শিরোপা নির্ধারণের লক্ষ্যে প্রথম খেলায় জয় ও পরের খেলায় ড্র করে নতুন ফিদে চ্যাম্পিয়ন হন।

ফলশ্রুতিতে ২০০৫ সালে আট খেলোয়াড় নিয়ে ফিদে বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশীপে খেলার যোগ্যতা লাভ করেন তিনি। ৬ষ্ঠ-৭ম স্থানের জন্য মাইকেল অ্যাডামসের সাথে টাই করেন তিনি। ২০০৭ সালের ফিদে বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশীপে খেলেন। প্রথম রাউন্ডে তার প্রতিপক্ষ বরিস গেলফান্ডের সাথে ছয় খেলার সবগুলোই ড্রয়ে পরিণত হয়। তারপর টাই ব্রেকে হেরে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নেন তিনি।

মে, ২০১৪ সালে তার এলো রেটিং ছিল ২৭০০। এরফলে তিনি বিশ্বের ৪৬তম ও উজবেকিস্তানের এক নম্বর দাবাড়ুতে পরিণত হন। তবে, জানুয়ারি, ২০১৩ সালের তালিকায় তার রেটিং ২৭০৯-এ পদার্পণ করেছিল।

২০০৫ সালে লিনারেসে প্রথম অংশ নেন ও ৪/১২ পেয়ে যৌথভাবে সর্বনিম্ন স্থান পান। ২০০৬ সালের নক-আউটভিত্তিক করসিকা মাস্টার্স প্রতিযোগিতার শিরোপা লাভ করেন।[৩]

২০১০ সালের এশিয়ান গেমসের দাবায় পুরুষদের এককে স্বর্ণপদক পান।

উল্লেখযোগ্য খেলা[সম্পাদনা]

  • রুস্তম কাসিমঝানভ ব ভিক্টর কর্চনই, জুলিয়ান বরোস্কি-এ ৪র্থ ২০০২, ফ্রেঞ্চ ডিফেন্স, ১-০
  • মাইকেল অ্যাডামস ব রুস্তম কাসিমঝানভ, ফিদে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপ নক-আউট প্রতিযোগিতা ২০০৪, সিসিলিয়ান ডিফেন্স, ০-১
  • ভেসেলিন তোপালভ ব রুস্তম কাসিমঝানভ, ফিদে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপ নক-আউট প্রতিযোগিতা ২০০৪, কুইন্স ইন্ডিয়ান ডিফেন্স, ০-১
  • রুস্তম কাসিমঝানভ ব বিশ্বনাথন আনন্দ, ফিদে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশীপ নক-আউট প্রতিযোগিতা ২০০৫, সিসিলিয়ান ডিফেন্স, ১-০

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. চেজগেমস.কম-এ রুস্তম কাসিমঝানভের খেলোয়াড় প্রোফাইল এবং গেমস (ইংরেজি)
  2. Rustam Kasimdzhanov wins FIDE title from Chessbase News.
  3. "Rustam Kasimdzhanov wins Corsica Masters"। ChessBase.com। ২০০৬-১১-০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৭ ডিসেম্বর ২০১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

পুরস্কার ও স্বীকৃতি
পূর্বসূরী
রাসল্যান পোনোম্যারিওভ
ফিদে বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়ন
২০০৪-২০০৫
উত্তরসূরী
ভেসেলিন তোপালভ