রাজ কুমার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাজ কুমার
Raj kumar.jpg
জন্ম
কুলভূষণ পণ্ডিত

(১৯২৬-১০-০৮)৮ অক্টোবর ১৯২৬
লেরালাই, বেলুচিস্থান এজেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমানে বেলুচিস্তান, পাকিস্তান)
মৃত্যু৩ জুলাই ১৯৯৬(1996-07-03) (বয়স ৬৯)
পেশাঅভিনেতা
কর্মজীবন১৯৫২–১৯৯৫
দাম্পত্য সঙ্গীগায়ত্রী রাজকুমার
সন্তান৩, পুরু রাজ কুমার (সহ)

রাজ কুমার (৮ অক্টোবর ১৯২৬ - ৩ জুলাই ১৯৯৬), কুলভূষণ পণ্ডিত নামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, তিনি একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেতা ছিলেন। ১৯৪০-এর দশকের শেষদিকে তিনি ১৯৫২ সালের হিন্দি ছবি রঙ্গেলি দিয়ে অভিনয়ের দিকে মনোনিবেশ করার আগে তিনি মুম্বাই পুলিশের উপ-পরিদর্শক হিসাবে কাজ করেছিলেন। [১] তিনি অস্কার-মনোনীত ১৯৫৭ সালের মাদার ইন্ডিয়ার ছবিতে অভিনয় করেছিলেন এবং চার দশকের বিস্তৃত কর্মজীবনে ৭০ টিরও বেশি হিন্দি ছবিতে অভিনয় করেছিলেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

রাজ কুমার একটি কাশ্মীরি পণ্ডিত পরিবারে ব্রিটিশ ভারতের বেলুচিস্তানের লোরেলায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন। [২][৩] ১৯৪০ এর দশকের শেষের দিকে তিনি ভারতের মুম্বাই চলে যান, যেখানে তিনি মুম্বই পুলিশের উপ-পরিদর্শক হন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] তিনি একজন অ্যাংলো-ইন্ডিয়ান জেনিফারকে বিয়ে করেছিলেন, জেনিফারকে একটি বিমানের হোস্টেস ছিলেন, এমন একটি ফ্লাইটে তাদের পরিচয় হয়েছিল। পরে তিনি হিন্দু রীতিনীতি অনুসারে নিজের নাম পরিবর্তন করে গায়ত্রী রাখেন। তাদের তিন সন্তান, পুত্র পুুরুরাজ কুমার (বলিউড অভিনেতা), পানিনী রাজকুমার এবং কন্যা বাস্তাবিকতা পন্ডিত, যিনি ২০০৬ সালে নির্মিত চলচ্চিত্র আট: দ্য পাওয়ার অফ শানির মাধ্যমে পর্দার আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। [৪]

অভিনয় জীবন[সম্পাদনা]

রাজ কুমার ১৯৫২ সালে রঙ্গিলি ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন এবং আবশার, ঘামন্ডলক্ষন মে একের মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন, তবে সোহরাব মোদীর নওশেরওয়ান-ই আদিলের (১৯৫৭) প্রিন্স নওশাদাদ হিসাবে তিনি বিখ্যাত হয়েছিলেন। ১৯৫৭ সালে তিনি মাদার ইন্ডিয়াতে নার্গিসের স্বামী হিসাবে তাঁর সংক্ষিপ্ত ভূমিকার মাধ্যমে সুনাম অর্জন করেছিলেন। তিনি উজালায় শাম্মী কাপুরের পাশাপাশি কাজ করেছিলেন (১৯৫৯)। দিলীপ কুমারের সাথে তিনি পাইঘামে (১৯৫৯) তিনি একজন মিল শ্রমিকের অভিনয় করেছিলেন। শ্রীধরের দিল এক মন্দিরে (১৯৬৩), রাজ কুমার একজন ক্যান্সার রোগীর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন যার জন্য তিনি সেরা পর্শ্ব অভিনেতার বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার লাভ করেছিলেন। [৫] ১৯৬৫ সালে যশ চোপড়ার পারিবারিক নাট্য ওয়াক্ততে সুনীল দত্ত, শশী কাপুর এবং বলরাজ সাহনীর সাথে তিনি অভিনয় করেছিলেন। [৬] তিনি তার স্বতন্ত্র স্টাইলের সংলাপ বিতরণের জন্য পরিচিত ছিলেন। [৭]

তার অন্যান্য উল্লেখযোগ্য ছায়াছবি অন্তর্ভুক্ত হামরাজ (১৯৬৭),হির রানজা (১৯৭১), মর্যাদা (১৯৭১), লাল পাত্থর (১৯৭১) এবং পাকিজা (১৯৭২)। ১৯৭০-এর দশকের শেষের দিকে এবং ১৯৮০-এর দশকের গোড়ার দিকে, বেশ কয়েকটি ফ্লপ সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরে তিনি কুদরত (১৯৮১), এক নাই পহেলি (১৯৮৪), মার্তে দম তাক (১৯৮৭), মুকতদার কা ফয়সালা (১৯৪৭) এবং জাঙ্গ বাজ (১৯৮৯)এ পার্শ্ব অভিনেতা হিসাবে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছিলেন। ১৯৯১ সালে তিনি ৩২ বছর পর সহকর্মী ঝানু অভিনেতা দিলীপ কুমার সঙ্গে পুনরায় একত্রে কাজ করেন সুভাষ ঘাই এর সওদাগর সিনেমায়। তার শেষ হিট ছবিটি ছিল ১৯৯২ সালের তিরঙ্গা চলচ্চিত্র এবং তার শেষ ছবিটি ছিল ১৯৯৫ এর গড অ্যান্ড গান'।

১৯৫২ সালে রাঙ্গিলে তাঁর পর্দার অভিষেক থেকে শুরু করে ১৯৯৫ সালের তাঁর শেষ ছবি গড অ্যান্ড গান অবধি ৬০-টি ছবিতে স্মরণীয় চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।

মৃত্যু[সম্পাদনা]

গলার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ৬৯ বছর বয়সে রাজ কুমার মারা যায় [৮][৯] ফারহানা ফারুককে দেওয়া সাক্ষাতৎকারে পুরুরাজ কুমারের মতে তার বাবা হজকিন্সে ভুগছিলেন যার জন্য তিনি কেমোথেরাপি নিয়েছিলেন। দু'বছর তার ফুসফুস এবং পাঁজরের মধ্যে পুনরাবৃত্ত নোডগুলির খারাপ ছিল। [১০]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

Year Title Role Notes
১৯৫২ রঙ্গীলা
১৯৫৩ '
১৯৫৫ ঘামান্ড
১৯৫৭ মাদার ইন্ডিয়া]] শম্বু
১৯৫৭ কৃষনা সাদমা
১৯৫৭ নওশাদ-ই-আদিল নওশাদ/জোসেফ
১৯৫৭ নীল মণি
১৯৫৮ দুলহান
১৯৫৮ পঞ্জায়াতী মহন
১৯৫৯ দৃর্গা মাতা
১৯৫৯ পয়গাম রামলাম মনেনীত, শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
১৯৫৯ শারারাত সুরাজ
১৯৫৯ অর্ধাঙ্গীনী প্রকাশ
১৯৫৯ সওরাত সে সুন্দর দেশ হামারা
১৯৫৯ ঊজালা কালু
১৯৬০ দিল আপনা অর প্রীত পরাইi ডাঃ সুশীল
১৯৬১ ঘরানা কৈলাশ
১৯৬৩ দিল এক মন্দির রাম শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
১৯৬৩ গোদান হরি
১৯৬৩ ফুল বানে আংগারী ক্যাপ্টেন রাজেশ
১৯৬৩ পেয়ার কি বন্দন কালু
১৯৬৪ জিন্দীগী গোপাল
১৯৬৫ ওয়াক্ত রাজা শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
১৯৬৫ কাজল মতি মনেনীত, শ্রেষ্ঠ অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার

মনেনীত, শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার

১৯৬৫ অনচিন লোক ইনেচপেক্টর শ্রিকান্ত
১৯৬৫ রিস্তে নাতে সুন্দর
১৯৬৭ হামরাজ ক্যাপ্টেন রাজেশ
১৯৬৭ নাই রশনীi জয়তি
১৯৬৮ মেরা হুজুর নওয়াব সেলীম
১৯৬৮ নীল কমল চিত্রাসেন মনোনীত, শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
১৯৬৮ ভাসনা কৈলাশ
১৯৭০ হীর রানজা রানজা
১৯৭১ লাল পাথার কুমার বাহাদুর জ্ঞান শঙ্কর রয়
১৯৭১ মর্যাদা রাজা বাবু/রাজ বাহাদুর
১৯৭২ পাকিজা সেলীম আহমেদ খান
১৯৭২ দিল কা রাজা রাজা বিচিত্রা সিং/রাজু
১৯৭৩ হিন্দুস্তান কি কসম রাজীব
১৯৭৪ ৩৬ ঘন্টে ইডেটর অশেক রাই
১৯৭৬ এক সে বার কর এক শংকর
১৯৭৮ কর্মযোগী শংকর/মেহন
১৯৮০ বুলুন্দী প্রফেসর সতিশ খুরানা
১৯৮০ Chambal Ki Kasam Thakur Suraj Singh
1981 Kudrat Choudhury Janak Singh
1982 Dharam Kanta Thakur Bhavani Singh
1984 Ek Nai Paheli Upendranath
1984 Raaj Tilak Samadh Khan
1984 Sharara Raj kumar
1987 Itihaas Joginder Singh
1987 Marte Dam Tak S.I. Rane/Rana
1987 Muqaddar Ka Faisla Pandit Krishnakant
1988 Mahaveera DSP Karamvir/Don
1988 Mohabbat Ke Dushman Rehemat Khan
1988 Saazish Kailash
1989 Desh Ke Dushman
1989 Jung Baaz Krishan Prasad
1989 Galiyon Ka Badshah Ram/Raja
1989 Suryaa: An Awakening Rajpal Chauhan
1990 Police Public Jagmohan Azad
1991 Saudagar Rajeshwar Singh
1993 Tirangaa Brigadier Suryadev Singh
1993 Insaniyat Ke Devta Jailer Rana Pratap Singh
1993 Police Aur Mujrim Police Commissioner Veer Bahadur Singh
1994 Ulfat Ki Nayee Manzilen
1994 Betaaj Badshah Prithvi Raj
1995 Jawab Ashwani Kumar Saxena
1995 God and Gun Saheb Bahadur Rathore

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Raaj Kumar"IMDb। ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০১৮ 
  2. Hindus Contribution Towards Making Of Pakistan ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৯ এপ্রিল ২০১১ তারিখে 22 May 2010 Retrieved 28 January 2011
  3. "Purru Raaj Kumar: Dad was Bizzare [sic] But Never Boring"iDiva.com। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩। ১০ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. "Raaj Kumar's daughter VASTAVIKTA debuts - bollywood news : glamsham.com"। glamsham.com। ১৮ আগস্ট ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "Blast From the Past – Dil Ek Mandir (1963)"The Hindu। Chennai, India। ২০১০-০১-২৯। ১০ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. "Raj Kumar of dialogue delivery"। ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  7. "King of dialogue delivery"The Hindu। Chennai, India। ১৭ অক্টোবর ২০১১। ১০ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  8. Dhawan, M. L. (২৯ জুন ২০০৩)। "Remembering A Legend"The Sunday Tribune। ১০ নভেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০১৪ 
  9. Singh, Kuldip (৬ জুলাই ১৯৯৬)। "Obituary Raaj Kumar"The Independent। ২৯ এপ্রিল ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০১৪ 
  10. Farook, Farhana (২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৩)। "Dad Was Bizarre But Never Boring"news-entertainment। iDiva.com। ১০ মার্চ ২০১৪ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৮ এপ্রিল ২০১৪ 

বাহিঃ সংযোগ[সম্পাদনা]