রাজশ্রী ওঝা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রাজশ্রী ওঝা
জন্ম১৯৭৬
পেশাচলচ্চিত্র পরিচালক
কর্মজীবন২০০৫–বর্তমান

রাজশ্রী ওঝা (জন্ম ১৯৭৬) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র নির্মাতা যিনি আইশা এবং চৌরাহেঁ ছবি দু'টি পরিচালনা করেছেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

রাজশ্রী ১৯৭৬ সালে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বেঙ্গালুরুতে বড় হয়ে উঠেছিলেন এবং কম্পিউটার বিজ্ঞানে স্নাতক পাস করার জন্য নিউ ইয়র্ক শহরে চলে গিয়েছিলেন। স্নাতক শেষ করার পরে, তিনি নিউ ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে চলচ্চিত্র নির্মাণ শিখতে গিয়েছিলেন। ২০০২ সালে আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট থেকে তিনি চলচ্চিত্র নির্মাণ নিয়ে স্নাতকোত্তর করেন।[১] ব্যাজার নামে তাঁর স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, যেটি তাঁর ডিপ্লোমা শিক্ষার অংশ হিসাবে তিনি তৈরী করেছিলেন, সেটি 'অসামান্য পরিচালনা'র জন্য আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউটের স্পিরিট অফ এক্সিলেন্স পুরস্কার পেয়েছিল। ডিরেক্টর্স গিল্ড অব আমেরিকা তাঁকে এশিয়ান ভয়েস হিসাবেও সম্মানিত করেছিল।[২] ২০০৫ সালে তিনি ভারতে ফিরে এসেছিলেন।

চলচ্চিত্র জীবন[সম্পাদনা]

রাজশ্রীর প্রথম চলচ্চিত্র চৌরাহেঁ, বিশিষ্ট হিন্দি ঔপন্যাসিক নির্মল ভার্মার চারটি ছোট গল্পের উপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছিল। এই চলচ্চিত্রের কাজ ২০০২ সালের প্রথমদিকে শুরু হয়েছিল। এই ছবিটিতে সোহা আলি খান, জিনাত আমান, কিয়েরা চ্যাপলিন, নেদুমুদি ভেনু ইত্যাদি অভিনেতারা অভিনয় করেছিলেন। তবে ছবিটির নির্মানের চূড়ান্ত মুহূর্তে প্রযোজক প্রকল্প ত্যাগ করেন এবং রাজশ্রী নিজেই ছবিটি প্রযোজনার সিদ্ধান্ত নেন। ছবির কাজ শেষ পর্যন্ত ২০০৫ সালে আবার শুরু করা হয়েছিল এবং ২০০৮ সালে ১.৮০ কোটি বাজেটে ছবিটির কাজ শেষ হয়েছিল। প্রকল্পটি আর্থিক সমস্যার কারণে বহুবার হিমঘরে চলে গিয়েছিল এবং অবশেষে এটি পিভিআর পিকচারস এর উদ্যোগে ডিরেক্টর'স রেয়ার এর মাধ্যমে নাট্যমঞ্চে মুক্তি পেয়েছিল। এরপর, ছবিটি অনেক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়েছিল এবং প্রশংসামূলক সমালোচনাও পেয়েছিল।[৩][৪][৫]

যদিও চৌরাহেঁ রাজশ্রীর প্রথম ছবি, আইশা ব্যাপকভাবে তাঁর আত্মপ্রকাশ হিসাবে বিবেচিত হয়। এই ছবির কাজ শুরু হয়েছিল ২০০৯ সালে। চলচ্চিত্রটিতে সোনম কাপুর এবং অভয় দেওল প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এবং এটির প্রযোজনা করেছিলেন অনিল কাপুর। ছবিটি জেন অস্টেনের উপন্যাস এম্মার উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছিল, এর চিত্রনাট্য লিখেছিলেন দেবিকা ভগত। ছবিটি ২০১০ সালে মুক্তি পেয়েছিল এবং সমালোচকদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া পেয়েছিল। পরে রাজশ্রী বলেছিলেন যে, চূড়ান্ত সম্পাদনা উপর তাঁর কোনও নিয়ন্ত্রণ ছিল না এবং এটি পুরোপুরি নির্মাতা অনিল কাপুরের দ্বারা রচিত হয়েছিল। পর্দায় যা দেখা গিয়েছিল তা একেবারেই তাঁর চিন্তা ভাবনার কাছাকাছি ছিল না।[৬]

রাজশ্রীর পরবর্তী উদ্যোগটি ছিল এক্স: পাস্ট ইজ প্রেজেন্ট চলচ্চিত্র, যেটি ৪ জন পরিচালক নিয়ে গঠিত একটি সংহিত ছবি ছিল। তিনি বিরিয়ানি নামক বিভাগটি পরিচালনা করেছিলেন, যেখানে রাধিকা আপ্টে এবং রজত কাপুর ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এর গল্পটি ছিল বিবাহ বার্ষিকীতে পৃথক হওয়া এক দম্পতি সম্পর্কে।[৭]

রাজশ্রীর চলচ্চিত্র সমূহ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]