মোঃ জাফর উদ্দীন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মোঃ জাফর উদ্দীন
জাতীয়তাবাংলাদেশী
মাতৃশিক্ষায়তনঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
আলষ্টার ইউনিভার্সিটি, যুক্তরাজ্য
ইউনিভার্সিটি অব ইস্টার্ণ ফিলিফাইনস
পরিচিতির কারণসচিব
অফিসবাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব
দাম্পত্য সঙ্গীসাদিয়া নুজহাত
সন্তানসামিয়া আফরোজ বৃষ্টি (কন্যা)
খালেক ইমতিয়াজ সুহৃদ (পুত্রে)

ড. মোঃ জাফর উদ্দীন একজন বাংলাদেশি সরকারি কর্মকর্তা যিনি ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ থেকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। পূর্বে তিনি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ পর্যন্ত যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে সচিব হিসেবে কর্মরত ছিলেন।[১] তিনি ২০০৮ সালে ফিলিপাইনের ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট থেকে ব্যবসা প্রশাসনে ডক্টরেট ডিগ্রি লাভ করেন।[২]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

জাফর উদ্দীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালইয়ের ফিনান্স বিভাগ থেকে ১৯৮৩ সালে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ব্রিটিশ যুক্তরাজ্যের আলস্টার ইউনিভার্সিটি থেকে ২০০০ সালে সরকারি আর্থিক ব্যবস্থাপনা বিষয়ে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন। ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট হতে ২০০৮ সালে ব্যবসা প্রশাসনে ডক্টরেট ডিগ্রি অর্জন করেন।[১]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

জাফরের কর্মজীবন শুরু ১৯৮৮ সালে নিরীক্ষা ও হিসাব ক্যাডারে সহকারী মহাহিসাব রক্ষক হিসেবে। এরপর ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সহসভাপতি ও বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদের সদস্য হিসেবে কাজ করন।[৩]

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয়, মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ মন্ত্রণালয়, তথ্য মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয় এবং পরিচালক পদে বাণিজ্যিক অডিট অধিদপ্তরে তিনি প্রধান হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা পদে দায়িত্ব করেন। উপসচিব, যুগ্মসচিব এবং অতিরিক্ত সচিব পদে অর্থ বিভাগেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।[১]

তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অডিট এ্যান্ড ফিন্যান্স পরিচালক পদে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ফিলিপাইনের ম্যানিলা দূতাবাসে কাউন্সেলর ও চার্জ দ্য এ্যফেয়ার্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। সিভিল সার্ভিসে যোগদানের পূর্বে তিনি বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, জনতা ব্যাংক এবং বাংলাদেশ ব্যাংকে দায়িত্ব পালন করেন। ব্র্যাকে লিয়েনে কাজ করেছেন।[১]

ড. জাফর উদ্দীন পদাধিকার বলে বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল এবং বাংলাদেশ এ্যরোমা টি কোম্পানীর সভাপতি, বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইন্সটিটিউটের সহসভাপতি, ভোক্তা অধিকার পরিষদ, বাংলাদেশ এ্যাক্রেডিটেশন বোর্ডের সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সালে তিনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে যোগদান করেন।[৪] এর আগে তিনি ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ থেকে ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ সাল পর্যন্ত যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে সচিব[৫] ও অর্থ বিভাগে অতিরিক্ত সচিব হিসেবে কর্মরত ছিলেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ড. মোঃ জাফর উদ্দীন, সচিব,বাণিজ্য মন্ত্রণালয়"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯। ২২ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারী ২০২০ 
  2. "নতুন বাণিজ্য সচিব হলেন ড. মো. জাফর উদ্দিন"আজকের পত্রিকা। ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯। ২২ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারী ২০২০ 
  3. "বাণিজ্য সচিব হলেন ড. জাফর উদ্দিন | banglatribune.com"Bangla Tribune। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২২ 
  4. "নতুন বাণিজ্য সচিব জাফর উদ্দিন | বাংলাদেশ প্রতিদিন"Bangladesh Pratidin (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২২ 
  5. রিপোর্টার, স্টাফ। "ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব হলেন জাফর উদ্দিন"DailyInqilabOnline। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২২