মহম্মদ সেলিম

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মহম্মদ সেলিম
পলিটব্যুরো সদস্য, সিপিআইএম
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৯শে এপ্রিল, ২০১৫
সাংসদ
কাজের মেয়াদ
২০১৪ – ২০১৯
পূর্বসূরীদীপা দাসমুন্সি
উত্তরসূরীদেবশ্রী চৌধুরী
সংসদীয় এলাকারায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র
সাংসদ
কাজের মেয়াদ
২০০৪ – ২০০৯
পূর্বসূরীঅজিত কুমার পাঁজা
উত্তরসূরীকেন্দ্র অব্লুপ্ত
কারিগিরী শিক্ষা ও প্রশিক্ষন,যুবকল্যান ও সংখ্যালঘু উন্নয়ন মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
১৬ই মে, ২০০১ – ১৭ই মে, ২০০৪
পূর্বসূরীসত্যসাধন চক্রবর্তী
সাংসদ, রাজ্যসভা
কাজের মেয়াদ
৩রা এপ্রিল, ১৯৯০ – ১৬ই মে, ২০০১
প্রধানমন্ত্রীবিশ্বনাথ প্রতাপ সিং
চন্দ্র শেখর
পি. ভি. নরসিমা রাও
অটল বিহারী বাজপেয়ী
এইচ. ডি. দেবেগৌড়া
আই. কে. গুজরাল
অটল বিহারী বাজপেয়ী
বিধায়ক
কাজের মেয়াদ
২০০১ – ২০০৪
পূর্বসূরীসুলতান আহমেদ
উত্তরসূরীমহম্মদ আবু সুফিয়ান
সংসদীয় এলাকাএন্টালি বিধানসভা কেন্দ্র
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম৫ই জুন, ১৯৫৭
কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ
রাজনৈতিক দলসিপিআইএম
দাম্পত্য সঙ্গীডঃ রোজিনা খাতুন
সন্তানদুই পুত্র সন্তান
প্রাক্তন শিক্ষার্থীকলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়
মৌলানা আজাদ কলেজ
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়

মহম্মদ সেলিম (৫ই জুন ১৯৫৭) একজন ভারতীয় বাঙালি রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি সিপিআই(এম) দলের একজন নেতা। মহম্মদ সেলিম ২০১৫ সালে ২১তম বিশাখাপত্তনম পার্টি কংগ্রেসে ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) দলের পলিটব্যুরো সদস্য নির্বাচিত হন।[১] তিনি ভারতের ১৬তম লোকসভায় রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন।[২] এর পূর্বে ১৪তম লোকসভায় তিনি কলকাতা উত্তর পূর্ব লোকসভা কেন্দ্র থেকে সাংসদ ছিলেন।[৩]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

মহম্মদ সেলিম মৌলানা আজাদ কলেজ থেকে দর্শন বিভাগে পড়াশোনা করেন। এখানকার পড়াশোনা শেষ করার পর তিনি স্নাতকোত্তর ডিগ্রির জন্য যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এ ভর্তি হন।

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

কলেজ জীবনেই মহম্মদ সেলিম ছাত্র রাজনীতিতে যুক্ত হয়ে পড়েন। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এ ছাত্র আন্দোলন করার সময় তিনি তার পরবর্তী রাজনৈতিক জীবনের সহকর্মী নীলোৎপল বসু এবং মানব মুখোপাধ্যায়ের সাথে পরিচিত হন।

মহম্মদ সেলিম ১৯৯১ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত দশ বছর ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) দলের যুব সংগঠন ভারতের গণতান্ত্রিক যুব ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক ছিলেন। ১৯৯০ সালেই তিনি তিনি ভারতীয় আইনসভার উচ্চকক্ষ রাজ্যসভার সদস্য নির্বাচিত হন এবং পরপর দুবার তিনি রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচিত হন। ১৯৯০ থেকে ২০০১, মোট ১১ বছর মহম্মদ সেলিম রাজ্যসভার সাংসদ ছিলেন। ২০০১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি এন্টালি বিধানসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়েন এবং ষষ্ঠ বামফ্রন্ট সরকারের মন্ত্রী হন।

২০০৪ লোকসভা নির্বাচনে মহম্মদ সেলিম কলকাতা উত্তর পূর্ব লোকসভা কেন্দ্র থকে লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হন।

২০০৯ সালে সেলিম কলকাতা উত্তর লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়ে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পরাজিত হন।

২০১৪ সালে মহম্মদ সেলিম রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়ে ষোড়শ লোকসভার সদস্য হন। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তিনি রায়গঞ্জ কেন্দ্র থেকে আবার ভোটে লড়েন এবং তৃতীয় স্থানে শেষ করেন।

২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে তিনি চণ্ডীতলা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে লড়েন এবং আবারও তৃতীয় হন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "https://www.business-standard.com/article/politics/sitaram-yechury-to-be-new-cpm-chief-115041900364_1.html"  |title= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  2. "http://loksabhaph.nic.in/Members/memberbioprofile.aspx?mpsno=4190&lastls=16"  |title= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  3. "West Bengal 22 Calcutta North East"  horizontal tab character in |শিরোনাম= at position 12 (সাহায্য)