প্রেতাত্মা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
কালীপূজার সময় চিত চিত্রিত একটি প্রেত।

প্রেতাত্মা বলতে মানুষের মৃত্যু পরবর্তী অস্তিত্ব বোঝায়। মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আত্মা দেহত্যাগ করে। জীবাত্মা অবিনশ্বর। প্রচলিত বিশ্বাস এই রকম যে কোনো কোনো আত্মা বলা হয় প্রেত হয়ে যায়। প্রেতাত্মা অশরীরী বা ভূত। তবে কখনো কখনো জীবিত মানুষের সামনে আকার ধারন করে। এটি পূরাণভিত্তিক একটি আধিভৌতিক বা অতিলৌকিক জনবিশ্বাস।

প্রেতাত্মা বলতে মৃত ব্যক্তির প্রেরিত আত্মাকে বোঝায় । অনেকে প্রেতাত্মাকে প্রেত, আত্মা, ভূত ইত্যাদিও বলেন । বলা করা হয় যে কালো জাদু ব্যবহার করে প্রেতাত্মা ডাকা যায় যা কালো জাদুকররা করেন।

সাধারণের বিশ্বাস কোনো ব্যক্তির যদি খুন বা অপমৃত্যু(যেমন: সড়ক দুর্ঘটনা, আত্মহত্যা ইত্যাদি) হয় তবে মৃত্যুর পরে তার হত্যার প্রতিশোধের জন্য প্রেতাত্মা প্রেরিত হয় । বিভিন্ন ধরনের বইপ্রবন্ধ ও রয়েছে এ সম্পর্কে । এসব বই বা গল্প কে বলা হয় ভৌতিক বই বা ভৌতিক গল্প

অনেক জাতি ও ধর্মাবলম্বিরাও প্রেতাত্মাকে বিশ্বাস করে। আবার অনেক ধর্ম বা জাতি প্রেতাত্মাকে বিশ্বাস করে না। ইসলাম ধর্মও প্রেতাত্মাকে বিশ্বাস করে না। ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের মতে মানুষের মৃত্যুর পরে তার আত্মা আর ফিরে আসে না।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]