পাথরের শিব মন্দির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
পাথরের শিব মন্দির
পাথরের শিব মন্দির.jpg
পাথরের শিব মন্দির
ধর্ম
অন্তর্ভুক্তিহিন্দু
জেলাময়মনসিংহ জেলা
উৎসবদুর্গা পূজা, শিব পূজা
প্রভুত্ববাংলাদেশ প্রত্নতত্ত্ব অধিদপ্তর
অবস্থান
অবস্থানমুক্তাগাছা উপজেলা, ময়মনসিংহ জেলা, বাংলাদেশ
দেশ বাংলাদেশ
স্থাপত্য
স্থপতিময়েজ উদ্দিন
অর্থায়নেজগৎ কিশোর আচার্য চৌধুরী
প্রতিষ্ঠার তারিখ১২৭০ সাল

পাথরের শিব মন্দির বাংলাদেশের ময়মনসিংহ জেলায় অবস্থিত প্রাচীন মন্দির ও প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন। মুক্তাগাছার আটআনীর তৎকালীন জমিদার রাজা জগৎ কিশোর আচার্য স্থাপত্য শিল্পী ময়েজ উদ্দিনকে দিয়ে মন্দিরটি নির্মাণ করিয়েছিলেন। এটি ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার মুক্তাগাছা শহরের আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ক্যাম্পের সামনে জমিদারদের স্থাপিত পাথরের মন্দিরটি অবস্থিত। মুক্তাগাছা উপজেলা মন্দিরটির দূরত্ব ১৬ কিলোমিটার।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৭২৭ সালে নবাব মুর্শিদকুলি খানের অনুগ্রহে মুক্তাগাছায় বসবাস ও জমিদারি শুরু করেন।[১] পরবর্তীতে এই এলাকায় ১৬ জন জমিদার বাস করতেন। তাই এই এলাকা ষোল হিস্যার জমিদার নামে পরিচিত ছিল।[২] সেই ১৬ জন জমিদারের একজন ছিলেন আটআনীর জমিদার রাজা জগৎ কিশোর আচার্য। তিনি ভারতের পাটনার বিখ্যাত স্থাপত্য শিল্পী ময়েজ উদ্দিনকে দিয়ে ১৮৬৩ সালে পাথরের শিবমন্দির স্থাপন করেন। জগৎ কিশোর আচার্য ময়েজ উদ্দিনকে এই মন্দির নির্মাণের জন্য প্রচুর উপঢৌকন প্রদান করেছিলেন।[৩]

বিবরণ[সম্পাদনা]

মন্দিরটি পাথর কেটে নির্মাণ করা হয়েছে। দেয়ালে রয়েছে বিভিন্ন নকশা, গম্বুজে লতাপাতার কাজ ও দৃষ্টিনন্দন খিলানের কাজ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "উপজেলার ঐতিহ্য মুক্তাগাছা উপজেলা"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০১৬ 
  2. মাহবুবুল আলম রতন (২৩ জানুয়ারি ২০১৪)। "এখনও আকর্ষিত করে পর্যটকদের মন"রাইজিংবিডি। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০১৬ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "মুক্তাগাছায় পাথরে তৈরি শিব মন্দির আজও টিকে আছে"দৈনিক ইত্তেফাক। ৩ মার্চ ২০১৪। সংগ্রহের তারিখ ১০ অক্টোবর ২০১৬ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]