নাইজেল ব্রায়ার্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
নাইজেল ব্রায়ার্স
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামনাইজেল এডউইন ব্রায়ার্স
জন্ম (1955-01-15) ১৫ জানুয়ারি ১৯৫৫ (বয়স ৬৪)
সাউথফিল্ডস, লিচেস্টার, লিচেস্টারশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম-পেস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩৮১ ৩৩৮
রানের সংখ্যা ১৮,৭২৬ ৮২১৬
ব্যাটিং গড় ৩৩.০২ ২৭.৬৬
১০০/৫০ ৩১/৯৫ ৬/৪০
সর্বোচ্চ রান ২০১* ১১৯*
বল করেছে ২০৪৭ ৮৯৬
উইকেট ৩২ ১৯
বোলিং গড় ৩০.৮৭ ৩৮.১৫
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ৪/২৯ ৩/২৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১৫২/– ৯৬/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৩ জুলাই ২০১৮

নাইজেল এডউইন ব্রায়ার্স (ইংরেজি: Nigel Briers; জন্ম: ১৫ জানুয়ারি, ১৯৫৫) লিচেস্টারশায়ারের সাউথফিল্ডস এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ও বিখ্যাত প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ ক্রিকেট তারকা। ১৯৭১ থেকে ১৯৯৫ সময়কালে ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটলিস্ট এ ক্রিকেটে লিচেস্টারশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম-পেস বোলিংয়ে দক্ষ ছিলেন নাইজেল ব্রায়ার্স

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

মাত্র ১৬ বছর বয়সে ১৯৭১ সালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে নাইজেল ব্রায়ার্সের। এরফলে তিনি লিচেস্টারশায়ারের পক্ষে সর্বকনিষ্ঠ প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটারের মর্যাদা লাভ করেন। তবে খেলোয়াড়ী জীবনের শেষদিকেই সম্মাননা লাভে সক্ষমতা দেখিয়েছেন। এ সময় ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি দলের অধিনায়কেরও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। ১৯৯০ সালে তুলনামূলকভাবে দূর্বলমানের লিচেস্টারশায়ার দলের অধিনায়ক হিসেবে ডেভিড গাওয়ারের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন। দায়িত্ব লাভের পর থেকেই বিদ্যালয়ের শিক্ষকের ন্যায় শৃঙ্খলাবোধ আনয়ণে সচেষ্ট হন ও দলের সমীহের পাত্রে পরিণত হন। ১৯৯২ সালে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে লিচেস্টারশায়ার দল মাঝামাঝি স্থানে অবস্থান করে। তবে, গ্রীষ্মের অধিকাংশ সময়ই শিরোপা লাভের অন্যতম দল হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হয়েছিল।

এছাড়াও, তার নেতৃত্বে প্রথমবারের মতো দলটি জিলেট কাপের চূড়ান্ত খেলায় পৌঁছতে সক্ষম হয়েছিল। ১৭ কাউন্টির সর্বশেষ দল হিসেবে ১৯৬৩ সালে প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশগ্রহণ করলেও এটিই প্রথম ছিল। কাউন্টি ক্রিকেটে অসামান্য ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপে ১৯৯৩ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মাননায় অভিষিক্ত হন নাইজেল ব্রায়ার্স।[১]

অবসর[সম্পাদনা]

পরবর্তী তিন মৌসুমেও তার দল বেশ ভালো খেলা প্রদর্শন করে। কিন্তু, ১৯৯৫ মৌসুমের পর তাকে অধিনায়কত্ব থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। ফলে আরও কয়েক মৌসুম ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলা চালিয়ে যাবার দিকে ঝুঁকে পড়েন। তবে, হাঁটুর আঘাতের কারণে চিকিৎসা করলেও দর্শকের সারিতে তাকে অবস্থান করতে হয়। জেমস হুইটেকার নতুন অধিনায়ক হিসেবে তার স্থলাভিষিক্ত হন ও ১৯৯৬ সালে দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়নশীপের শিরোপা লাভে সক্ষমতা দেখান। এরপর থেকে তাকে আর প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলতে দেখা যায়নি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

লাটারওয়ার্থ গ্রামার স্কুলে পড়াশোনা শেষ করে বোরা রোড কলেজে অধ্যয়ন করেন।

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর মার্লবোরা কলেজে ক্রিকেট পরিচালক ও ক্রীড় পরিচালক - উভয় দায়িত্বে ছিলেন। বর্তমানে তিনি বার্নসের সেন্ট পলস স্কুলে ক্রীড়া পরিচালক ও ক্রিকেট পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Wisden Cricketers of the Year" (English ভাষায়)। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]