তাবরিজ বাজার

স্থানাঙ্ক: ৩৮°০৪′৫১″ উত্তর ৪৬°১৭′৩২″ পূর্ব / ৩৮.০৮০৮৩° উত্তর ৪৬.২৯২২২° পূর্ব / 38.08083; 46.29222
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তাবরিজ ঐতিহাসিক বাজার কমপ্লেক্স
ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান
Mozaffariyeh, Grand Bazzar of Tabriz, IRAN.jpg
মোজাফফারিহ, তাবরিজের গ্র্যান্ড বাজার
অবস্থানতাবরিজ, ইরান
মানদণ্ডসাংস্কৃতিক: ২, ৩, ৪
সূত্র1346
তালিকাভুক্তকরণ২০১০ (৩৪তম সভা)
আয়তন28.9733 ha
নিরাপদ অঞ্চল75.4082 ha
স্থানাঙ্ক৩৮°০৪′৫১″ উত্তর ৪৬°১৭′৩২″ পূর্ব / ৩৮.০৮০৮৩° উত্তর ৪৬.২৯২২২° পূর্ব / 38.08083; 46.29222
তাবরিজ বাজার ইরান-এ অবস্থিত
তাবরিজ বাজার
ইরানে তাবরিজ বাজারের অবস্থান

তাবরিজ বাজার (ফার্সি: بازار تبریز‎‎, বাজার-ই তাবরিজ) ইরানের তাবরিজ শহরের কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত একটি ঐতিহাসিক বাজার। এটি মধ্যপ্রাচ্যের প্রাচীনতম বাজারগুলির মধ্যে একটি এবং বিশ্বের বৃহত্তম আচ্ছাদিত বাজার[১] ২০১০ সালে এটি ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানগুলির মধ্যে অন্তর্ভুক্ত হয়।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রাচীনকাল থেকেই তাবরিজ সাংস্কৃতিক বিনিময়ের স্থান হিসাবে পরিগণিত। এর ঐতিহাসিক বাজার কমপ্লেক্স রেশম পথের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক কেন্দ্র ছিল। ইসলামের অনুসরণে ইরানি নগরবাদের প্রাথমিক যুগ থেকে একই স্থানে একটি বাজার বিদ্যমান ছিল। ভেনিসীয় পর্যটক মার্কো পোলো বাজারটির উল্লেখ করেছিলেন, যিনি দাবি করেছিলেন যে রেশম পথে যাত্রা করার সময় এটির মধ্য দিয়ে গিয়েছিলেন।[৩]

ইরানের তাবরিজ শহরের কেন্দ্রে অবস্থিত, কাঠামোটি সারিগুলিতে বিভক্ত, অনেকগুলি পণ্যের বিশেষ শ্রেণীর জন্য উত্সর্গীকৃত। এর মধ্যে রয়েছে সোনা ও গহনার জন্য আমির বাজার, হাতে বোনা পাটির জন্য মোজাফরিহ, জুতার জন্য বাশমাখী বাজার, কাঁচাবাজারের জনয় কিজ বাসদি বাজার এবং রাহলি বাজার। ১৬ শতকে তাব্রিজ এবং এর বাজার সবচেয়ে সমৃদ্ধ ছিল, যখন শহরটি সাফাভিদ রাজ্যের রাজধানী শহর হয়ে ওঠে। সাফাভীয় সাম্রাজ্য। শহরটি ১৭ শতকে এই মর্যাদা হারিয়েছিল, কিন্তু বাজারটি এই অঞ্চলে এবং রেশম পথে একটি বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক কেন্দ্র হিসাবে গুরুত্বপূর্ণ থেকে গেছে।[৩] যদিও সাম্প্রতিক বছরগুলিতে অসংখ্য আধুনিক দোকান এবং মল প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, তবুও তাবরিজ বাজার শহর এবং উত্তর-পশ্চিম ইরানের অর্থনৈতিক কেন্দ্র হিসেবে এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে।[৪]

ইরানের সাংবিধানিক বিপ্লব এবং ১৯৭৯-এর ইসলামি বিপ্লবের ক্ষেত্রেও তাবরিজ বাজার রাজনৈতিক তাৎপর্যের একটি স্থান ছিল।

২০১০ সালের জুলাই মাসে বাজারটি ইউনেস্কো কর্তৃক বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছিল।[৫]

অনুষ্ঠান[সম্পাদনা]

কিছু গুরুত্বপূর্ণ ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জন্য বাজারটি ব্যবহার করা হয়। এর মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত হল আশুরার দিন যেখানে বণিকরা প্রায় ১০ দিনের জন্য ব্যবসা বন্ধ করে দেয় এবং বাজারের ভিতরে ধর্মীয় অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য বাজারের মতো, এই বাজারের পিছনে বেশকয়েকটি মসজিদ নির্মিত হয়েছে, যার মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য হল তাবরেজ জামে মসজিদ

পুনরুদ্ধার[সম্পাদনা]

২০০০ সালে, ইরানের ঐতিহাসিক হারমিটেজ সংস্থা দোকান মালিকদের সম্পূর্ণ অংশগ্রহণে বাজারের একটি পুনরুদ্ধার প্রকল্প শুরু করে। পুনর্বাসন প্রকল্পটি ২০১৩ সালে স্থাপত্যের জন্য আগা খান পুরস্কার জিতেছে।[৬]

চিত্রশালা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. মেহেদিপুর, এইচ.আর.এন; নিয়া, হোদা রশিদি (২০১৩)। "Persian Bazaar and Its Impact on Evolution of Historic Urban Cores: The Case of Isfahan" (পিডিএফ)The Macrotheme Review - a multidisciplinary journal of global macro trends (ইংরেজি ভাষায়)। অস্টিন, টেক্সাস: ম্যাক্রোথিম ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট। (৫): ১২-১৭। আইএসএসএন 1848-4735ওসিএলসি 874754491। ৬ নভেম্বর ২০২২ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২২ 
  2. "World Heritage Committee inscribes seven cultural sites on World Heritage List"। UNESCO World Heritage Centre। ৩১ জুলাই ২০১০। ৪ আগস্ট ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৬ নভেম্বর ২০২২ 
  3. আসারি, আলি; মহেশ, টি.এম.; এমতেহানি, এম.ই.; আসারি, ই. (২০১১)। "Comparative Sustainability of Bazaar in Iranian Traditional Cities: Case Studies of Isfahan and Tabriz" (পিডিএফ)International Journal on “Technical and Physical Problems of Engineering (ইংরেজি ভাষায়)। (৯): ১৮-২৪। আইএসএসএন 2077-3528। ২২ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২১ অক্টোবর ২০২২ 
  4. "East Azarbaijan Geography"Editorial Board। Iranian Ministry of Education। ২০০০। জুন ১৬, ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "Tabriz Historic Bazaar Complex"। UNESCO World Heritage Centre। ৬ জুলাই ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৩ 
  6. "Rehabilitation of Tabriz Bazaar"। Aga Khan Development Network। ৬ জুলাই ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ জুলাই ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]