ঝিন্দের বন্দী

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ঝিন্দের বন্দী
ঝিন্দের বন্দী চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
পোস্টার
পরিচালকতপন সিংহ
রচয়িতাশরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়
শ্রেষ্ঠাংশেউত্তম কুমার
রাধামোহন ভট্টাচার্য
সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়
অরুন্ধতী দেবী
তরুণ কুমার
দিলীপ রায়
সাধনা রায়
সুরকারআলী আকবর খান
মুক্তি১৯৬১
দেশভারত
ভাষাবাংলা

ঝিন্দের বন্দী চলচ্চিত্রটি তৈরি হয়েছিল শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের একই নামের উপন্যাসের কাহিনী নিয়ে । এই সিনেমার মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন উত্তম কুমার, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এবং অরুন্ধতী দেবী

শুটিং তথ্য[সম্পাদনা]

ছবির কাজ শুরু করার আগে তার নায়ককে বললেন, ‘‘তোমাকে একটু ঘোড়ায় চড়া শিখতে হবে।’’ উত্তমকুমার শুনে বললেন, ‘‘জানতাম, জানো। অনেক দিন চড়ি না, এই যা। প্র্যাকটিস করতে হবে।’’ ব্যবস্থা করে দিলেন পরিচালক। ভোর পাঁচটায় উঠে ময়দানে ঘোড়া চড়তেন তার নায়ক। একেবারে নিয়ম করে। সে যত কাজই থাকুক। তাতে ফলও মিলল হাতেনাতে। শ্যুটিং-এর সময় তাকে দেখে তপন সিংহর মনে হয়েছিল, এ নায়ক উত্তমকুমার নয়, পোড়খাওয়া কোনও এক ঘোড়-সওয়ার।

ছবির জন্য তরোয়াল খেলাও শিখতে হবে। তাতেও রাজি হলেন নায়ক। ম্যাসি টেলর বলে একজন বিদেশিকে আনলেন তপন সিংহ। অলিম্পিক বিজয়ী। চেয়ারে বসে ম্যাসির অসিচালনা দেখে দেখে তাকে হুবহু কপি করে ফেললেন নায়ক। পরিচালক তো বটেই, চমকে গিয়েছিলেন স্বয়ং ম্যাসিও।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আইএমডিবিতে ঝিন্দের বন্দী