জর্জ ডাকওয়ার্থ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জর্জ ডাকওয়ার্থ
George Duckworth card c1925.jpg
আনুমানিক ১৯২৫ সালে জর্জ ডাকওয়ার্থ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজর্জ ডাকওয়ার্থ
জন্ম(১৯০১-০৫-০৯)৯ মে ১৯০১
ওয়ারিংটন, ল্যাঙ্কাশায়ার, ইংল্যান্ড
মৃত্যু৫ জানুয়ারি ১৯৬৬(1966-01-05) (বয়স ৬৪)
ওয়ারিংটন, ল্যাঙ্কাশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনমাঝেমধ্যে ডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২১৯)
২৬ জুলাই ১৯২৪ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট১৮ আগস্ট ১৯৩৬ বনাম ভারত
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯২৩–১৯৩৮ল্যাঙ্কাশায়ার
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৪ ৫০৪
রানের সংখ্যা ২৩৪ ৪,৯৪৭
ব্যাটিং গড় ১৪.৬২ ১৪.৫৯
১০০/৫০ ০/০ ০/৬
সর্বোচ্চ রান ৩৯* ৭৫
বল করেছে ৬৮
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪৫/১৫ ৭৫৫/৩৪৩
উৎস: ক্রিকইনফো, ১২ জুলাই ২০১৮

জর্জ ডাকওয়ার্থ (ইংরেজি: George Duckworth; জন্ম: ৯ মে, ১৯০১ - মৃত্যু: ৫ জানুয়ারি, ১৯৬৬) ল্যাঙ্কাশায়ারের ওয়ারিংটন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত পেশাদার ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষকের দায়িত্ব পালন করতেন। ডানহাতে ব্যাটিং করার পাশাপাশি দলের প্রয়োজনে মাঝে-মধ্যে মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শী ছিলেন তিনি।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

উইকেট-রক্ষণে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন জর্জ ডাকওয়ার্থ। ১৯২২ সালে ল্যাঙ্কাশায়ারে যোগ দেন। ১৯২৩ সালে কাউন্টি দলটির পক্ষে প্রথম খেলায় অংশ নেন। ১৯২৮ সালে সেরা মৌসুম কাঁটে তার। ৭৭ ক্যাচ নেয়ার পাশাপাশি ৩০ স্ট্যাম্পিং নিজ নামের পাশে যুক্ত করেন।

১৯৩৮ সালে শেষ খেলায় অংশগ্রহণের পর ল্যাঙ্কাশায়ার পরিচালনা পরিষদের সদস্য হন। তিনি তার সময়কালে যে-কোন ক্রিকেটারকে সহায়তাকল্পে ঝাঁপিয়ে পড়তেন।

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ২৪ টেস্টে অংশ নিয়েছেন। তবে খেলোয়াড়ী জীবনের শেষদিকে তার তুলনায় শ্রেয়তর ব্যাটসম্যানের মর্যাদার অধিকারী লেস অ্যামিসের সাথে সরাসরি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অবতীর্ণ হতে হয়।

২৬ জুলাই, ১৯২৪ তারিখে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক ঘটে জর্জ ডাকওয়ার্থের।

অর্জনসমূহ[সম্পাদনা]

কাউন্টি ক্রিকেটে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯২৯ সালে উইজডেন কর্তৃক অন্যতম বর্ষসেরা ক্রিকেটারের সম্মাননায় ভূষিত হন তিনি।[১] ১৯৩৪ সালে আর্থিক সুবিধা গ্রহণের খেলায় ১২৫৭ পাউন্ড-স্টার্লিং লাভ করেন। ল্যাঙ্কাশায়ারে থাকাকালে ৯২৫টি ডিসমিসালে নিজেকে জড়ান যা কাউন্টি রেকর্ডরূপে বিবেচ্য।

নিজ শহর ওয়ারিংটনের চীনাবাদাম আকৃতির চত্বর তার নামে নামাঙ্কিত করা হয়। বার্চউড ওয়ে (এ৫৭৪) ও ওকউডে এর অবস্থান।

অবসর[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর নেয়ার পর ডাকওয়ার্থ সাংবাদিকতা ও ধারাভাষ্যকার হিসেবে ক্রিকেট ও রাগবি লীগের খেলায় অংশ নিতেন। এছাড়াও ক্রিকেট সফর সংগঠক এবং মেরিলেবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসি) মালামাল রক্ষণাবেক্ষণের প্রধান ও স্কোরারের দায়িত্ব পালন করতেন।

ওয়ারিংটনের রাগবি লীগের ফুটবলার জ্যাক ডাকওয়ার্থ সম্পর্কে তার ভাইপো। ৫ জানুয়ারি, ১৯৬৬ তারিখে ৬৫ বছর বয়সে ল্যাঙ্কাশায়ারের ওয়ারিংটনে দেহাবসান ঘটে জর্জ ডাকওয়ার্থের।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]