ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ
অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় (আইএমডি স্কেল)
শ্রেণী ১ (স্যাফির-সিম্পসন স্কেল)
Nisarga 2020-06-03 0800Z.jpg
গঠন১ জুন ২০২০
বিলুপ্তি৪ জুন ২০২০
সর্বোচ্চ গতি৩-মিনিট স্থিতি: ১৪০ কিমি/ঘণ্টা (৮৫ mph)
১-মিনিট স্থিতি: ১৪০ কিমি/ঘণ্টা (৮৫ mph)
Gusts: ১৬৫ কিমি/ঘণ্টা (১০৫ mph)
সর্বনিম্ন চাপ৯৭৫ hPa (mbar); ২৮.৭৯ inHg
প্রভাবিত অঞ্চলভারত,বাংলাদেশ,নেপাল
২০২০ ভারত মহাসাগরের উত্তরভাগে ঘূর্ণিঝড় মরসুমের অংশ

অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ বর্তমানে একটি সক্রিয় ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় যা ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্য এবং গুজরাটের উপকূলরেখার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। [১] নিসর্গ আরব সাগরে গভীর নিম্নচাপ হিসাবে তৈরী হয়। এটা ভারতের পশ্চিম উপকূলরেখায় আঘাত হানবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০২০ সালের ২ জুন, ভারত আবহাওয়া অধিদফতর (আইএমডি) নিসর্গকে ঘূর্ণিঝড় থেকে মারাত্মক ঘূর্ণিঝড় হিসাবে সনাক্ত করে এবং ৩ জুন ২০২০-এ মহারাষ্ট্রের উপকূলীয় শহর আলিবাগে হানা দেওয়ার মাধ্যমে স্থলভাগে আসবে বলে নিশ্চিত করে। [২]

একবিংশ শতাব্দীতে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট প্রথম সুপার ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের পরে ঘূর্ণিঝড়টি দু'সপ্তাহের ব্যবধানে ভারতীয় উপমহাদেশে আঘাত হানা ২০২০ উত্তর ভারত মহাসাগর ঘূর্ণিঝড় মৌসুমের দ্বিতীয় ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড়। [৩][৪] নিসর্গ ১৮৯১ সালের পরে মুম্বাই শহরকে প্রভাবিত করা প্রথম তীব্র ঘূর্ণিঝড়। [৫] প্রায় ১৪০ বছরে মুম্বইয়ে কোনও ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানেনি। সেই ঘূর্ণিঝড়ের নাম ছিল বম্বে সাইক্লোন। বম্বে সাইক্লোনকে গুজব বলা হয়ে থাকে কারণ সমসাময়িক সময়ে ঘূর্ণিঝড়টি সম্পর্কে কোন তথ্যের উল্লেখ পাওয়া যায় না। বম্বে সাইক্লোনে প্রায় এক লক্ষ মানুষের[৬] মৃত্যু হয়েছিল বলে দাবী করা হয়।

নামকরণ[সম্পাদনা]

স্যাফির-সিম্পসন স্কেল অনুযায়ী, মানচিত্র ঝড়টির পথ ও তীব্রতা দেখাচ্ছে

আরব সাগরবঙ্গোপসাগর তীরবর্তী রাষ্ট্রগুলো নিয়ে গঠিত ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল কাউন্সিল ফর এশিয়া অ্যান্ড প্যাসিফিক (এসক্যাপ) এর সদস্য প্যানেল সকলের সম্মতির ভিত্তিতে নতুন ঘূর্ণিঝড়ের নাম বছরের শুরুতেই নির্ধারণ করে থাকে। সে মতে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গের নামকরণ প্রস্তাব করে বাংলাদেশ[৭]

আবহাওয়ার ইতিহাস[সম্পাদনা]

২০২০ সালের ৩১ মে, দক্ষিণ পূর্ব আরব সাগরের উপর নিম্নচাপের ক্ষেত্রটি বিকাশ লাভ করে এবং ৩১ মে সন্ধ্যা অবধি একই অঞ্চল জুড়ে একটি নিম্নচাপযুক্ত অঞ্চল হিসাবে বিরাজ করে। [৮] এটি ১ জুন ভোরে পূর্ব-মধ্য এবং দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরের উপর নিম্নপচাপটি শক্তিশালী হয়ে ওঠে। তখন এটি গোয়ার প্রায় ৩৪০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, মুম্বাইয়ের ৬৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং গুজরাটের ৮৫০ কিলোমিটার দক্ষিণ-দক্ষিণ পশ্চিমে ছিল।[৯]

Infrared satellite animation of Nisarga intensifying.
নিসর্গের স্যাটেলাইট অ্যানিমেশন ২ জুন তীব্রতর হচ্ছে।

২ জুন, দুপুরের দিকে, বিস্তীর্ণ গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় তীব্রতায় তীব্র হয়ে ওঠে যার ফলে ঘূর্নিঝড়ের নামকরণের নীতি অনুযায়ী ঝড়টিকে নিসর্গ নাম দেউয়া হয়। একই রাত্রে ঘূর্ণিঝড়টি তীব্র ঘূর্ণিঝড়ের আরও তীব্র হয়ে উঠবে বলে ধারণা করা হয়েছিল। [১০]

প্রস্তুতি[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

নিসর্গের প্রথম পূর্বাভাস এটি মহারাষ্ট্র এবং গুজরাটের উপকূলরেখায় আঘাত হানার মাধ্যমে স্থলভাগে প্রবেশ করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০২০ সালের ১ জুন পর্যন্ত উভয় রাজ্য প্রাক-ঘূর্ণিঝড় সতর্কতায় ছিল। ১ জুন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ, জাতীয় দুর্যোগ প্রতিক্রিয়া বাহিনী (এনডিআরএফ), ভারত আবহাওয়া অধিদফতর এবং ভারতীয় উপকূলরক্ষী কর্মকর্তাদের সাথে প্রাথমিক পর্যালোচনা সভা করে। [১১] একই দিন, এনডিআরএফের ৩৩ টি দলকে উভয় রাজ্যের উপকূলীয় অঞ্চলে মোতায়েন করা হয়। [১২] মহারাষ্ট্রের জেলেদের সমুদ্র থেকে ফিরে আসতে সতর্ক করা হয়। [১৩] ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২০২০ সালের ২ জুন একটি টুইটারের মাধ্যমে জানান যে তিনি মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী, গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী এবং দাদ্রা ও নগর হাভেলি ও দমন ও দিউ প্রশাসকের সাথে কথা বলেছেন এবং ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে সমস্ত সম্ভাব্য সমর্থন ও সহায়তার আশ্বাস দেন। [১৪]

প্রভাব ও ক্ষয়ক্ষতি[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

নিসর্গের প্রভাবে বাংলাদেশে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Meenakshi Ray (২ জুন ২০২০)। "Cyclone Nisarga: How was the cyclonic storm set to hit Maharashtra, Gujarat named"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  2. Amit Chaturvedi (২ জুন ২০২০)। "How dangerous is Cyclone Nisarga? IMD issues red alert, low-lying areas to be evacuated"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  3. "Cyclone Nisarga is all set to hit the country's western coast"Caringly Yours (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৬-০২। ২০২০-০৬-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-০২ 
  4. "Cyclone Nisarga live updates: Cyclone Nisarga live updates: Nisarga cyclone to intensify; Mumbai, Maharashtra, Gujarat on alert"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-০২ 
  5. Soutik Biswas (২ জুন ২০২০)। "Mumbai bracing for the 'first cyclone in years'"আনন্দ বাজার। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  6. সংস্থা, সংবাদ। "১৩৮ বছর পর ঢুকছে 'নিসর্গ'! সাইক্লোন কেন বিরল মুম্বইয়ে"anandabazar.com। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুন ২০২০ 
  7. "কীভাবে নামকরণ হয়েছে নিসর্গের? পরের ঘূর্ণিঝড়গুলির নাম কী? জেনে নিন"https://bangla.hindustantimes.com। ৩ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুন ২০২০  |কর্ম= এ বহিঃসংযোগ দেয়া (সাহায্য)
  8. Amit Chaturvedi (২ জুন ২০২০)। "Deep depression in Arabian Sea intensifies into cyclonic storm, IMD officially declares it Cyclone Nisarga"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। 
  9. "IMD press release 01-06-2020" (PDF) 
  10. "cyclone nisarga: Deep depression in Arabian Sea intensifies into cyclone: IMD DG"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। Press Trust of India। ২ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  11. "Home Minister Amit Shah holds meeting to review preparations to deal with Cyclone Nisarga"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ১ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  12. "nisarga cyclone: 33 teams deployed in Maharashtra, Gujarat in view of 'Nisarga'"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ২ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  13. "Mumbai, adjoining districts put on alert in view of cyclone Nisarga"The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 
  14. "Cyclone Nisarga: PM Modi Reviews Situation On Western Coast"NDTV.com। Press Trust of India। ২ জুন ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ২ জুন ২০২০ 

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]