ঘূর্ণিঝড় ইয়াস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড় ইয়াস
অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় (আইএমডি স্কেল)
শ্রেণী ১ (স্যাফির-সিম্পসন স্কেল)
Yaas 2021-05-26 0500Z.jpg
ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ২৬শে মে ওড়িশার উপকূলে পতিত হওয়ার কিছু সময় আগে সর্বোচ্চ তীব্রতার কাছাকাছি পৌঁছায়
গঠন২০:৩০ ভাপ্রস, ২৩ মে, ২০২১
বিলুপ্তি২৮ মে, ২০২১
সর্বোচ্চ গতি৩-মিনিট স্থিতি: ১৩০ কিমি/ঘণ্টা (৮০ mph)
১-মিনিট স্থিতি: ১২০ কিমি/ঘণ্টা (৭৫ mph)
Gusts: ১৫০ কিমি/ঘণ্টা (৯০ mph)
সর্বনিম্ন চাপ৯৭৪ hPa (mbar); ২৮.৭৬ inHg
হতাহত
ক্ষয়ক্ষতিঅজানা
প্রভাবিত অঞ্চলভারত (আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ, পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা), বাংলাদেশ
২০২১ সালের উত্তর ভারত মহাসাগরের ঘূর্ণিঝড় মৌসুম অংশ

অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় ইয়াস [ক] ২০২১ সালের মে মাসের শেষ দিকে বঙ্গোপসাগরে উৎপন্ন একটি শক্তিশালী ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় ছিল।[১] এটি ২০২১ সালের উত্তর ভারত মহাসাগরের ঘূর্ণিঝড় মৌসুম তৃতীয় নিম্নচাপ, দ্বিতীয় গভীর নিম্নচাপ, দ্বিতীয় ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় এবং দ্বিতীয় অতি তীব্র ঘূর্ণিঝড় ছিল। ঘূর্ণিঝড় ইয়াস একটি ক্রান্তীয় নিম্নচাপ থেকে সৃষ্টি হয়েছিল, যা ২৩ মে ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ প্রথম পর্যবেক্ষণ করে।

ঝড়ের প্রস্তুতি নিতে, অনেক বৈদ্যুতিক সংস্থা সম্ভাব্য বৈদ্যুতিক সমস্যা মোকাবেলার জন্য অতিরিক্ত জেনারেটর ও ট্রান্সফর্মার প্রস্তুত করে। ২৪ মে, ভারতের পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুরঝাড়গ্রামের নিম্ন-অঞ্চলগুলি থেকে লোকজন সরিয়ে নিতে আদেশ দেওয়া হয়। এখন হুগলি, কলকাতায়, উত্তর ২৪ পরগনাদক্ষিণ চব্বিশ পরগনায় উচ্চ সতর্কতা ঘোষণা করা হয়েছে।[২]

আবহাওয়া সংক্রান্ত ইতিহাস[সম্পাদনা]

স্যাফির-সিম্পসন স্কেল অনুযায়ী, মানচিত্র ঝড়টির পথ ও তীব্রতা দেখাচ্ছে

পূর্ব বঙ্গোপসাগরে ২২ মে নিম্নচাপ অঞ্চল গঠিত হয়। যা পরবর্তীতে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। পরের দিন, সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে (ইউটিসি), এই নিম্নচাপটি তীব্র নিন্মচাপ হয়ে ওঠে এবং ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তর (আইএমডি) কর্তৃক বিওবি ০২ নামটি প্রদান করা হয়।[৩] এদিকে, জেটিডাব্লুসি ২২শে মে ১৫:০০ ইউটিসি-তে একীকরণ ব্যবস্থার দ্বারা একটি ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় গঠনের সতর্কতা জারি করে।[৪] পরবর্তীকালে ২৩শে মে ১৫:০০ ইউটিসি-তে ব্যবস্থারটি তীব্রভাবে গভীর নিন্মচাপে পরিণত হয়।[৫] পরের দিন, ০২:৩০ ইউটিসি-তে ব্যবস্থারটি আরও তীব্র ঘূর্ণিঝড় হয়ে ওঠে এবং আইএমডি দ্বারা ইয়াস নামকরণ করা হয়।[৬][৭] সেই সময়, মাঝারি বায়ু বৈষম্য কারণে ব্যবস্থার নিম্ন-স্তরের সঞ্চালন কেন্দ্র আংশিকভাবে উন্মুক্ত হয়ে যায়; তবে, প্রচুর পরিমাণে রেইনব্যান্ডসমূহ ঝড়ের দক্ষিণাঞ্চলে স্থির ছিল, কারণ উক্ত অঞ্চলে উষ্ণ সমুদ্রের পৃষ্ঠের তাপমাত্রা ও ভাল বহিঃপ্রবাহ সহ ঝড়টি তীব্রতর হওয়ার জন্য সামান্য অনুকূল পরিবেশে ছিল।[৮][৯]

পর্যবেক্ষণ এবং সতর্কীকরণ[সম্পাদনা]

ক্রান্তীয় ঝড় সতর্কবাণী
৩৬ ঘন্টাের মধ্যে প্রত্যাশিত গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঝড় পরিস্থিতি।

প্রস্তুতি ও প্রভাব[সম্পাদনা]

ভারত[সম্পাদনা]

কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রক বিদ্যুত পরিষেবা পুনরুদ্ধারের জন্য ট্রান্সফর্মার ও জেনারেটরের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকও ভ্যাকসিন পরিপূরক ও কোভিড-১৯ চিকিত্সায় যাতে কোনও ভাবে বাধাগ্রস্ত না হয়, তা নিশ্চিত করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। টেলিযোগাযোগ মন্ত্রকও সকল টেলিকম টাওয়ার ও এক্সচেঞ্জকে নজরদারীতে রেখেছে।[১০] ঘূর্ণিঝড়টির জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও প্রস্তুতি নিতে জরুরি বৈঠকের ব্যবস্থা করেন।[১১]

এনডিআরএফ ৬৫ টি দল মোতায়েন করেছে, এছাড়া আরও ২০ টি রিজার্ভ দল রয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী, নৌবাহিনীউপকূলরক্ষী বাহিনীর উদ্ধার ও ত্রাণ দলসমূহ পশ্চিমবঙ্গওড়িশার উপকূলীয় জেলাসমূহে মোতায়েন করা হয়েছে।[১২]

অধিকন্তু, উত্তর রেল নতুন দিল্লি থেকে ভুবনেশ্বর ও পুরীগামী অনেক ট্রেন বাতিল করেছে।[১৩] ইতোমধ্যে, পশ্চিম রেলদক্ষিণ রেল ওড়িশাগামী ও ওড়িশা থেকে যাত্রা শুরুকারী ট্রেনসমূহ বাতিল করেছে।[১৪][১৫]

পশ্চিমবঙ্গে ২৫শে মে একটি টর্নেডো ব্যান্ডেল শহরকে অতিক্রম করে এবং দু'জনের মৃত্যু ঘটে।[১৬] মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি অনুসারে ৪০ টিরও বেশি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়।[১৭]

বাংলাদেশ[সম্পাদনা]

জরুরি প্রতিক্রিয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ১১৪ টি মেডিকেল দল মোতায়েন করা হয়। ৩৪৯ টি আশ্রয়কেন্দ্র স্থাপন করা হয় এবং কোভিড-১৯-এর স্বাস্থ্য বিধিনিষেধ বজায় রাখার জন্য আশ্রয়কেন্দ্রসমূহে জনগণের ধরনের সক্ষমতা অর্ধেককে সমন্বিত করা হয়।[১৮]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. আরবি "ইয়াস" শব্দটির অর্থ হতাশা। একই শব্দের ফার্সি অর্থ বেলীফুলের গাছ। ঘূর্ণিঝড়টি শুরু হওয়ার প্রথমদিকে কিছু গণমাধ্যম একে সংস্কৃত নাম ভেবে ভুল করেছিল এবং "ইয়াস" নামটির বদলে "ঘূর্ণিঝড় যশ" লিখে সংবাদে প্রচার করেছিল।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আমপানের এক বছরের মাথায় রাজ্যে ফের ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কা, জারি কেন্দ্রীয় সতর্কতা"। www.anandabazar.com। আনন্দবাজার পত্রিকা। ২০ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০২১ 
  2. "LIVE: Cyclone Yaas to intensify into very severe cyclonic storm in 24 hrs"www.business-standard.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  3. "Special Tropical Cyclone Bulletin for Depression BOB 02 No. 1" (PDF)IMD। ২০২১-০৫-২৩। ২০২১-০৫-২৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৩ 
  4. "Tropical Cyclone Formation Alert for Invest 93B"JTWC। ২০২১-০৫-২৩। ২০২১-০৫-২৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  5. "Special Tropical Cyclone Outlook for Deep Depression BOB 02" (PDF)mausam.imd.gov.in। ২০২১-০৫-২৪। ২০২১-০৫-২৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৪ 
  6. "National Bulletin for Cyclonic Storm Yaas" (PDF)IMD। ২০২১-০৫-২৪। ২০২১-০৫-২৪ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৪ 
  7. "আগামী সপ্তাহেই আসছে ঘূর্ণিঝড়! অভিমুখ বাংলার দিকেই"। eisamay.indiatimes.com। ১৯ মে ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২০ মে ২০২১ 
  8. "Tropical Cyclone 02B (Yaas) Warning NR 002"Joint Typhoon Warning Center। মে ২৪, ২০২১। মে ২৪, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৪, ২০২১ 
  9. "Tropical Cyclone 02B (Yaas) Warning NR 004"Joint Typhoon Warning Center। মে ২৫, ২০২১। মে ২৫, ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মে ২৫, ২০২১ 
  10. "West Bengal: Telcos ready with Cyclone Yaas measures | Kolkata News - Times of India"The Times of India (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  11. Writer, Staff (২০২১-০৫-২৩)। "With cyclone approaching, Centre helps Odisha, West Bengal brace for Yaas"mint (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  12. "Cyclone Yaas LIVE Updates: PM Modi Holds Meeting to Review Preparedness; 18 NDRF Teams on Alert"www.news18.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৩ 
  13. "Ensure timely evacuation, minimise time of outages of power: PM Narendra Modi directs officials during Cyclone Yaas review meeting"Zee News (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  14. "Cyclone Yaas: Western Railway Cancels 7 Trains on Odisha, Gujarat and Rajasthan Routes; Details Here"www.news18.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  15. Hardaha, Rashi (২০২১-০৫-২২)। "Cyclone Yaas: Railways cancel several trains. Check full list"www.indiatvnews.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  16. "Cyclone Yaas Live: 2 electrocuted in WB during tornado; no possibility of 'Amphan-like situation'"Deccan Herald (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  17. "LIVE: 2 electrocuted in tornado in Bengal ahead of Cyclone Yaas, says CM Mamata"Hindustan Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫ 
  18. "Khulna preparing for Cyclone Yaas"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২১-০৫-২৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৫