খোকা ৪২০

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
খোকা ৪২০
খোকা ৪২০ চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
খোকা ৪২০ থিয়েটারের পোস্টার
পরিচালকরাজিব বিশ্বাস
প্রযোজকঅশোক ধানুকা
এসকে মুভিজ
রচয়িতাশায়াক গাঙ্গুলী
কাহিনীকারপেলে
শ্রেষ্ঠাংশেদেব
নুসরাত জাহান
শুভশ্রী গাঙ্গুলী
সুরকারঋষি চন্দ
স্যাভি গুপ্ত
শ্রী প্রীতম
সৃজিত
চিত্রগ্রাহকসৃষা রায়
সম্পাদকমোহাম্মদ কালাম খান, সৈকত সেনগুপ্ত
পরিবেশকএসকে মুভিজ
মুক্তি
  • ১৪ জুন ২০১৩ (2013-06-14)
দৈর্ঘ্য১৬৬ মিনিট
দেশভারত
ভাষাবাংলা
আয়৮কোটি

খোকা ৪২০ একটি ২০১৩ সালের বাংলা চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রের নাম অভিনেতা দেবের খোকাবাবু চলচ্চিত্রের গান খোকা ৪২০ থেকে নেয়া হয়েছে। এতে অভিনয় করেছেনঃ দেব, শুভশ্রী গাঙ্গুলী, নুসরাত জাহান, রজতাভ দত্ত, তাপস পাল প্রমুখ ব্যক্তি। এটি তেলেগু চলচ্চিত্র বৃন্দাবনম-এর কাহিনী থেকে নেয়া হয়েছে। খোকাবাবু চলচ্চিত্রের পরের এই চলচ্চিত্রটি পুরোপুরি রিমেক নয়। কারণ কেবল নাম আর নায়কের নাম ছাড়া কাহিনীগত কোনই মিল নেই।[১] এই চলচ্চিত্রটি পশ্চিম বাংলায় বিশেষত গ্রামেই বিখ্যাত হয়।[২]

কাহিনী[সম্পাদনা]

এই চলচ্চিত্রের মুখ্য নায়ক কৃষ (দেব) এবং অভিনেত্রী ভূমি (শুভশ্রী গাঙ্গুলী)।[৩] কৃশ ধনাঢ্য ব্যক্তির সন্তান। সে মেঘাকে (নুসরাত জাহান) ভালবাসে। এ পর্যায়ে মেঘার সাথে পরিচয় হয় ভূমির। তারা দুইজনে বন্ধু হয়। ভূমি মেঘাকে তার সমস্যার কথা বলে যে তার এক কাকাতো ভাই তাকে বিয়ে করতে চায়, পরিবারও তাই চায়, কিন্তু সে চায় না। তাই মেঘা তাকে সাহায্য করার জন্য কৃষকে ভূমির প্রেমিক হিসেবে পাঠায়। কৃষ প্রথমে রাজি না হলেও পরে জোরাজুরি করায় রাজি হয়। কাহিনীর এক পর্যায়ে কৃষ সত্যি সত্যিই ভূমিকে ভালবেসে ফেলে। ভূমিও তাকে ভালবাসে। এদিকে পরে জানা যায় ভূমিমেঘার বাবা পরস্পরের সৎ ভাই ও শত্রু।[৪] কৃষ তাদেরকে এক করে দেয়। এদিকে মেঘাও বুঝতে পারে কৃষ তার কাছ থেকে দূরে সরে গেছে। কাহিনী নতুন মোড় নেয় যখন হারাধন বন্দ্যোপাধ্যায় মারা যায় এবং এখানেই এটি তেলেগু চলচ্চিত্র বৃন্দাবনম থেকে পৃথক হয়ে যায়।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

সংগীত[সম্পাদনা]

খোকা ৪২০
চিত্র:Khoka 420 Movie Poster.jpg
স্যাভি গুপ্ত, ঋষি চন্দ, শ্রী প্রীতম, সৃজিত কর্তৃক চলচ্চিত্রের গান
মুক্তির তারিখমে ২০১৩ (2013-05)
শব্দধারণের সময়২০১৩
ঘরানাচলচ্চিত্রের গান
দৈর্ঘ্য৩৪:৫০ মিনিট
সঙ্গীত প্রকাশনীএসকে মুভিজ (ধুম মিউজিক)
প্রযোজকঅশোক ধানুকা

স্যাভি গুপ্তঋষি চন্দ এই চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করেন। তবে ৪ সুরকারকে এই সংগীত দেয়া হয়। তারা নিজেদের মত সুরারোপ করেন এবং সবচেয়ে ভালটাই বেছে নেয়া হয়।[৫] খোকা ৪২০ সর্বমোট ৫১ কোটি টাকা আয় করে পাগলু ২কেও হারিয়ে দেয়।

গানের নাম গায়ক রেটিং হিট
০১. ম্যাড আই অ্যাম ম্যাড মিকা সিংসাবেরী ভট্টাচার্য ৮.০ হ্যাঁ
০২. সলিড কেস খেয়েছি বাপ্পী লাহিড়ীপূর্ণিমা শ্রেষ্ঠা ৮.০ হ্যাঁ
০৩. বিন তেরে তেরে বিন জুবিন গার্গ ৯.৫ হ্যাঁ (সবথেকে জনপ্রিয় গান)
০৪. গভীর জলের ফিশ (টাইটেল ট্র্যাক) অভিজিৎআকৃতি কক্কর ৮.০ হ্যাঁ
০৫. ও বন্ধু আমার শানমহালক্ষী আইয়ের ৮.৬ হ্যাঁ
০৬. জয় গোবিন্দা জয় গোপালা অভিজিৎমহালক্ষী আইয়ের ৮.৫ হ্যাঁ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিল্মের নতুন ল্যাজ"Anandabazar Patrika। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১৩ 
  2. "ফের দেখাল খোকা"Anandabazar Patrika। সংগ্রহের তারিখ ২১ নভেম্বর ২০১২ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. Biswas, Jaya (১৬ জুন ২০১৩)। "Khoka 420 movie review"Times of IndiaThe Times Group। সংগ্রহের তারিখ ২৯ আগস্ট ২০১৩ 
  4. "খোকা ৪২০'-এর এই দৃশ্যের শুটিং"Anandabazar Patrika। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুন ২০১৩ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  5. http://articles.timesofindia.indiatimes.com/2013-05-27/news-interviews/39556186_1_rishi-srijit-film

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]