কোরিয়া রাজ্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কোরিয়া রাজ্য
कोरिया
ব্রিটিশ ভারত দেশীয় রাজ্য
খ্রিস্টীয় ষোড়শ শতাব্দী–১৯৪৮
পতাকা
KoreaKart.jpg
ইম্পেরিয়াল গেজেটিয়ার অব ইন্ডিয়া থেকে প্রাপ্ত কোরিয়া রাজ্যের মানচিত্র
রাজধানীসোনহাট
আয়তন 
• ১৯৪১
৪,২২৪ বর্গকিলোমিটার (১,৬৩১ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা 
• ১৯৪১
১,২৬,৮৭৪
ইতিহাস 
• প্রতিষ্ঠিত
খ্রিস্টীয় ষোড়শ শতাব্দী
১৯৪৮
উত্তরসূরী
ভারত
বর্তমানে যার অংশকোরিয়া জেলা, ছত্তিশগড়
কলম্বিয়া-লিপিনকট গেজেটিয়ার. (নিউ ইয়র্ক: কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস, ১৯৫২) পৃ. ৩৬৯
১৯৩২ খ্রিস্টাব্দে নির্মীত থ্রাপ এণ্ড ম্যাবার্লি কোম্পানির তৈরী রাজা রামানুজ প্রতাপ সিংহদেওয়ের ল্যাণ্ডউলেট মোড়কযুক্ত হাম্বার স্নাইপ গাড়ী

কোরিয়া রাজ্য, ছিলো ব্রিটিশ শাসিত ভারতে অবস্থিত একটি দেশীয় রাজ্য, যা বর্তমানে ভারতের অন্তর্গত৷[১] ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে ভারতের স্বাধীনতালাভের পর কোরিয়া রাজ্যের শাসক ১লা জানুয়ারি ১৯৪৮ খ্রিস্টাব্দে এটিকে ভারতীয় অধিরাজ্যের অন্তর্ভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিলে এটিকে স্বাধীন ভারতের মধ্য প্রদেশ ও বেরার প্রদেশের সরগুজা জেলার অন্তর্ভুক্ত করা হয়। [২] ১৯৫৬ খ্রিষ্টাব্দে রাজ্য পুনর্গঠন আইন বলবৎ হলে এটি মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের অন্তর্গত হয়। ২০০০ খ্রিস্টাব্দের নভেম্বর মাসে কোরিয়া এবং চঙ্গভাকর রাজ্যদুটি একত্রে নবগঠিত ছত্তিশগড় রাজ্যের কোরিয়া জেলায় পরিণত হয়।

অবস্থান[সম্পাদনা]

চারশ গ্রাম সংবলিত কোরিয়া রাজ্যটি বর্তমানে ছত্তিশগড় রাজ্যে রয়েছে৷ এটির উত্তর এবং দক্ষিণ-পশ্চিম দিক রয়েছে রেওয়া রাজ্য; পূর্ব দিকে রয়েছে সরগুজা রাজ্য; দক্ষিণে রয়েছে ব্রিটিশ ভারতের মধ্য প্রদেশের বিলাসপুর জেলা এবং পশ্চিমে রয়েছে চঙ্গভাকর রাজ্য৷

ইতিহাস[সম্পাদনা]

খ্রিস্টীয় সপ্তদশ শতাব্দীতে কোরিয়া রাজ্যটি স্থাপিত হয়। কোরিয়ার রাজপরিবার ছিলেন বলেন্দু রাজবংশীয় রাজপুত। জনশ্রুতি রয়েছে তারা খ্রিস্টীয় ত্রয়োদশ শতাব্দীতে কোরিয়া অঞ্চলে আসেন এবং দেশটি দখল করেন। মারাঠা আক্রমণের পূর্বে এই রাজ্যটি সম্পূর্ণ স্বাধীন ছিল এবং কখনো কোন রাজ্যের সামন্ত পদ গ্রহণ করা অথবা অন্য কোন রাজ্যে অধিগ্রহণের ইতিহাস খুঁজে পাওয়া যায় না। তারা কোন প্রকার করও বহির্দেশীয়দের দিতেন না। ১৭৯০ খ্রিস্টাব্দের পর তাদের এই অবস্থার পরিবর্তন ঘটে এবং তারা বাধ্য হয়ে মারাঠাদের কর দেওয়া শুরু করে।

ঐতিহাসিকভাবে কোরিয়া রাজ্যের সাথে পার্শ্ববর্তী সরগুজা রাজ্যের কিছু পারস্পরিক সামন্ততান্ত্রিকতা থাকলেও ১৮১৮ খ্রিস্টাব্দে নাগপুরের ভোঁসলে রাজাদের থেকে এই অঞ্চল ব্রিটিশ অধীনস্থ হওয়ার পর তারা সমস্ত দাবি নস্যাৎ করে দেন। ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দের ২৪শে ডিসেম্বর রাজ্যটির ব্রিটিশ করদ রাজ্যে পরিণত হয়। ১৮৯৭ খ্রিস্টাব্দ নাগাদ রাজাদের সরাসরি উত্তরসূরীর অভাব ঘটলে তারপর থেকে সমস্ত রাজাই ব্রিটিশ আনুগত্য গ্রহণ করেন৷ [৩]

১৮৯১ খ্রিস্টাব্দে ব্রিটিশ রাজ বৃহত্তর সরগুজা অঞ্চলে পাঁচটি দেশীয় রাজ্য কে সনদ গঠন করে করদ রাজ্যে পরিণত করার চিন্তাভাবনা শুরু করে। সরগুজা অঞ্চলে অবস্থিত এই পাঁচটি দেশীয় রাজ্য ছিল সরগুজা, উদয়পুর, জশপুর, কোরিয়া এবং চঙ্গভাকর রাজ্য। এগুলো ছাড়াও ১৮৯৯ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত সনদ অনুসারে ছোটনাগপুর রাজ্য সমষ্টি বা সামন্ত সনদ হিসেবে পরিচিত অঞ্চলের একাধিক রাজ্য তথা বনাই, গঙ্গাপুর, সরাইকেল্লা এবং খরসোয়াঁ রাজ্যকেও করদ বলে ঘোষণা করার সাথে সাথে তাদের সাথে ব্রিটিশ কোম্পানির সমস্ত ধরনের বোঝাপড়া নির্ধারিত করা হয়। [৪]

শাসকবর্গ[সম্পাদনা]

কোরিয়া দেশীয় রাজ্যের শাসনগণ রাজা উপাধিতে ভূষিত হলেও ১৮১৯ খ্রিস্টাব্দে এটি ব্রিটিশ মান্যতা পায়। [৫]

রাজা[সম্পাদনা]

  • .... - .... জিৎ রায় দেও
  • .... - .... সাগর সহী দেও
  • .... - .... আফহার সহী দেও
  • .... - .... জাহান সহী দেও
  • .... - .... সবাল সহী দেও
  • .... - ১৭৯৫ গজরাজ সিংহদেও
  • ১৭৯৫ - জুন ১৮২৮ ঘরীর সিংহদেও
  • জুন ১৮২৮ - ৪ এপ্রিল ১৮৬৪ অমল সিংহদেও
  • ৪ এপ্রিল ১৮৬৪ - ১৮৯৭ প্রাণ সিংহদেও
  • ১৮৯৭ - ১৮ নভেম্বর ১৯০৯ শিবমঙ্গল সিংহ দেও
  • ১৮ নভেম্বর ১৯০৯ – জানুয়ারি ১৯২৫ রামানুজ প্রতাপ সিংহ দেও
  • জানুয়ারি ১৯২৫ - ১৫ আগস্ট ১৯৪৭ .. অভয় সিংহ বলেন্দু

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Korea (Princely State)
  2. https://www.abhilekh-patal.in/jspui/handle/123456789/1444131?searchWord=Instrument&backquery=%5Bquery=Instrument%20of%20accession&rpp=20&sort_by=dc.date.accessioned_dt&order=desc&#x5D
  3. ड़ा.संजय अलंग-छत्तीसगढ़ की जनजातियाँ/Tribes और जातियाँ/Castes (मानसी पब्लीकेशन, दिल्ली) আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৮৯৫৫৯-৩২-৮
  4. ड़ा.संजय अलंग-छत्तीसगढ़ की रियासतें और जमीन्दारियाँ (वैभव प्रकाशन, रायपुर) আইএসবিএন ৮১-৮৯২৪৪-৯৬-৫
  5. Princely States of India