বিষয়বস্তুতে চলুন

কুর্দিস্তান অঞ্চল জাতীয় ফুটবল দল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কুর্দিস্তান অঞ্চল
দলের লোগো
ডাকনামত্রিরং
অ্যাসোসিয়েশনকুর্দিস্তান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন
কনফেডারেশনকনিফা
প্রধান কোচখাসরো গ্রুন
সর্বাধিক ম্যাচহায়দার ঘারামান
মাঠবিভিন্ন
ওয়েবসাইটkurdistan-fa.net
প্রথম জার্সি
দ্বিতীয় জার্সি
ফিফা র‌্যাঙ্কিং
বর্তমাননেই (২১ ডিসেম্বর ২০২৩)[১]
এলো র‌্যাঙ্কিং
বর্তমান ৯৮ হ্রাস ২ (১২ জানুয়ারি ২০২৪)[২]
সর্বোচ্চ৯৮ (ডিসেম্বর ২০২০)
সর্বনিম্ন১০৮ (জুন ২০১২)
প্রথম আন্তর্জাতিক খেলা
 কুর্দিস্তান অঞ্চল ২–২ সাপমি 
(সুইডেন; ৭ জুলাই ২০০৮)
বৃহত্তম জয়
 তামিল ঈলম ০–৯ কুর্দিস্তান অঞ্চল 
(সুইডেন; ১ জুন ২০১৪)
বৃহত্তম পরাজয়
 সাপমি ৩–১ কুর্দিস্তান অঞ্চল 
(সুইডেন; ১৩ জুলাই ২০০৮)
ভিভা বিশ্বকাপ
অংশগ্রহণ৩ (২০০৮-এ প্রথম)
সেরা সাফল্যচ্যাম্পিয়ন (২০১২)

কুর্দিস্তান অঞ্চল জাতীয় ফুটবল দল (আরবি: منتخب كردستان العراق الوطني لكرة القدم, কুর্দি: Helbijardey Topî pêy Kurdistan ;ھەڵبژاردەی تۆپی پێی كوردستان) হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুটবলে কুর্দিস্তান অঞ্চলের প্রতিনিধিত্বকারী পুরুষদের জাতীয় দল, যার সকল কার্যক্রম কুর্দিস্তান অঞ্চলের ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা কুর্দিস্তান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। এই দলটি এপর্যন্ত ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার এবং তাদের আঞ্চলিক সংস্থা এএফসির সদস্যপদ লাভ করতে পারেনি। ২০০৮ সালের ৭ই জুলাই তারিখে, কুর্দিস্তান অঞ্চল প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক খেলায় অংশগ্রহণ করেছে; সুইডেনে অনুষ্ঠিত কুর্দিস্তান অঞ্চল এবং সাপমির মধ্যকার উক্ত ম্যাচটি ২–২ গোলে ড্র করেছে।

ত্রিরং নামে পরিচিত এই দলটি বেশ কয়েকটি স্টেডিয়ামে তাদের হোম ম্যাচগুলো আয়োজন করে থাকে। এই দলের প্রধান কার্যালয় কুর্দিস্তান অঞ্চলের আর্বিলে অবস্থিত। বর্তমানে এই দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করছেন খাসরো গ্রুন

ফিফা এবং এএফসির সদস্যপদ না থাকার ফলে কুর্দিস্তান অঞ্চল এপর্যন্ত একবারও ফিফা বিশ্বকাপ এবং এএফসি এশিয়ান কাপে অংশগ্রহণ করতে পারেনি। ফিফা বহির্ভূত ফুটবল দলের অংশগ্রহণে আয়োজিত কনিফা বিশ্ব ফুটবল কাপে কুর্দিস্তান অঞ্চল এপর্যন্ত ২ বার অংশগ্রহণ করেছে, যার মধ্যে সেরা সাফল্য হচ্ছে ২০১৪ কনিফা বিশ্ব ফুটবল কাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে পৌঁছানো, এল্লান ভান্নিনের সাথে উক্ত ম্যাচটি পূর্ণ সময় শেষ হওয়ার পর ১–১ গোলে ড্র হওয়ার পর পেনাল্টি শুট-আউটে ৪–২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত হয়েছে। এছাড়াও, কুর্দিস্তান অঞ্চল ২০১২ ভিভা বিশ্বকাপের শিরোপা জয়লাভ করেছে।

র‌্যাঙ্কিং[সম্পাদনা]

ফিফার সদস্যপদ না থাকার ফলে ফিফা বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ে কুর্দিস্তান অঞ্চলের কোন স্থান নেই। অন্যদিকে, বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে কুর্দিস্তান অঞ্চলের সর্বোচ্চ অবস্থান হচ্ছে ৯৮তম (যা তারা ২০২০ সালে অর্জন করেছিল) এবং সর্বনিম্ন অবস্থান হচ্ছে ১০৮। নিম্নে বর্তমানে বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিংয়ে অবস্থান উল্লেখ করা হলো:

বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং
১২ জানুয়ারি ২০২৪ অনুযায়ী বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং[২]
অবস্থান পরিবর্তন দল পয়েন্ট
৯৬ বৃদ্ধি ২৬  ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ১৪৩২
৯৭ হ্রাস ১২  চীন ১৪৩১
৯৮ হ্রাস  কুর্দিস্তান অঞ্চল ১৪২৫
৯৯ হ্রাস ২৫  বাহরাইন ১৪২৪
১০০ বৃদ্ধি  সিরিয়া ১৪১৭

প্রতিযোগিতামূলক তথ্য[সম্পাদনা]

কনিফা বিশ্ব ফুটবল কাপ[সম্পাদনা]

কনিফা বিশ্ব ফুটবল কাপ বাছাইপর্ব
সাল পর্ব অবস্থান ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো ম্যাচ জয় ড্র হার স্বগো বিগো
সাপমি ২০১৪ কোয়ার্টার-ফাইনাল ৬ষ্ঠ ১৪ অংশগ্রহণ করেনি
আবখাজিয়া ২০১৬ কোয়ার্টার-ফাইনাল ৮ম আমন্ত্রণের মাধ্যমে উত্তীর্ণ
বারাওয়া ২০১৮ উত্তীর্ণ হয়নি অনুত্তীর্ণ
উত্তর মেসিডোনিয়া ২০২০ করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারীর কারণে বাতিল[৩] করোনাভাইরাসের বৈশ্বিক মহামারীর কারণে বাতিল[৩]
মোট কোয়ার্টার-ফাইনাল ২/৩ ১০ ২৩

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ফিফা/কোকা-কোলা বিশ্ব র‍্যাঙ্কিং"ফিফা। ২১ ডিসেম্বর ২০২৩। সংগ্রহের তারিখ ২১ ডিসেম্বর ২০২৩ 
  2. গত এক বছরে এলো রেটিং পরিবর্তন "বিশ্ব ফুটবল এলো রেটিং"eloratings.net। ১২ জানুয়ারি ২০২৪। সংগ্রহের তারিখ ১২ জানুয়ারি ২০২৪ 
  3. "Please find our latest update regarding several @CONIFAOfficial matters.pic.twitter.com/5nZXu4FC1p"। এপ্রিল ২৯, ২০২০। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]