কান্তগীতি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

কান্তগীতি হল কবি ও সঙ্গীত রচয়িতা রজনীকান্ত সেন কর্তৃক বাংলা ভাষায় রচিত ও সুরারোপিত গান।[১][২] তাঁর রচিত গানগুলোকে (২৯০টি, তবে প্রকৃত সংখ্যা অজানা)[৩] বিষয়বস্তু অনুযায়ী চারটি ভাগে বিভাজিত করা হয়েছে – দেশাত্মবোধক গান, ভক্তিমূলক গান, প্রীতিমূলক গান ও হাস্যরসের গান। তবে রজনীকান্তের দেশাত্মবোধক গানের আবেদনই বিশাল ও ব্যাপক। স্বদেশী আন্দোলন (১৯০৫-১৯১১) চলাকালে 'মায়ের দেওয়া মোটা কাপড় মাথায় তুলে নেরে ভাই' গানটি রচনা করে অভূতপূর্ব গণআলোড়নের পরিবেশ সৃষ্টি করেছিলেন।

রজনীকান্ত শৈশবকাল থেকে সঙ্গীতপ্রিয় হয়ে উঠেছিলেন। কোথাও কোন সুমধুর সঙ্গী শুনলেই তিনি সুর, তাল-সহ তৎক্ষণাৎ তা কণ্ঠস্থ করতে পারতেন। তার পিতা গুরুপ্রসাদ সেন একজন দক্ষ সঙ্গীতজ্ঞ হিসেবেও পরিচিত ছিলেন। ফলে পিতার সাহচর্য্যেই শৈশবে সঙ্গীত অনুশীলন করার সুযোগ ঘটে তার। বস্তুতঃ কাব্যের চেয়ে গানের ক্ষেত্রে তার কৃতিত্ব অধিক। যৌবনে সঙ্গীত রচনায় বিশেষ পারদর্শীতার পরিচয় প্রদান করেন রজনীকান্ত।[৪]

অক্ষয়কুমারের বাসভবনে আয়োজিত গানের আসরে তিনি স্বরচিত গানের সুকণ্ঠ গায়ক হিসেবে আবির্ভূত হন । রাজশাহীতে অবস্থানকালে রজনীকান্ত সেন তৎকালীন সময়ের অত্যন্ত জনপ্রিয় কবি দ্বিজেন্দ্রলালের কণ্ঠে হাসির গান শুনে হাসির গান রচনা শুরু করেন। অত্যন্ত ক্ষিপ্রতার সঙ্গে গান রচনায় তার জুড়ি মেলা ভার ছিল। তিনি কবি দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের লেখনীর দ্বারা ভীষণভাবে প্রভাবান্বিত হয়েছিলেন। ফলে তিনিও তার মতো করে সমগোত্রীয় লেখা লিখতে শুরু করেন।

কয়েকটি উল্লেখযোগ্য কান্তগীতি: 'মায়ের দেওয়া মোটা কাপড় মাথায় তুলে নে রে ভাই', ‘তুমি নির্মল কর মঙ্গল করে মলিন মর্ম মুছায়ে', ‘আমিতো তোমারে চাহিনি জীবনে’, ‘কেন বঞ্চিত হব চরণে’, 'দেখ দেখি মন নয়ন মুদে ভালো করে', ‘আমায় সকল রকমে কাঙাল করেছে’, ‘কবে তৃষিত এ মরু ছাড়িয়া যাইব’, 'শুনাও তোমার অমৃত বাণী', 'কেউ নয়ন মুদে দেখে আলো, কেউ দেখে আঁধার', 'ওরা চাহিতে জানে না', 'তোমারি দেওয়া প্রাণে তোমারি দেওয়া দুখ', ‘প্রেমে জল হয়ে যাও গলে', ‘স্বপনে তাহারে কুড়ায়ে পেয়েছি', 'পাপ রসনারে হরি বল’ প্রভৃতি।[২][৫][৬][৭][৮]

বাংলাদেশ এবং ভারতের অনেক সঙ্গীত শিল্পী কান্তগীতি গানগুলো গেয়েছেন। তন্মধ্যে - কৃষ্ণা চট্টোপাধ্যায়, নীলা মজুমদার, পান্নালাল ভট্টাচার্য, অনুপ ঘোষাল, নিশীথ সাধু, হেমন্ত কুমার মুখোপাধ্যায়, শ্রীকান্ত আচার্য্য, অর্ঘ্য সেন, জুঁথিকা রায়, সন্ধ্যা মুখোপাধ্যায়, আরতি মুখোপাধ্যায়, মান্না দে, মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়, ছবি বন্দ্যোপাধ্যায়, ইফফাত আরা দেওয়ান, উৎপলা সেন প্রমুখ অন্যতম।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "রজনীকান্ত সেন"onushilon.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-২৯ 
  2. "রজনীকান্তের গান - বাংলাপিডিয়া"bn.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-২৯ 
  3. টেলিভিশন, Ekushey TV | একুশে। "কবি ও সুরকার রজনীকান্ত সেনের জন্মদিন আজ"Ekushey TV (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-২৯ 
  4. বাংলা একাডেমী চরিতাভিধান, সম্পাদকঃ সেলিনা হোসেন ও নূরুল ইসলাম, ২য় সংস্করণ, ২০০৩, বাংলা একাডেমী, ঢাকা, পৃ. ৩৩৮
  5. কবি রজনীকান্ত সেন-এর গানের সূচি , www.milansagar.com
  6. "Musical Event based on the songs of Rajanikanta Sen"www.anandabazar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-২৯ 
  7. জুয়েল, জোবায়ের আলী। "বাংলা গানে রজনী কান্ত সেন"DailyInqilabOnline (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৬-৩০ 
  8. "Article on Rajanikanta Sen"www.anandabazar.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৯-১৩