উৎপলা সেন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

উৎপলা সেন (জ. ঢাকা, ১২ মার্চ, ১৯২৪ - মৃ. কলকাতা ১৩ মে, ২০০৫) বিংশ শতাব্দী বাংলা গানের একজন প্রধান গায়িকা। বাঙলা গানের সোনালী যুগে প্রেম এবং বিরহের গানে একটি বিশিষ্ট বিষাদের সুর তিনি ধরেছেন তার গানে[১]। স্বামী সতীনাথ মুখোপাধ্যায়, হেমন্ত মুখোপাধ্যায় এবং অন্য গায়কদের সাথে অনেক জনপ্রিয় ডুয়েটও গেয়েছেন।

জীবন[সম্পাদনা]

প্রথম তালিম পান মা হিরণবালা দেবীর কাছে, তারপর উস্তাদ গুল মোহম্মদ খানের কাছে। প্রথম জনসমক্ষে আসেন তেরো বছর বয়সে ঢাকা রেডিও তে (১৯৩৫)[২]। প্রথম রেকর্ড ১৯৩৯। সঙ্গীতকার সুধীরলাল চক্রবর্তীর সুরে ১৯৪১ সালে প্রবল জনপ্রিয়তা পেল এক হাতে মোর পূজার থালি গানটি[৩]। আরও জনপ্রিয়তা পেলেন মহিষাসুর মর্দিনীর শান্তি দিলে ভরি গানে, যা আজও শোনা যায়।

চল্রিশ দশকের গোড়ায় কলকাতা চলে আসেন, এবং তার পর থেকে আকাশবাণী (All India Radio)র সঙ্কে যুক্ত ছিলেন বহুদিন। বাংলা সিনেমায়ও গান করেছেন আনেক।

প্রথম বিবাহ বেণু সেনের সাথে, তিনি মারা গেলে ১৯৬৮তে বিয়ে করেন সঙ্গীত সতীর্থ সতীনাথ মুখোপাধ্যায়কে। জন্মাল এক পুত্রসন্তান।

মৃত্যু এবং প্রাসঙ্গিকতা[সম্পাদনা]

১৩ মে, ২০০৫এ, পাঁচ বছরের ক্যান্সারাক্রান্ত উত্‌পলা সেন মারা যান কলকাতার এস এস কে এম হাসপাতালে। রেখে গেলেন বেশ কিছু ক্লাসিক পর্যায়ের গান যা আজও প্রায়ই শোনা যায়, যেমন ময়ুরপঙ্ক্ষী ভেসে যায়, পাখি আজ কোন সুরে গায় বা ঝিকমিক জোনাকির দ্বীপ জ্বলে শিয়রে। তবে তাঁর ৬০০০ এর বেশি সিনেমা এবং রেকর্ডের গানের অধিকাংশই আজ বিস্মৃতপ্রায়। ইদানিং কালে দুই বাঙলাতেই পুরানো দিনের গানের চর্চা বাড়ছে - কিছু গান 'রিমেক' মাধ্যমে আবার শোনা যাচ্ছে - এবং উত্‌পলা সেনের নাম আবার জনসমক্ষে শোনা যাচ্ছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Tribute: Utpala Sen: The golden voice of yesteryears"। The Daily Star। মে ১৫, ২০০৫। সংগৃহীত ২০০৭-১০-২৪ 
  2. Paramisish Ghosh Roy, Kolkata (১৩-মে-২০০৫)। "Utpala Sen Passes Away"। Voice of America। সংগৃহীত ২০০৭-১০-২৪ 
  3. "Bengali singer Utpala Sen dead"। মে ১৩, ২০০৫ ১৮:১৪ IST। সংগৃহীত ২০০৭-১০-২৪