কাওরাইদ গয়েশপুর কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

কাওরাইদ গয়েশপুর কলেজ ১৯৭০ সালে সুতিয়া নদীর তীরে স্থাপিত ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলার একটি কলেজ।

পরিচিতি[সম্পাদনা]

কলেজটিতে বিজ্ঞান, মানবিক ও ব্যবসায়ী শিক্ষা বিভাগ চালু আছে। প্রায় প্রতি বছর এ কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ ৫ পেয়ে থাকে। কলেজটিতে একটি দ্বিতল প্রশাসনিক ভবন দুটি একাডেমিক ভবন ও একটি বহুতল নির্মাণাধীন একাডেমিক ভবন রয়েছে। প্রায় প্রত্যেক শিক্ষাবর্ষেই এখান থেকে একাধিক শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ ও বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়ে থাকে। ২০১৬-১৭ তে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ জন ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ১ জন। ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলায় ২ জন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ২ জন কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ জন ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

১৯৭০ সালের প্রথমদিকে গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলাধীন কাওরাইদ ও ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলাধীন গয়েশপুর এলাকার স্থানীয় কয়েকজন বিদ্যুৎসাহী, শিক্ষানুরাগী লোকের প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠিত হয় কাওরাইদ গয়েশপুর কলেজ।[১] প্রতিষ্ঠাকালীন সময়ে কলেজটির অধ্যক্ষ ছিলেন পীরে কামেল আলহাজ্ব সামছুল হুদা এমএনএ। বর্তমানে কলেজটির অধ্যক্ষ জনাব বারর আলী।

স্থান ও জমি[সম্পাদনা]

কলেজের প্রতিষ্ঠার জমিদান করেছেন,মরহুম আলতাফ হোসেন গোলন্দাজ এমপি, জনাব নজরুল ইসলাম ও এলাকার কয়েকজন শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি। প্রায় ৪ একর জমির উপর কলেজটি স্থাপিত। বর্তমানে কলেজটিতে একটি দৃষ্টিনন্দন বহুতল একাডেমিক ভবন নির্মিত হচ্ছে।এখানে প্রতিয়মান হয়নি মরহুম কেরামত আলী খান বাহাদুর সাহেবের নাম। যিনি এই প্রতিষ্ঠানের সবচেয়ে বেশি জমি দান করে গেছেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  • গফরগাঁও এর ইতিকথা-শেখ রিয়াজ উদ্দিন আহমেদ
  • দৈনিক স্বদেশ -ময়মনসিংহ

গফরগাঁও উপজেলা

  1. "গফরগাঁওয়ে কাওরাইদ গয়েশপুর কলেজে হামলা ভাংচুর"www.jugantor.com