এমপেগ-১

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

এমপেগ-১ বা MPEG-1 এমপেগ সমর্থিত অডিও ও ভিডিও কোডিং ও সংকোচনের প্রমিত মান। ভিডিও সিডিতে (VCD) এমপেগ-১ ব্যবহৃত হয়। তবে কিছু কিছু ডিভিডি ভিডিওতেও এটি ব্যবহৃত হয়েছে। সাধারণ ভিসিডির এমপেগ-১ এর ছবি ও শব্দের মান ভিএইচএস টেপের মানের সমতুল্য।

এমপেগ-১ এর অডিও স্তর ৩ একটি জনপ্রিয় অডিও ফরম্যাট যা এমপি৩ নামে পরিচিত। সস্তা ও শক্তিশালী ডিকোডিং হার্ডওয়ারের উন্নতির ফলে এমপেগের জটিল ও উচ্চতর ফরম্যাট এমপেগ-২ এবং এমপেগ-৪ প্রণীত হয়েছে। এসব ফরম্যাট অনেক জটিল এবং উচ্চ ক্ষমতার হার্ডওয়ারের জন্য উপযোগী, তবে এতে কোডিং দক্ষতা বেশি।

এমপেগ-১ নিচের কয়েকটি ধাপে বিভক্ত:

  1. চলমান চিত্র (ভিডিও) ও শব্দের (অডিও) সিনক্রোনাইজেশন এবং মাল্টিপ্লেক্সিং (এমপেগ-১ প্রোগ্রাম স্ট্রিম)
  2. নন-ইন্টারলেসড ভিডিও সংকেতের জন্য কমপ্রেশন (সংকোচন) কোডেক
  3. অডিও সংকেতের জন্য কমপ্রেশন কোডেক। এমপেগ-১ এর মান অনুযায়ী এই ধাপের তিনটি স্তর রয়েছে
    1. এমপি১ বা এমপেগ-১ পার্ট ৩ লেয়ার ১
    2. এমপি২ বা এমপেগ-১ পার্ট ৩ লেয়ার ২
    3. এমপি৩ বা এমপেগ-১ পার্ট ৩ লেয়ার ৩
  4. গ্রহণযোগ্যতা নিরুপনের জন্য পদ্ধতি
  5. সফটওয়ার

তথ্যসূত্র: ISO/IEC JTC1/SC29/WG11 (জুন ১৯৯৬)

ইতিহাস[সম্পাদনা]

ভিডিও কনফারেন্সের জন্য ১৯৮০ এর দশকে প্রস্তাবিত এইচ.২৬১ ফরম্যাট থেকে ১৯৯০ দশকে এমপেগ-১ ফরম্যাটের উৎপত্তি হয়েছে।[১] মুভিং পিকচার এক্সপার্টস গ্রুপ (এমপেগ) কিভাবে ভিডিওকে সিডি-রমে সংরক্ষণ করা যায় তা নিয়ে গবেষণা করে। এই গবেষণার ফলশ্রুতিতেই এমপেগ-১ ফরম্যাট তৈরি হয়েছে।

এমিপেগ-১ ভিডিও[সম্পাদনা]

প্রথমে ১.৫ মেগাবিট/সেকেন্ড গতির তথ্য প্রবাহের ভিডিও চিত্রের জন্য এমপেগ-১ এর নকশা করা হয়েছিল। এর রেজিউলেশন ছিল ৩৫২x২৪০ (২৯.৯৭ ফ্রেম প্রতি সেকেন্ডে) / ৩৫২x২৮৮ (২৫ ফ্রেম প্রতি সেকেন্ডে)। যদিও কম মানের রেজিউলেশনের জন্যই এমপেগ-১ বেশি ব্যবহৃত হয় তবে এমপেগ-১ এর নকশায় ৪০৯৫x৪০৯৫ এর নিচের সকল রেজিউলেশনে ভিডিও চিত্রগ্রহণ সম্ভব।

বর্তমানে এমপেগ-১ এমপেগ গোত্রের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ফরম্যাট; প্রায় সকল কম্পিউটার ও ভিসিডি/ডিভিডি প্লেয়ারে এমপেগ-১ চলে।

এমপেগ-১ এর সবচেয়ে বড় অসুবিধা হচ্ছে এটি কেবল প্রোগ্রেসিভ স্ক্যান সমর্থন করে। এই অসুবিধা দূর করার জন্য এমপেগ-২ ফরম্যাট নির্মিত হয়েছে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

সম্পর্কিত স্ট্যান্ডার্ড: