উইকিপিডিয়া:সর্বজনীন আচরণবিধি সংক্রান্ত আলোচনা/নির্দেশনা তৈরি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মতামতের পাতা
বাংলা সম্প্রদায়ের জন্য আলোচনা পাতা
আরও তথ্য (মেটা)
এই আলোচনার জন্য আরও যে তথ্যগুলো জানতে পারেন
বাংলা উইকিপিডিয়ার পরিবেশ ভালো রাখতে ‘বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা’ বিষয়ক আলোচনা

উইকিপিডিয়াসহ উইকিমিডিয়ার বিভিন্ন প্রকল্পে যাঁরা কাজ করেন তাঁদের জন্য আরো সুন্দর ও বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ তৈরির লক্ষ্যে বৈশ্বিক একটি ‘নৈতিক দিকনির্দেশনা’ বা ‘বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা’ তৈরির জন্য সকল সম্প্রদায়ের কাছ থেকে মতামত নেওয়া হচ্ছে। বৈশ্বিক বিভিন্ন নীতিমালা তৈরিতে দেখা যায় প্রায় সময়ই ইংরেজিরমত বড় উইকি প্রকল্পের ব্যবহারকারীরাই মতামত দিয়ে থাকেন। সেক্ষেত্রে ছোট সম্প্রদায় বা বাংলার মত উদীয়মান বিভিন্ন সম্প্রদায়ের সদস্যগণের মতামত সেগুলোতে ফুঁটে উঠে না। সে জন্য এবার স্থানীয়ভাবে বাংলাতে আলোচনায় যাতে সবাই নিজ নিজ মতামত দিতে পারেন সে ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বর্তমানে স্থানীয়ভাবে কোন কোন উইকিপিডিয়াতে ভদ্রতা, আস্থা রাখুন, কোনো আইনি হুমকি নয়সহ এধরণের কিছু আচরণবিধি নীতিমালা আছে। এই আলোচনার উদ্দেশ্য হলো, স্থানীয় নীতির সাথে সাথে বৈশ্বিক একটি দিকনির্দেশনা তৈরি যা সব প্রকল্পের জন্য প্রযোজ্য। মানুষের আচরণ কেমন হবে সেটি আসলে ঠিক দিকনির্দেশনা বা নীতিমালার মধ্যে রাখা যদিও সম্ভব না তবে প্রতিনিয়ত যে পরিস্থিতি যেমন, হয়রানিমূলক বার্তা, ধ্বংসপ্রবণতা, স্প্যামিং, অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা, ব্যবহারকারীদের পরস্পরের মধ্যে উত্তপ্ত আলোচনা - ইত্যাদি বিষয়গুলোর জন্য কমপেক্ষ একটি বৈশ্বিক দিকনির্দেশনা প্রয়োজন। এই আচরণবিধি নির্দেশনা তৈরির উদ্দেশ্য হলো যাতে উইকিমিডিয়া প্রকল্পে যাঁরাই অবদান রাখবেন তাঁরা সকলেই এই বিষয়গুলো মেনে চলবেন। একই ধরণের এরকম নীতিমালার জন্য মিডিয়াউইকির আচরণবিধি নীতিমালা দেখতে পারেন। আরো দেখুন, উইকিপিডিয়া:বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা তৈরি/সংগ্রহশালা

আলোচনার সুবিধার্থে এই মতামতের প্রক্রিয়াকে কয়েকটি ধাপে ভাগ করা হয়েছে। এখন শেষ ধাপের আলোচনা চলছে যা ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে। নিচে সবকটি অনুচ্ছেদে অথবা আপনার ইচ্ছে অনুসারে একটি অথবা দুটি অনুচ্ছেদে একের অধিক পয়েন্ট এবং মতামত লিখতে পারেন। আপনি চাইলে এই গুগল ফর্মে ক্লিক করে জরিপে অংশ নিতে পারেন।

মতামত প্রদান – জনি[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু – ১[সম্পাদনা]

হয়রানিমূলক বার্তা

সাধারণত হয়রানিমূলক বার্তাকে ব্যক্তিগত আক্রমন বলা যেতে পারে যা অনেক ক্ষেত্রে ধ্বংসপ্রবণতা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। একই ব্যবহারকারীকে একইরকম বার্তা (ইচ্ছাপূর্বক) বারবার দেয়া একধরনের হয়রানিমূলক বার্তা।

প্রতিকার: ইতিমধ্যে এইজন্য বিভিন্ন উইকিতে আলদা আলদা নিতিমালা বাস্তবায়িত আছে যাকে বৈশ্বিক নীতিমালার আওতায় সকল উইকিতে একই বিধান করা। সম্ভব হলে অপব্যবহার ছাকনি তৈরি এবং অনুরোধ করার পরে যদি অব্যাহত থাকে বাধা প্রদান করা। যদি কেউ একাধিক উইকিতে এই ধরনের আচরণ তখন বিষয়টি বৈশ্বিক বাধার আওতায় আনা যেতে পারে।

ধ্বংসপ্রবণতা

ধ্বংসপ্রবণতা বলতে আমরা সবাই এটা বৈশ্বিক সমস্যা মনেকরি, অনেক ক্ষেত্রে নতুন ব্যবহারকারী সম্পাদনা থেকেও নিশ্চিতকৃত সকপাপেট ব্যবহারকারীরা বাংলা উইকিতে ধ্বংসাত্মক সম্পাদনা বেশি করে থাকে।

প্রতিকার: নিশ্চিতকৃত সকপাপেট ব্যবহারকারীদের বৈশ্বিক ভাবে আইপি পরিসীমা বাধা প্রদান করা, সেইসাথে স্থানীয় এবং বৈশ্বিক অপব্যবহার ছাকনি তৈরি করা। যদিও ধ্বংসপ্রবণতা বাংলা উইকিতে বড় ধরনের সমস্যা হয়নি তবুও স্থানীয় এবং বৈশ্বিক অপব্যবহার ছাকনি তৈরি করা জরুরী। বাংলা উইকিতে একটা সমস্যা সবসময় হয় যে কয়েক বার ধ্বংসাত্মক সম্পাদনা প্রত্যাবর্তন করার পরে বিরক্তি হয়ে বাধা প্রদানের অনুরোধ করে, কিন্তু প্রত্যাবর্তন করার পরে সেই ব্যবহারকারীকে উপযুক্ত বার্তা দেননা অথবা বোঝানোর চেষ্টা করেননা। অনেক সময় ভুলেই যান যে সে নিজেও একদিন নতুন ছিলো। এক্ষেত্রে অভিজ্ঞ ব্যবহারকারীদের সচেতন করতে হবে।

স্প্যামিং

স্প্যামিং কি অনেকে সেটা না জেনে মনেকরেন বাংলা উইকিতে যে কেউ লিখতে পারে তাই যেকোনো কিছু লেখা যাবে! এটি বাংলা উইকিতে বরাবর অনেকটা প্রভাব ফেলে।

প্রতিকার: স্থানীয় এবং বৈশ্বিক অপব্যবহার ছাকনি সক্রিয় করার পাশাপাশি সকল উইকির মিডিয়াউইকি:Spam-blacklist বৈশ্বিক ভাবে সক্রিয় করা উচিৎ, যাতে কোনো এক উইকিতে তালিকা ভুক্ত অন্য উইকিতে সমস্যা করতে না পারে। এ ব্যাপারে উইকির ভেতরে এবং বাইরে সমানভাবে সকলকে সচেতন করতে হবে।

অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা

ইতিমধ্যে বেশকয়েক বার বাংলা উইকিতে অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। আমার মতে এটি বড় সমস্যা একইভাবে দুঃখজনক কেননা দের বছরের মধ্যে দুই বার (হাসিব এবং নাহাল) আমাদের এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে।

প্রতিকার: এটি প্রতিকার করতে ব্যবহারকারীদের মানসিক চিন্তাধারা পরিবর্তন করা প্রয়োজন যা সম্ভব না! তবে বাধা প্রদানের পাশাপাশি বাধ্যতামূলক উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কর্তৃক উইকিমিডিয়া সাইটগুলিতে সম্পাদনা করা থেকে নিষিদ্ধ করা, প্রয়োজনে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কর্তৃক আইনি ব্যবস্তা গ্রহন করা কেননা এতে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়। একইসাথে সকল ব্যবহারকারীদের অর্থের বিনিময়ে অবদান, ব্যবহারের শর্তাবলী, অর্থের বিনিময়ে অবদানের সংশোধনী, স্বার্থের দ্বন্দ্ব ইত্যাদি সম্পকে সচেতন করা। কেননা অনেক ব্যবহারকারী বৈশ্বিক এইসকল নিতিমালা সম্পকে অবগত নন। যেমনটা এখানে আলোচনা হয়েছিলো এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে ইতোমধ্যে কয়েকদিনের জন্য বাংলা উইকিপিডিয়ায় সাইট নোটিশ দেয়া হয়েছিলো। আমি মনেকরি এই বিশয়টি কেন্দ্রীয় বিজ্ঞপ্তি দ্বারা সকল উইকিতে (যেখানে বাংলা ইন্টারফেস ব্যবহার হয়) করা যেতে পারে, যদিও বর্তমান ব্যবহারের নির্দেশিকা অনুযায়ী সেটা করা সম্ভব না! তবুও বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনার ভিক্তিতে বিশেষ ভাবে এটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব।

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্তপূর্ণ এবং যা লঙ্ঘন একটি অত্যাধিক গুরুত্বর লঙ্ঘন। বাংলা উইকিতে এইরকম ঘটনা ইতিপূর্বে ঘটেছে। অনেকেই এটাই জানেনা যে উইকির বাইরে ব্যক্তিগত আলাপ আলোচনা উইকিতে প্রকাশ করাও একধরনের ব্যক্তিগত গোপনতা লঙ্ঘন। তবে অনেকে এটাই জানেনা যে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা এবং তদবিরের ব্যবধান কোথায়!

প্রতিকার: ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন করার সাথে সাথে দ্রত বৈশ্বিক বাধা প্রদান সহ অন্যান্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্তা নিতে হবে। একইসাথে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন কর্তৃক উইকিমিডিয়া সাইটগুলিতে সম্পাদনা করা থেকে নিষিদ্ধ করা যেতে পারে। সেইসাথে ব্যক্তিগত গোপনীয়তা এবং তদবির বিষয়ের মধ্যে পার্থক্য সকল ব্যবহারকারীদের অবগত করতে হবে।

বিষয়বস্তু – ২[সম্পাদনা]

এই জাতীয় সমস্ত প্রয়োজনীয় বিধি ইতিমধ্যে বিদ্যমান। তবে এই নিতিমালা নিয়মিতভাবে আক্রমণাত্মক আচরণের সমাধান করতে সক্ষম হবে। অনেক সময় ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের কারণে অনির্দিষ্টকালের জন্য অবরুদ্ধ করা বন্ধ করবে। এই বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা করার সাথে সাথে অন্যান্য নিতিমালা সম্পকে বিশেষ করে ব্যবহারের শর্তাবলী সম্পকে সকল ব্যবহারকারীদের অবগত করা জরুরী। ধন্যবাদ! জনি (আলাপ) ১৫:৫৪, ২২ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - সুব্রত রায়[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু - ১[সম্পাদনা]

মাঝে-মধ্যে নিবন্ধ তৈরিকালীন অযাচিত বার্তা আসা, কিংবা নিবন্ধের মাঝে সম্পাদনা দ্বন্দ্বে ফেলার ন্যায় কৃতকর্মের সাথে অযাচিতভাবে কালক্ষেপনের সাথে কয়েকজন নবীন (!) ব্যবহারকারী নিজেকে জড়িয়ে রয়েছেন। উদ্দেশ্য হলো - নিবন্ধ সম্প্রসারণে ব্যাঘাত ঘটানো, স্বীয় স্বার্থে আর সম্প্রসারণের প্রয়োজন নেই, কিংবা স্নায়ু চাপে ফেলে ব্যবহারকারীর আগ্রহকে স্তিমিত করে দেয়া। আলাপ পাতা কিংবা সৌজন্যবোধ সৃষ্টির ন্যায় ব্যবহারকারীর আলাপ পাতার সদ্ব্যবহার না করা। সম্পাদনা সারাংশের সঠিক ব্যবহার না করা। জোর করে কিংবা জোটবদ্ধ হয়ে কোন কাজকে সম্পূর্ণ / সম্পন্ন করতে না দেয়া। জোরপূর্বক স্বীয় মতামত চাপিয়ে দেয়ার অপপ্রয়াস। ধর্মীয় কিংবা উপমহাদেশের সমাজ-সংস্কৃতির দিকে লক্ষ্য রেখে নির্দিষ্ট বক্তব্য তুলে ধরে বৈশ্বিক উইকিপিডিয়াকে ক্ষুদ্র চিন্তাধারায় নিয়ে যাবার ন্যায় দৃষ্টিভঙ্গীকে প্রাধান্য দেয়া। ক্ষেত্র বৃদ্ধির সাথে সাথে অনৈতিক আর্থিক সুবিধা গ্রহণের ন্যায় প্রতিকূল সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। উপমহাদেশ তথা ভৌগোলিক প্রেক্ষাপট চিন্তায় এনে হাল ছেড়ে দেয়া।

বিদ্যমান নীতিমালা অনুযায়ী কাজ করা হলেও তা যথাযথভাবে প্রয়োগ করা হয় না; নিয়মিত ব্যবহারকারীর স্বল্পতা, উদাসীনতা লক্ষ্য করা যায়। পর্যাপ্ত ব্যাকরণগত সচেতনতা সৃষ্টি করা প্রয়োজন। সাপ্তাহিক সেরা নিবন্ধ প্রণেতা সৃষ্টিকল্পে প্রকল্প গঠন করা যেতে পারে ও মূল্যায়িত করা যেতে পারে। নিয়মিতভাবে নতুন ব্যবহারকারী সৃষ্টিতে বিজ্ঞাপন দেয়া যেতে পারে। ব্যবহারকারীদেরকে রত্নসমতুল্য প্রযুক্তিবিদ বিবেচনায় এনে মূল্যায়িত করা উচিৎ। ভুল-ত্রুটিগুলো মার্জিত ভঙ্গীতে প্রকাশ করা উচিৎ। কেননা, দৃষ্টিভঙ্গীগুলোর চিন্তা-চেতনা বৈশ্বিকভাবে ফুটে উঠলেও সরাসরি মত বিনিময়ের ব্যবস্থা নেই।

প্রতিকার: বিশেষ কিছুক্ষেত্রে যার যে বিষয়ে আগ্রহ রয়েছে তাকে সেদিকে মনোনিবেশ ঘটানোর দিকে আলোকপাত করার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি তুলে ধরা প্রয়োজন। নিয়মিত সাংবার্ষিকভিত্তিতে সম্মেলন / অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংশ্লিষ্ট সকলকে হাতে-কলমে সচেতনতার বিষয়টি অবগত করানো যেতে পারে। বাংলার প্রতি দায়বদ্ধতার পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে।

বিষয়বস্তু - ২[সম্পাদনা]

বাংলা উইকিমিডিয়ায় গ্রহণযোগ্যতা সৃষ্টির লক্ষ্যে বৈশ্বিক নীতিমালার অবশ্যই প্রয়োজন রয়েছে। পাশাপাশি বিদ্যমান নীতিমালাগুলোর অনুবাদ করার অতীব জরুরী। ব্যবহারকারীর অধিকার সম্পর্কে সচেতন করা প্রয়োজন। ধন্যবাদ সহযোগে - Suvray (আলাপ) ০৪:৩৬, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - শাহিদুল হাসান রোমান[সম্পাদনা]

'বিষয়বস্তু-১'

  • নতুনদের প্রতি সদয় হওয়া:

শূন্য থেকেই সবাই শিখে। স্বাভাবিকভাবেই নতুনরা কোন একটি নিবন্ধ তৈরি করলে সেখানে নানা ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়। অনেক সময় বাধ্য হয়েই অপসারন ট্যাগ লাগাতে হয়। এতে করে সেই নিবন্ধ প্রণেতা উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। তাই যদি নিবন্ধের বিষয়বস্তু উইকিপিডিয়াতে থাকার যোগ্য হয় সেক্ষেত্রে যিনি অপসারন ট্যাগ লাগিয়েছেন তিনি সাথে সাথে ট্যাগ না লাগিয়ে নিজে নিবন্ধটিকে কিছুটা হলেও রাখার জন্য সাহায্য করতে পারেন কিনা তা ভাবা উচিত অর্থাৎ নিবন্ধটিতে তথ্যসূত্র যোগ করে, নিবন্ধটিতে আরো পর্যাপ্ত তথ্য যোগ করতে পারেন কিনা তা ভেবে দেখা উচিত। তারপরেই ট্যাগ লাগানো উচিত।

  • কোন কোন নিবন্ধ তৈরি করা যাবে কোনটি তৈরি করা যাবে নাহ:

অনেক নতুন সম্পাদকের মনে প্রশ্ন জাগে আমার প্রাইমারী স্কুল, হাই স্কুল, মাদ্রাসা এসবের নিবন্ধ বানানো যাবে কিনা? সরকারের কোন কোন উচ্চ পর্যায়ের ব্যক্তির নিবন্ধ তৈরি করা যাবে? রাজনৈতিক কোন পদের ব্যক্তির নিবন্ধ বানানো যাবে? এসব বিষয়। এ বিষয়গুলো অনেকেরই বুঝতে অসুবিধা হয়। তাই এক্ষেত্রে নির্দেশিকাগুলো আরো সহজ করতে হবে। একটা তালিকাও তৈরি করা যেতে পারে অর্থাৎ সেখানে থাকবে কোন কোন ক্ষেত্রের কোন কোন ব্যক্তির নিবন্ধ বানানো যাবে। তার কি কি উল্লেখযোগ্যতা থাকতে হবে। আরো সহজে বুঝার জন্য পাশে দিয়ে উদাহরন হিসেবে সেসব বিষয়ে উইকিতে থাকা বর্তমান কিছু নিবন্ধের লিংক দিয়ে দিতে হবে অর্থাৎ এর দ্বারা বুঝাবে এই এই ধরনের ব্যক্তির নিবন্ধ তৈরি করা যাবে এবং তার এই যোগ্যতা বা উল্লেখযোগ্যতা রয়েছে।

'বিষয়বস্তু-২' আচরণবিধি বা নৈতিক দিকনির্দেশনার জন্য এ ধরণের বৈশ্বিক নীতিমালা অবশ্যই প্রয়োজন রয়েছে। এতে করে বাংলা উইকিপিডিয়ায় শৃঙ্খলা ফিরে আসবে। Shahidul Hasan Roman (আলাপ) ০৮:১৬, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান – এম আবু সাঈদ[সম্পাদনা]

প্রশ্নের বিষয়বস্তু - ১ প্রসঙ্গে: আচরণবিধির মধ্যে বাংলা উকিপিডিয়াতে আমি সবচেয়ে যে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিব, তা হচ্ছে সর্বনাম পদ এবং একইসাথে কোন ব্যক্তিকে কিভাবে সম্বোধন করা হচ্ছে। অনেক নিবন্ধে দেখা যায় একইসাথে এক ব্যক্তিকে আপনি করে সম্বোধন করা ও সেই অনুযায়ী বাক্য লেখতে দেখা যায়। এমনকি কোথাও কোথাও চন্দ্রবিন্দু ও ব্যবহার করতে দেখা যায়; যেমন- কেউ কেউ লিখেছেন তাঁর, তাঁদের এরকম করে। আবার কিছু নিবন্ধে ব্যক্তি বিশেষের নামে আগে বা পরে যাচ্ছেতাই পদ এবং পদবী ব্যবহার করা হয়, ধর্মীয় ব্যক্তিত্বও এই তালিকায় রয়েছেন

প্রশ্নের বিষয়বস্তু - ২ প্রসঙ্গে: আমার মতে বৈশ্বিক আচরণবিধি মোতাবেক এটাকে পরিবর্তন করা হোক।এম আবু সাঈদ (আলাপ) ০৮:৫২, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - আল রিয়াজ উদ্দীন রিপন[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু ১ সমস্যা - ধ্বংসপ্রবণতা উইকিমিডিয়া প্রকল্পের অন্যান্য প্রকল্পের মতো বাংলা উইকিপিডিয়াও বরাবরই ধ্বংসপ্রবণ সম্পাদনার শিকার হয়ে থাকে। উইকিপিডিয়ার সকল ওয়েবসাইটসমূহের কনটেন্ট গুগল সার্চে উপরের দিকে থাকায় অনেক সময় ধ্বংসপ্রবণ সম্পাদনাগুলো গুগল সার্চে দেখা যায় যদিও এটি গুগলের অ্যালগরিদমজনিত সমস্যা এবং এটি সাময়িক সমস্যা হলেও রাজনৈতিক ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের নিবন্ধের ধ্বংসপ্রবণ সম্পাদনার কারণে এক ধরনের প্রভাব পড়ে থাকে।

প্রতিকার বর্তমানে উইকিপিডিয়ায় বিভিন্ন সরঞ্জাম, ব্যবহারকারী অধিকার ও ব্যবহারকারী স্ক্রিপ্ট দ্বারা ধ্বংসপ্রবণ সম্পাদনা খুব সহজেই বাতিল করা এবং সম্পাদনা ইতিহাস লুক্কায়িত করা যায়। যে সমস্ত ব্যবহারকারীরা ধ্বংসপ্রবণ সম্পাদনা করে থাকে তাদেরকে সতর্কবার্তা প্রদান এবং এরপরেও বারবার সম্পাদনা করে থাকলে সম্পাদনার ধরণ দেখে সাময়িক অথবা দীর্ঘমেয়াদি বাধাদান।

সমস্যা - সাম্প্রতিক পরিবর্তন পাতা টহল সাম্প্রতিক পরিবর্তন পাতা নজরদারি করতে গিয়ে বিভিন্ন অগঠনমূলক ও অপ্রয়োজনীয় সম্পাদনা বাতিল করতে হয়। এর ফলে অনেক নতুন ব্যবহারকারী উইকিপিডিয়ার বিভিন্ন নীতিমালা সম্পর্কে অবগত না থাকায় তারা সম্পাদনা বাতিলকারীকে ব্যক্তিগত আক্রমণমূলক বার্তা দিয়ে থাকে। যেটি আমি নিজেও আলাপ পাতা ও ইমেইলের মাধ্যমে ইতোপূর্বে একাধিক বার্তা পেয়েছি।

প্রতিকার সাম্প্রতিক পরিবর্তন পাতায় উক্ত প্রকারের সম্পাদনা বাতিলের পর ব্যবহারকারীকে সতর্ক বার্তা প্রদান। সেই সাথে কেউ যদি ব্যক্তিগত আক্রমণমূলক বার্তা দেয় তাহলে তাকে (নতুন/পুরাতন ব্যবহারকারী) সঠিকভাবে বুঝানোর চেষ্টা করা উচিত। ব্যক্তিগত আক্রমণমূলক বার্তার উত্তর হিসেবে আমি ব্যবহারকারীকে সঠিকপন্থায় বুঝানোর চেষ্টা করি এবং প্রয়োজনে ব্যক্তিগতভাবে বিষয়টি সম্পর্কে অভিজ্ঞ প্রশাসকের নিকট অবহিত করে থাকি।

সমস্যা - ব্যবহারকারীদের সহযোগিতা উইকিপিডিয়ায় সকল নতুন ব্যবহারকারীদের কম-বেশি সহযোগিতার প্রয়োজন পড়ে। এক্ষেত্রে অনেক অভিজ্ঞ ব্যবহারকারী তাদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করে থাকে।

প্রতিকার যেহেতু আমরাও একদিন নতুন ছিলাম তাই সবার উচিত নতুনদের যথাসম্ভব বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণের মাধ্যমে সহযোগিতা করা।

বিষয়বস্তু - ২ অবশ্যই আচরণবিধি ও দিকনির্দেশনার জন্য এই ধরনের নীতিমালার প্রয়োজন রয়েছে। আমাদের উচিত আচরণবিধি ও নীতিমালা সহজ ও বোধগম্য করার মাধ্যমে উইকিপিডিয়ায় একটি সৌহার্দ্য ও বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশ সৃষ্টি করা। ধন্যবাদ — আল রিয়াজ উদ্দীন (আলাপ) ০৯:২৮, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - দোলন প্রভা[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু - ১[সম্পাদনা]

  • নতুন ব্যবহারকারীর তৈরি করা নিবন্ধে কোনো সমস্যা থাকলে সেটা সমাধানের ক্ষেত্রে দেখা যায় অভিজ্ঞ উইকিপিডিয়ানরা অনেক কঠোর হয়ে পড়েন। আবার কিছু কিছু নতুন ব্যবহারকারীরাও আছেন, যারা নির্দেশনাবলী খুব হালকা মনোযোগের সাথে পড়ে নেন ও নিবন্ধ তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পরেন। এই ক্ষেত্রে ভুলের পরিমান বেড়ে যায়। এই দুটি বিষয়ে নজর দেয়া না গেলে সুন্দর, তথ্যবহুল নিবন্ধ তৈরি সম্ভব হবে না।
  • অভিজ্ঞ উইকিপিডিয়ানরা অনেক সময় নিয়মিত ব্যবহারকারীর “নিবন্ধ সম্পাদনা”র বিষয়টিকে না বুঝতে পারার কারনে ঐ ব্যবহারকারীর আলাপ পাতায় এসে অনাকাঙ্ক্ষিত মন্তব্য করে থাকেন। অভিজ্ঞ উইকিপিডিয়ানদের এই ধরনের উদাসীনতা নিয়মিত ব্যবহারকারীর কাছে মানসিক চাপের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

বিষয়বস্তু - ২[সম্পাদনা]

একসাথে কাজ করার জন্য ও আগামীতে বাংলা উইকিপিডিয়াকে সমৃদ্ধ করতে বৈশ্বিক নীতিমালার অবশ্যই প্রয়োজন। ধন্যবাদ। Dolon Prova (আলাপ) ১১:৩৪, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - ইকবাল হোসেন[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু-১ :

  • বলা হয়েছে আচরণবিধিজনিত অসুবিধাগুলোর কথা বলার জন্য, তাহলে প্রথমেই বলতে হবে ব্যক্তিগত আক্রমনের কথা। অনেক পুরানো ও অভিজ্ঞ উইকিপিডিয়ানরা ব্যক্তিগত তর্কে জড়িয়ে পড়েন যা একেবারেই কাম্য নয়। আরেকটি বিষয় নতুনদেরও কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখা উচিত। যেমনটা সুব্রত দা বলেছেন, কয়েকজন নবীন (!) ব্যবহারকারী নিজেকে জড়িয়ে রয়েছেন। উদ্দেশ্য হলো - নিবন্ধ সম্প্রসারণে ব্যাঘাত ঘটানো, স্বীয় স্বার্থে আর সম্প্রসারণের প্রয়োজন নেই, কিংবা স্নায়ু চাপে ফেলে ব্যবহারকারীর আগ্রহকে স্তিমিত করে দেয়া। এ বিষয়টাও মাথা রাখতে হবে। তাই এইসব বিষয় খেয়াল রেখে কিছু নীতিমালা করতে হবে যাতে এই সমস্যাগুলোর প্রতিকার করা যায়।
  • আরেকটি উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, উইকিতে বেশ কয়েকটি র‌্যাকেট সক্রিয় হয়ে উঠেছে। যদি আগে থেকেই এই ধরনের র‌্যাকেট বা গ্রুপ ছিল। তবে ইদানিং তাদের সংখ্যা অনেকাংশে বেড়েছে। এদের প্রতিহত করার জন্য আমাদেরকে আরো সচেতনতামূলক প্রচারণা চালাতে হবে। আর নীতিমালা আরো কিছু কঠোর বিষয়ও এ্যাড করা যায়, তবে বিদ্যমান বৈশ্বিক নীতিমালায় যা আছে তা দিযেও কিন্তু বিষয়টা হ্যান্ডেল করা যেতে পারে।
  • ট্রেইন দ্যা ট্রেইনার বলে একটি কথা রযেছে, কিন্তু বাংলা উইকিটিডিয়ায় এই চর্চাটি একেবারেই অনুপস্থিত। তাই অভিজ্ঞদের নিয়ে এই ধরনের কর্মশালার আয়োজন করা যেতে পারে যাতে তাঁরা নতুনদের আরো সুন্দর করে বুঝিয়ে বলতে পারেন এবং নতুনদের সাথে ভালো সম্পর্ক গড়ে তুলতে পারেন। যতদিন পর্যন্ত নতুন-পুরাতনের মাঝে ভালো সম্পর্ক গড়ে না উঠবে ততদিন পর্যন্ত আচরণবিধিজনিত সমস্যা থেকেই যাবে।
  • নতুন পুরাতনদের মধ্যে উইকির প্রতি আরো বেশি করে আগ্রহ সৃষ্টির লক্ষে নিয়মিত কেন্দ্রিয়ভাবে সম্মেলনের আয়োজন করতে হবে। তাতে সবার মাঝে পারস্পরিক ইন্টেরাকশন বাড়বে, কাজ করার স্পৃহা সৃষ্টি হবে। কাজের মূল্যায়নও আরো বৃহৎ পরিসরে করতে হবে।

বিষয়বস্তু-২ :

  • আচরণবিধি বা নৈতিক দিকনির্দেশনার জন্য বৈশ্বিক নীতিমালার অবশ্যই প্রয়োজন রয়েছে। শুধু নীতিমালা থাকলে হবে সহস প্রাঞ্জল ভাষায় ব্যবহারকারীদের সচেতন করতে হবে। দেখা যাবে নীতিমালা প্রণীত হযেছে কিন্তু ব্যবহারকারীরা সে সম্পর্কে অবহিত বা সচেতন নন, তাহলে সে নীতিমালা তেমন কোনো কাজে আসবে নাই । তাই সচেতনতামূলক কর্মকান্ড বাড়াতে হবে।--IqbalHossain (আলাপ) ১২:২২, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - মেরাজ[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু - ১: স্থানীয়ভাবে বাংলাতে আমাদের এখানে নিজেদের কি কি আচরণবিধিজনিত অসুবিধাগুলো বেশি হয় এবং সেগুলো এখন কিভাবে সমাধান করা হয়?
বাংলা উইকিপিডিয়া ছোট পরিসরে মানে অল্প ব্যবহারকারী থাকায় অনেক সমস্যারই মুখোমুখি হতে হয় না, তারপরও আমার কাছে যেসব আচরণগত সমস্যা চোখে পড়েছে তা হলোঃ
  • উল্লেখযোগ্যতা নীতিমালা না মানতে চাওয়া (সংকীর্ণভাবে উইকিকে চিন্তা করা),
  • নতুনদের আক্রমণ,
  • ধর্ম/বর্ণ/দেশ ভিত্তিক পক্ষপাতিত্ব,
  • যে বিষয়ে অজ্ঞ তাতে মতামত দেয়া,
  • আমি যা মনে করি সেটাই ঠিক মনে করা
মোটামুটি আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করার চেষ্টা করা হয়, নবীন, প্রবীন সবার মতামতের ভিত্তিতে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এখানে যতটা কম বা হালকাভাবে শাসন/সতর্ক করা যায়, তারই চেস্টা করা হয়। এজন্য আমরা বর্তমান নীতিমালার দ্বারস্থ হই।
বিষয়বস্তু - ২: আচরণবিধি বা নৈতিক দিকনির্দেশনার জন্য এ ধরণের বৈশ্বিক নীতিমালা আসলেই প্রয়োজন কিনা?
অবশ্যই বৈশ্বিক নীতিমালার প্রয়োজন আছে, যা এধরণের সমস্যা সমাধানের শেষ আশ্রয়স্থল হিসেবে বিবেচিত হবে। -মেরাজ (আলাপ) ১৫:৪৮, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - মাসুম-আল-হাসান[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু - ১[সম্পাদনা]

  • বাংলা উইকিপিডিয়ায় মাঝে মাঝেই উইকিপিডিয়ানদের মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের অভাব দেখা যায়। এছাড়া অনেক সম্ভাবনাময় সম্পাদকেরা এক সময় সম্পাদনায় উৎসাহ হারিয়ে ফেলে। এজন্য মাঝে নতুন ও পুরাতনদের সমন্বয়ে ট্রেইন দ্যা ট্রেইনারের মত প্রোগ্রাম করা যেতে পারে। এছাড়া বছরে অন্তত একবার সম্মেলন করা উচিত যাতে বাংলা উইকিপিডিয়ার সকল নিয়মিত সম্পাদক নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি ও পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের জায়গায় উন্নতি করতে পারে।
  • সাম্প্রতিক সময়ে অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা যে বিষয়টি সামনে এসেছে এটি বন্ধে সচেতনতামূলক কার্যক্রম নিয়মিত চালাতে হবে। যেহেতু এরূপ কাজ সরাসরি প্রতারণার সামিল তাই আইনি পদক্ষেপ নেয়া যায় কিনা সেটি বিবেচনায় নিতে হবে। এ ধরণের কার্যক্রমে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশনের সরাসরি যুক্ত থাকা প্রয়োজন বলে মনে করি।

বিষয়বস্তু - ২[সম্পাদনা]

  • বর্তমানে যা বৈশ্বিক নীতিমালা আছে তা যথেষ্ট। তবে সকল নীতিমালা অনুবাদ করা প্রয়োজন এবং এ কাজ খুব সাবধানে করা প্রয়োজন। ২/৩ দিন ব্যাপী অফলাইন ইডিটাথনের মাধ্যমে অভিজ্ঞ উইকিপিডিয়ানদের সমন্বয়ে এটি করা যেতে পারে।--মাসুম-আল-হাসান (আলাপ) ১৬:২১, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত - দেলোয়ার[সম্পাদনা]

সম্পাদক হিসেবে উইকিপিডিয়ানের আচরণ কেমন হবে সেটি আসলে ঠিক দিকনির্দেশনা বা নীতিমালার মধ্যে রাখা অনেকাংশে সম্ভব না হলেও তারপরেও কিছু নীতিমালা থাকা প্রয়োজন। এরইমধ্যে বেশ কিছু নীতিমালা আগে থেকেই রয়েছে। যা হয়তো সর্বদা সবাই চর্চাগত দিক থেকে সমানতালে ফুটে তুলতে পারি না। তারপরেও বলবো যেগুলো রয়েছে সেগুলোই হয়তো যথেষ্ট না বা যা রয়েছে তা সম্পাদকদের অসামাঞ্জস্য কোনো বিষেয়ে বার্তা প্রদানের ক্ষেত্রে বেশি বেশি ব্যবহার করা যেতে পারে। যাতে তিনি পরবর্তীতে উইকি আলোচনায় নীতিমালা মেনে মতামত দিতে পারে।

  • প্রশ্নের বিষয়বস্তু -১ প্রসঙ্গে মতামত : বাংলা উইকিতে আচরণবিধিজনিত সমস্যা যে কয়েকটি চোখে পড়ে সেটি হলো, উইকিতে বেশিরভাগ নতুন সম্পাদকরা নিজেদের নিবন্ধ তৈরি করে ফেলেন। এ নিয়ে পুরোনোদের (টহল পরিচালনাকারী/প্রশাসক) অনেকেই তাকে সতর্ক করতে গিয়ে প্রথম ভুলে কড়া ভাষায় বার্তা দিয়ে ফেলেন। এটি পরিহার করা উচিত। এর বাইরেও কোনো উইকিপিডিয়ানকে সতর্কবার্তা দেয়ার ক্ষেত্রে দক্ষ কেউ/প্রশাসকগণ ভাষাগত দিক থেকে উন্নত ও মার্জিত ভঙ্গিতে কৌশলী ভূমিকা রাখা উচিত। কারণ একটি ইস্যুতে একজন ব্যক্তির কাজ নিয়ে অতিমাত্রার সতর্কবার্তা বা আলোচনার ব্যাপকতায় ক্ষুব্ধ হয়ে অনেক উইকিপিডিয়ান আর কাজে উৎসাহী হন না। এ ধরনের ঘটনায় কয়েকজন সক্রিয় উইকিপিডিয়ানকে নিষ্ক্রিয় হতে দেখেছি। মোদ্দকথা ছোট ত্রুটিতে কড়া সতর্কবার্তা পরিহার করা উচিত।
  • প্রশ্নের বিষয়বস্তু - ২ প্রসঙ্গে মতামত: আচরণবিধি বা নৈতিক দিকনির্দেশনার জন্য এ ধরণের বৈশ্বিক নীতিমালা অবশ্যই প্রয়োজন। কারণ উন্মুক্ত এ বিশ্বকোষে নানা মতের, নানা চিন্তার মানুষ যুক্ত হন। সবাইকে উইকি আচরণে নির্দিষ্ট নীতিমালার মধ্য সীমাবদ্ধ রাখা অবশ্যই জরুরি। তবে সে নীতিমাল ব্যক্তির স্বাধীনতা ও উন্মুক্ত কাজের পরিবেশ বিবেচনায় তৈরি হওয়া উচিত। --দেলোয়ার () • ১৯:০৫, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান - মোহাম্মদ নাবিল[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু -১[সম্পাদনা]

এ আলোচনার মতো অনেক গুরুত্ব পূর্ণ আলোচনা ও সিদ্ধান্ত প্রায়ই গ্রহণ করা হয়। প্রায় সময় শেষের দিকে জানতে পারি অথবা পরে দেখতে পাই। এজন্য আলোচনার সূত্রপাত হওয়ার সময় সক্রিয় উইকিপিডিয়ানদেরকে বার্তা দেয়া উচিত বলে বিবেচনায় নেয়া যেতে পারে। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে ৭ বা ১৫ দিনের এডিটাথনগুলোর ক্ষেত্রেও একই কথা বলবো। অন্তত একটি বার্তা দেয়া উচিত। আগে এসব নিয়ে বার্তা দেয়া হতো। যাতে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা যায়।

বিষয়বস্তু -২[সম্পাদনা]

অবশ্যই আচরণবিধি সম্পর্কে নীতিমালা প্রণয়ণ ও সম্প্রসারণ প্রয়োজন রয়েছে। নচেৎ নানা চিন্তার উইকিপিডিয়ানদেরকে নির্দিষ্ট নীতিমালার মধ্যে রাখা জটিল হয়ে যাবে। আরও একটি বিষয়- ছোট/সংক্ষিপ্ত নিবন্ধ তৈরি অথবা ইংরেজিতে থাকা বড় একটি নিবন্ধের শুধু ভূমিকাংশটুকো অনুবাদ করা। এ নিয়ে বার্তা দিলে খুব কম সংখ্যক উইকিপিডিয়ান প্রত্যুত্তর করেন। বরং দেখা যায় আগ থেকেই কয়েকজন তাকে এ ইস্যুতে বার্তা দিয়ে রেখেছেন কিন্তু তিনি তার উত্তর না দিয়ে সংক্ষিপ্ত তৈরি করেই যাচ্ছেন। তাই এ নিয়ে কথা বলতে আর আগ্রহ থাকে না। এ তালিকায় নতুন ও পুরোনো উইকপিডিয়ানরা রয়েছেন। এজন্য নীতিমালা তৈরি করা প্রয়োজন বলে মনে করি।

তাছাড়াও[সম্পাদনা]

ব্যবহারকারী: @ZI Jony, Suvray, Dolon Prova, Ibrahim Husain Meraj, RockyMasum, এবং DelwarHossain: এর মতামতের সাথেও একাত্মতা পোষণ করছি।--নাবিল (✉) ২১:৩৬, ৩১ মার্চ ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

মতামত প্রদান – তানভির রহমান[সম্পাদনা]

বিষয়বস্তু – ১

জনি ভাইয়ের সুন্দর গোছানো মতামতের সাথে অনেকাংশে একতা প্রকাশ করছি ও ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমার কাছে আচরণবিধির সবচেয়ে গুরুতর সমস্যা হচ্ছে হয়রানিমূলক বক্তব্য যা বার বার ঘটে, এবং বর্তমানে তা পরিকল্পনা করে করা হয়। দুঃখের বিষয় এতে উইকিপিডিয়া সম্পর্কে জানেন এমন ব্যবহারকারীরাই জড়িত, তাই তাদের ঠেকানো কষ্ট হয়ে যায়। বাংলা উইকিপিডিয়ার ক্ষেত্রে এ ধরনের ব্যবহারকীদের জন্য বাধাদান, অ্যাকাউন্ট বন্ধকরণের মতো সুবিধা থাকলেও, ব্যবহকারী পরীক্ষকদের আরও বেশি সক্রিয়তা আশা করি যাতে তাদের সকপাপেটগুলোর তৈরি বন্ধ করা যায়, এ বিষয়টি গ্লোবালিও হওয়া প্রয়োজন। অর্থাৎ সক তৈরিকারী আইপিটি যেনো অন্য প্রকল্পে গিয়ে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে এখানে সমস্যা সৃষ্টি না করে তা দেখা প্রয়োজন। এ বিষয়ে কারিগরী বিষয়ে অভিজ্ঞদের নিয়ে নির্দিষ্ট বৈশ্বিক কারিগরী টাস্কফোর্স করা হলে তাতে বাংলা উইকিপিডিয়ার মতো প্রকল্পগুলো উপকৃত হতো। এতে কার্যকরীভাবে ব্যবহারকারী পরীক্ষণ, ব্ল্যাকলিস্ট, অ্যাবিউস ফিল্টার ব্যবহারে সুবিধা পাওয়া যায়। এগুলোর স্থানীয় ও বৈশ্বিক দুইধরনের সংস্করণ থাকতে পারে। ধ্বংসপ্রবণতা বিচ্ছিন্নভাবে হলেও কিছু ধ্বংসপ্রবণতা পরিকল্পনামাফিক বারবার হয়। আবার কিছু নিবন্ধ ক্রসউইকি স্প্যামিংয়ের স্বীকার হয় (যেমন সব উইকিতে গিয়ে নির্দিষ্ট ছবি বা লিংক যোগ করা), সেগুলোর ক্ষেত্রে সকল উইকিতে সীমিত সময়ের জন্য একসাথে সুরক্ষা সেটিংস প্রয়োগ করা যেতে পারে, কিন্তু অবশ্যই শুধু প্রশাসকদের জন্য নয় বরং স্বনিশ্চিতকৃত বা নিশ্চিতকৃত ব্যবহারকারীদের জন্য, বা গ্লোবাল পেন্ডিং রিভিউ সেটিংস আরোপের মতো সুবিধা চালু করা যেতে পারে।

অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা ও পেশাগতভাবে উইকিপিডিয়া সংক্রান্ত কাজ করা দুই ব্যাপার এবং কিছু ক্ষেত্রে একই রকম বা কাছাকাছি। এ বিষয়ে উইকিমিডিয়া বৈশ্বিকভাবে আলোচনা করে সিদ্ধান্তে আসলেও তার প্রচার ও প্রভাব বৈশ্বিকভাবে পড়েনি। এটি তাই বৈশ্বিক আচরণবিধির আওতায় এনে সবাইকে এ বিষয়টি যে খারাপ ও ভালো উভয় দিক-ই থাকতে পারে ও কোথায় স্বচ্ছতা প্রয়োজন সে বিষয়গুলো বিস্তারিত জানাতে হবে। এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নিলে তা যে ব্যবহারকারীর বিপক্ষে নেওয়া হচ্ছে তার কাজটি অসচেতনতামূলক নাকি অসততামূলক সেটি বিবেচনায় নিয়ে পদক্ষেপটি আঞ্চলিক ও বৈশ্বিক দুই ধরনের নেওয়ার মতো সুযোগ রাখতে হবে এবং সেখানে যেখানে অপরাধটি প্রথমে ঘটেছে সেই সম্প্রদায়ের মতামতের গ্রহণযোগ্যতা বেশি থাকা উচিত বলে মনে করি (অবশ্যই বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে আলোচনার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা থাকবে)।

ব্যক্তিগত গোপনীয়তা লঙ্ঘন, এর স্বীকার ব্যবহারকারীদের প্রয়োজনীয় আইনগত সেবা ও সুরক্ষা দেওয়া জরুরী মনে করি। সেই সাথে সচেতনতা তৈরি করাও খুবই জরুরী। অনেকেই হয়তো দেখেছেন যে আমাদের উইকিতে অনেক নতুন ব্যবহারকারী পাতায় অবলীলায় ফোন নম্বর, জন্ম তারিখ, লিগাল নাম, অবস্থান, বাবা-মার নাম সব তথ্য দিয়ে দিচ্ছেন। এতে বাস্তব জীবনে তাদের লোকেট করা সহজ হয়ে যায়, এবং পরবর্তী জীবনে তারা সমস্যায় পড়তে পারেন। এ বিষয়ে তারা যেনো তথ্য না দেন ও দিলেও ওভারসাইটের মাধ্যমে যে তারা সেই ভুল সংশোধন করতে পারেন সে বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করতে আমাদের সক্রিয়ভাবে চেষ্টা করা জরুরী। এ ধরনের অপব্যবহারের স্বীকার হলে, অর্থাৎ অন্যের আচরণগত সমস্যার কারণে কোনো অবদানকারী সমস্যার স্বীকার হলে বৈশ্বিক নীতিমালার আওতায় কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ রাখা উচিত, কারণ এক প্রকল্পে যে এই অপরাধ করে, সে অন্য প্রকল্পে কাজ করারও নৈতিক অধিকার হারায়।

উপরে মেরাজ ভাইয়ের উল্লেখ করা ‘উল্লেখযোগ্যতা নীতিমালা না মানতে চাওয়া (সংকীর্ণভাবে উইকিকে চিন্তা করা)’, ‘নতুনদের আক্রমণ’, ‘ধর্ম/বর্ণ/দেশ ভিত্তিক পক্ষপাতিত্ব’, ‘আমি যা মনে করি সেটাই ঠিক মনে করা’ বা নিজের মতামতকে বা দর্শনকে বেশি গুরুত্ব দেওয়ার মতো বিষয়গুলোতে বৈশ্বিক নীতিমালার প্রয়োগ করা প্রয়োজন। কারণ এগুলো কোনো প্রকল্পের উন্নয়নের অন্তরায়। আমরা বাংলাতে নীতিমালা করে বিষয়টি ঠিক করতে পারি, কিন্তু বৈশ্বিক নীতিমালার রেফারেন্স আমাদের জন্য সহায়ক হবে।

বিষয়বস্তু – ২

বৈশ্বিক নীতিমালার প্রয়োজন রয়েছে এবং একটি বৈশ্বিকভাবে গ্রহণযোগ্য একটি নীতিমালা রেফাসেন্স হিসেবে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে ও বিবেচনা করতে সাহায্য করবে। বিশেষ করে ছোট ও তুলনামূলকভাবে অপরিপক্ক প্রকল্পগুলোর ব্যবহারকারীদের উইকির চর্চা বোঝাতে এটি খুব-ই সহায়ক হবে বলে আমি মনে করি। এটির আরেকটি উপকারী দিক হচ্ছে কোনো গুরুতর বিষয় যে আসলেই কতোটা গুরুতর তা আলোচনাকারীদের বোঝাতে সাহায্য করবে। তবে সাধারণভাবে সেটি আওতা এমন হওয়া উচিত যে বাংলা উইকিপিডিয়া সম্প্রদায়ের উপরে কর্তৃত্বমূলক কোনো নীতিমালা যেনো সেটি না হয়। সম্প্রদায়ের পরিধির উপর ভিত্তি করে তাদের কর্তৃক আচরণবিধি সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত-ই চূড়ান্ত হতে হবে এবং সেটি ক্ষেত্র বিশেষে যদি বৈশ্বিক নীতিমালার কোনো পয়েন্টের সাথে সাংঘর্ষিক হলেও। কারণ আচরণবিধির ব্যাখ্যা এক এক প্রকল্পের ব্যবহারকারীদের নিজস্ব আচরণের কারণে ভিন্ন হতে পারে, তাই সম্প্রদায়ের মনোভাবের গুরুত্ব বেশি হওয়া উচিত। ‍‍‍— তানভির • ০৯:০০, ১ এপ্রিল ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]

আচরণবিধি দিকনির্দেশনাতে কোন কোন বিষয় অবশ্যই উল্লেখ থাকা প্রয়োজন?[সম্পাদনা]

মতামত প্রদান – জনি[সম্পাদনা]

  • হয়রানিমূলক বার্তা/বক্তব্য
  • ধ্বংসপ্রবণতা
  • স্প্যামিং
  • অর্থের বিনিময়ে সম্পাদনা
  • ব্যক্তিগত গোপনীয়তা
  • ব্যক্তিগত আক্রমন
  • সম্পাদনা দ্বন্দ্ব
  • ব্যবহারকারীর আলাপ পাতার সঠিক ব্যবহার
  • জোটবদ্ধ হয়ে কোন কাজকে সম্পূর্ণ / সম্পন্ন করতে না দেয়া
  • জোরপূর্বক স্বীয় মতামত চাপিয়ে না দেয়া
  • নতুনদের প্রতি সদয় হওয়া
  • নতুন ব্যবহারকারীর ছোটখাটো ভুল নিজে সংশোধন করে নেয়া
  • ধর্ম/বর্ণ/দেশ ভিত্তিক পক্ষপাতিত্ব করতে না দেয়া
  • উইকিপিডিয়ানদের মধ্যে পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ তৈরি
  • সকপাপেট তৈরি বন্ধ করা

মতামত প্রদান – অংকন (আলাপ)[সম্পাদনা]

  • যেকোনোরকম বৈষম্য/হয়রানিমূলক বার্তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া (হয়রানিকারী নিয়ম জানে না এটার যৌক্তিকতা উপেক্ষাপূর্বক)
  • সমাজভেদে কিছু শিষ্টাচার লঘুভাবে দেখা হলেও কেউ কেউ তা আপত্তিকর মনে করতে পারে (ব্যক্তিগত আলাপ প্রকাশ ইত্যাদি), এ ব্যাপারে খেয়াল রাখা এবং কেউ এমন তথ্য প্রকাশ করে অপরের সম্মানহানি করলে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া (অবশ্যই হয়রানিমূলক বক্তব্য প্রকাশ এর মধ্যে পড়বে না)
  • নবাগতদের ক্ষেত্রে ব্যবহারের স্থানীয় বিধি (প্রয়োজনে বৈশ্বিক বিধির সমন্বয়পূর্বক) অভিজ্ঞরাও যেন মেনে চলেন সে ব্যাপারে লক্ষ্য রাখা
  • স্থানীয় পর্যায়ের ছোটখাটো বৈঠকেও (বড় অনুষ্ঠান, সম্মেলনে তো অবশ্যই) অফলাইন বিধি মেনে চলা; অনাকাঙ্ক্ষিত অসম্মানজনক বা হয়রানিমূলক কথা, স্পর্শ ইত্যাদির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া। একইসাথে প্রতিটি অনুষ্ঠান বা বৈঠকে দায়িত্বপূর্ণ কাউকে নির্বাচন করা যার সাথে প্রয়োজনে এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা যাবে
  • অসৎ উদ্দেশ্যে এই আচরণবিধির ব্যবহার করতে চাইলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া

মতামত প্রদান – তানভির মোর্শেদ[সম্পাদনা]

  • পারস্পারিক সম্মানবোধ ও শিষ্টাচার, যা বাংলাদেশের ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক রীতির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ
  • অপরিচিত কোন উইকিমিডিয়ানের প্রতি ইতিবাচক মনোভাব ধারণ করা (assuming good faith)
  • সামাজিক পরিসরে সহিষ্ণুতা বজায় রাখা এবং অন্যের মতামতকে সম্মান প্রদর্শন করা
  • এসব নীতিমালা ভঙ্গ করলে শাস্তি ও ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা রাখা
  • স্থানীয় আইন পালন ও তার প্রতি সম্মান জ্ঞাপন করা

আচরণবিধি দিকনির্দেশনাতে কোন কোন বিষয় থাকা উচিত নয় বলে মনে করেন?[সম্পাদনা]

মতামত প্রদান – জনি[সম্পাদনা]

  • ছোট বড় সকল বিষয় উল্লেখ করা, যেখানে কোন বিষয় বাদ দেয়া উচিত নয় বলে মনে করি।

মতামত প্রদান – অংকন (আলাপ)[সম্পাদনা]

  • কোনো নির্দিষ্ট দেশীয় সংস্কৃতিকেন্দ্রিক বিধি তৈরি, যা বৈশ্বিক পর্যায়ে যেতে পারেনা

নীতিমালা তৈরি হওয়ার পর কার দ্বারা ও কোন প্রক্রিয়ায় এর প্রয়োগ করা যেতে পারে? স্থানীয় দল দ্বারা নাকি বৈশ্বিক কোন দল দ্বারা নীতিমালা প্রয়োগ করা উচিত?[সম্পাদনা]

মতামত প্রদান – জনি[সম্পাদনা]

  • ইতিমধ্যে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন, স্টুয়ার্ড এবং ন্যায়পাল কমিশন আলাদা ভাবে কাজ করছে
  • অভিজ্ঞদের নিয়ে নির্দিষ্ট বৈশ্বিক কারিগরী টাস্কফোর্স তৈরি করা।
  • স্থানীয় ও বৈশ্বিক আলাদা ভাবে টাস্কফোর্স তৈরি করা।
  • স্থানীয় টাস্কফোর্স যেখানে অপরাধটি প্রথমে ঘটেছে সেই সম্প্রদায়ের মতামতের সাথে সাথে পর্যালোচনা/পরিদর্শন এবং তদন্ত করবে।
  • বৈশ্বিক টাস্কফোর্স বৈশ্বিক পরিমণ্ডলে স্থানীয় টাস্কফোর্সে সাথে আলোচনা করে স্বচ্ছতা সাথে চূড়ান্ত সিধান্ত নিবেন।

মতামত প্রদান – অংকন (আলাপ)[সম্পাদনা]

  • বিভিন্ন অঞ্চলের প্রতিনিধি দ্বারা তৈরি বৈশ্বিক দল (এক সম্প্রদায়ে এক স্থানীয় দল না করে বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রতিনিধি নিয়ে বৈশ্বিক দল তৈরি), সদস্য পর্যাপ্ত রাখা যেন দ্রুত ব্যবস্থাগ্রহণ সম্ভব হয়

মতামত প্রদান - sukan (আলাপ)[সম্পাদনা]

  • বাংলা উইকিপিডিয়ায় আমরা যারা সম্পাদনার কাজ করি, তাদের মধ্যে ঐকমত্যের ভিত্তিতেই আচরণবিধি তৈরি হওয়া জরুরি বলে আমি মনে করি। এখানে যেহেতু সকলেই স্বেচ্ছাশ্রমদানকারী, সেজন্যে প্রত্যেক সম্পাদকের কাজকে গুণমান যাচাইয়ের ভিত্তিতে উত্তীর্ণ হলে অবশ্যই মান্যতা দেওয়া উচিত। ভুলত্রুটি হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে অবগত করানোর ব্যাপারটা এর মধ্যেই পড়ে। এই প্রসঙ্গে একটা ঘটনার উল্লেখ না-করে পারছিনা। আমি কিছুদিন আগে 'History of Music' ইংরেজি থেকে বাংলায় অনুবাদ করে 'সংগীতের ইতিহাস' পাতা তৈরি করেছিলাম। (৮০,০০০) আশি হাজারের বেশি বাইটের ওই পাতাটা জানিনা কোন্ অপরাধে আমাকে না-জানিয়েই মুছে ফেলা হয়েছে? এখন দেখুন সংশ্লিষ্ট ইংরেজি পাতার বাংলা নেই। এমনকি সংশ্লিষ্ট আলাপ পাতা এবং অবদানের চিহ্নও মুছে ফেলা হয়েছে। প্রথম দিকে কারিগরি দিকটা না-জেনে কিছু ভুলভাল করে বসি, সেই সময় কেউ কেউ আমার কাজের মধ্যে ধ্বংসপ্রবণতা দেখেছিলেন। আর পরবর্তীতে কী দেখলাম? আমার কাজই ধ্বংসস্তূপে পর্যবসিত হয়ে গেল। তাহলে আমি কী পণ্ডশ্রম করে যাচ্ছি?

মতামত প্রদান – তানভির মোর্শেদ[সম্পাদনা]

  • বৈশ্বিক দল দ্বারাই প্রয়োগ করা যেতে পারে, তবে এক্ষেত্রে স্থানীয় পর্যায়ে একটি কমিটি থাকা উচিত যা প্রয়োজনে বৈশ্বিক সেই দলকে তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে সাহায্য করতে পারে। স্থানীয় কমিটি অবস্থার পর্যবেক্ষণ ও সঠিক তথ্য সংগ্রহ বা তদন্তে বৈশ্বিক দলকে সাহায্য করতে পারে।

মতামত প্রদান – মাসুম-আল-হাসান[সম্পাদনা]

  • স্থানীয় এবং বৈশ্বিক দুই দলের সমন্বয়েই এটি করা উচিত। স্থানীয় দল সরাসরি নীতিমালা প্রয়োগের কাজটি করবে। বৈশ্বিক দলের কাজ হবে স্থানীয় দলগুলির মাঝে সমন্বয় সাধন করা এবং প্রয়োজনে অন্যান্য সহায়তা দেয়া।

সবাইকে ধন্যবাদ ও আলোচনার সারমর্ম[সম্পাদনা]

প্রিয় সবাই, এই আলোচনায় অংশ নিয়ে যাঁরা মতামত দিয়েছেন তাঁদের সবাইকে ধন্যবাদ। অনউইকি, ১:১ কল ও অফউইকিসহ বিভিন্নভাবে নতুন ও পুরাতন বেশ ব্যবহারকারী এই আলোচনায় তাঁদের মতামত দিয়েছেন। এর ভিত্তিতে একটি সারমর্ম প্রস্তুত করেছি। এই আলোচনা পাতার সাথে সাথে সম্প্রদায়ের মেইলিং লিস্টসমূহ, ফেসবুক গ্রুপ, চ্যাট গ্রুপসহ সতন্ত্রভাবে সম্প্রদায়ের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছিলো। এছাড়া, উইকিপিডিয়ার গণবার্তা ফিচার ব্যবহার করে গণবার্তা পাঠানো হয়েছিলো। সম্প্রদায়ের অধিকাংশ সদস্য যাতে তাঁদের মতামত ও অভিপ্রায় ব্যক্ত করতে পারেন তাই বিভিন্ন মাধ্যম/পর্যায়ে আলোচনার পাশাপাশি এ সম্পর্কিত জরিপে অংশ নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিলো। একটা ব্যাপার লক্ষ্যনীয় যে, বাংলা উইকিপিডিয়ার সম্প্রদায়ের সদস্যগণ অনউইকি মতামত দেওয়ার চাইতে ১:১ কলে মতামত দিতে স্বাচ্ছন্দবোধ করেন :) যাঁদের সাথে আলোচনা হয়েছে তারা সকলেই মতামত দিয়েছেন।

এছাড়া, বাংলা উইকিপিডিয়া নিয়ে কাজ করা আঞ্চলিক বিভিন্ন দলের সাথে যোগাযোগ করে তাদের মতামত নেওয়া হয়। এর মধ্যে উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ চ্যাপ্টার এবং এর আওতাধীন আঞ্চলিক সম্প্রদায়সমূহ, পশ্চিমবঙ্গ উইকিমিডিয়ানস ইউজারগ্রুপ এবং সাঁওতালি উইকিপিডিয়া ইউজারগ্রুপও রয়েছে। উইকিমিডিয়া বাংলাদেশ বোর্ড তাদের বোর্ডসভা এবং বোর্ডের প্রাইভেট মেইলিং লিস্টে আলোচনা করে ‘এমন বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা থাকা প্রয়োজন’ বলে মত দেন। এর ফলে ‘উইকিমিডিয়া প্লাটফর্মে বৈষম্য/হয়রানি অনেকাংশেই কমবে’ বলে তারা মনে করেন।

পশ্চিমবঙ্গ ইউজারগ্রুপ নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে বৈশ্বিক আচরণবিধি নির্দেশনা তৈরির বিষয়ে তাঁদের কোন বক্তব্য নেই বলে জানায়। তাঁরা অভিযোগ করেন, ‘অতীতে বিভিন্ন বিষয়ে পর্যবেক্ষণ করে বা মতামত দিয়ে সেই অভিজ্ঞতা থেকে তাঁরা ধারণা করেছেন, ফাউন্ডেশন কমিউনিটির মতামতকে গুরুত্ব নাও দিতে পারে’। এর বাইরে সম্প্রতি প্রতিষ্ঠিত হওয়া সাঁওতালি ইউজার গ্রুপ নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে হয়রানি ও অভদ্র আচরণ রোধে নির্দেশনাটি কাজে আসবে বলে মত দেন।

আলোচনা চলাকালীন বেশিরভাগ অংশগ্রহণকারী উইকিমিডিয়া প্রকল্পে আক্রমণাত্মক / অশোভন আচরণ / হয়রানি, অবদানকারী ধরে রাখা, সম্পাদনা যুদ্ধ, গোপনীয়তা সংক্রান্ত সমস্যা, স্প্যামিং এবং সর্বপোরি ধ্বংসপ্রবণতা সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। অনউইকি ও অফউইকি অংশগ্রহণকারী সবাই এই প্রকল্পের ব্যাপারে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন এবং সবাই যে মতামতগুলো দিয়েছেন তার সারাংশ অনেকটা এরকম:

  • এই বিধিমালা বিভিন্ন প্রকল্পে অনুরূপ এবং / অথবা নিয়মিত আক্রমণাত্মক / অভদ্র আচরন মোকাবেলায় ভূমিকা রাখবে।
  • লিঙ্গ, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবার জন্য উইকিমিডিয়া আন্দোলনের ভেতর একটি সম্মানজনক ও হয়রানিমুক্ত পরিবেশ তৈরি করবে এবং অবদানকারী ধরে রাখা সংক্রান্ত উইকি প্রকল্পে যে দীর্ঘমেয়াদী সমস্যা সেটি কিছুটা হলেও কমাতে ভূমিকা রাখবে।
  • গ্রহণযোগ্য একটি নীতিমালা রেফাসেন্স হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। বিশেষ করে ছোট ও তুলনামূলকভাবে অপরিপক্ক প্রকল্পগুলোর ব্যবহারকারীদের উইকির চর্চা বোঝাতে ও বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে এটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
  • অপ্রয়োজনীয় সম্পাদনা যুদ্ধ প্রতিরোধ এবং গোপনীয়তা বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নিতে ব্যবহারকারীদের সহায়তা করবে।
  • অনেক সময় অনভিজ্ঞ ব্যবহারকারীরা বিভিন্ন সমস্যায় পড়ে যেমন কিছুক্ষেত্রে অভিজ্ঞ ব্যবহারকারীরা তাদের মতামত অন্য অনভিজ্ঞদের উপর চাপিয়ে দিতে দেখা যায়। এসবক্ষেত্রে এই বিধিমালা সাহায্য করতে পারে।
  • মতামত প্রদানকারীগণ আর্থিক অনৈতিক লেনদেন নিয়েও কথা বলেছেন। এ ধরণের ক্ষেত্রে সম্প্রদায়ের স্বেচ্ছাসেবী কার্যক্রমকেই প্রশ্নের মুখে ঠেলে দেয়। এ ধরণের অনৈতিক আর্থিক লেনদেনের বিষয়ে ব্যবহারের শর্তাবলী আরো কঠোরভাবে প্রয়োগ করা উচিত এবং এটি বিধিমালাতে যুক্ত করা উচিত।
  • স্থানীয় সম্প্রদায় যাতে তাদের সংস্কৃতি ও স্থানীয় প্রেক্ষাপটে নীতিমালার অনুচ্ছেদ সংযোজন ও বিয়োজন করতে পারে সে ব্যবস্থা রাখা উচিত।
  • নীতিতে পারস্পরিক শ্রদ্ধা এবং শিষ্টাচারের উল্লেখ করা উচিত, কারও ধর্মীয় এবং / অথবা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সাথে যাতে এটি সামঞ্জস্যপূর্ণ হয়।
  • কিছু কিছু ক্ষেত্রে এক সম্প্রদায় হয়ত কোন কোন বিষয় হালকাভাবে নিতে পারে আবার অন্য সম্প্রদায়ই উক্ত বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নিতে পারে। এ বিষয়টিও খেয়াল রাখা প্রয়োজন।
  • সামাজিক পরিসরে সহিষ্ণুতা বজায় রাখা এবং অন্যের মতামতকে সম্মান প্রদর্শন করা উচিত।
  • যে কোনও প্ল্যাটফর্মে স্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরির জন্য কিছু নৈতিক নির্দেশিকা থাকা প্রয়োজন তবে এটি একটি ব্যাখ্যামূলক পোতা হিসেবে থাকা উচিত।

যে সব সম্প্রদায়ে এই আলোচনাটি হয়েছিলো সব কিছু মিলিয়ে একটি প্রতিবেদন মেটায় প্রকাশ করেছে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন। এখানে পড়ুন। মূল নীতিমালাটির খসড়া এ বছরের শেষের দিকে হয়ত দেখতে পারবো। ধন্যবাদ। – নাহিদ (আলাপ) ১৮:৫১, ১৮ জুন ২০২০ (ইউটিসি)[উত্তর দিন]