আলাপ:ঢাকা কলেজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
Good article ঢাকা কলেজ নিবন্ধটি ভালো নিবন্ধের জন্য মনোনীত হয়েছিল; কিন্তু সে সময়ে এটি ভালো নিবন্ধের মানদণ্ড সম্পূর্ণরূপে পূরণ করতে পারে নি। নিচে নিবন্ধটির উন্নয়নের ব্যাপারে কিছু পরামর্শ থাকতে পারে। এসব সমস্যা নিরসন হলে নিবন্ধটি পুনঃমনোয়ন করা যেতে পারে. সম্পাদক যদি মনে করেন যে নিবন্ধটি সঠিকভাবে মূল্যায়িত হয় নি, তবে তিনি পুনর্মূল্যায়নের আবেদন করতে পারেন।
এপ্রিল ২২, ২০২০ প্রস্তাবিত ভাল নিবন্ধ তালিকাভুক্ত নয়


ভালো নিবন্ধের পর্যালোচনা[সম্পাদনা]

ঢাকা কলেজ নিবন্ধটিতে প্রাথমিকভাবে আমি বানান ও সম্পাদনার কাজ করলাম এবং খানিকটা তথ্য সংগঠনের কাজ করলাম। আপাতত নিবন্ধটিতে যে ধরণের অস্পষ্টতা আছে বলে মনে হচ্ছে:

  1. কলকাতা বানানটিকে "কোলকাতা" লেখা আছে। বুঝতে পারছি না এটা কি ঐতিহাসিক বানান, নাকি বানান ভুল।
  2. নিবন্ধের ঐতিহাসিক পর্যালোচনাগুলো কি কপিরাইটমুক্তভাবে উল্লেখিত হয়েছে কিনা এসম্বন্ধে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। অবদানকারীদের থেকে এবিষয়ে নিশ্চয়তার অপেক্ষা করা যেতে পারে।
  3. নিবন্ধের তথ্যসূত্রগুলো বিস্তারিত নয়। যেমন: "2. ↑ দৈনিক প্রথম আলো, ০৯ সেপ্টেম্বর ২০০৭; পৃষ্ঠা:৮"-তে প্রকাশিত নিবন্ধের নাম কিংবা নিবন্ধকার/প্রতিবেদকের নাম উল্লেখ নেই। "7. ↑ পূর্ণেন্দুপত্রী, সেনেট হল, পৃ:৭৩-৭৪" আসলে কী? এটা কি সাময়িকী, নাকি প্রবন্ধ সংকলন, নাকি ঐতিহাসিক গ্রন্থ, সেটা পরিষ্কার না বিস্তারিত তথ্যের অভাবে। এরকম আরো বহু আছে। সেসকল ক্ষেত্রে "প্রকাশনা সংস্থা"র নাম, "লেখক বা নিবন্ধকার"-এর নাম, "নিবন্ধের নাম" উল্লেখ জরুরি মনে করছি। আর সম্ভব হলে "প্রকাশকাল", "সংস্করণ" ইত্যাদি উল্লেখের অনুরোধ করছি। খুব ভালো হয় যদি {{citenews}}, {{citebook}} এবং {{citeweb}} টেমপ্লেটগুলো কাজে লাগানো যায়।
  4. নিবন্ধের একমাত্র টেবিলটির কোনো ক্যাপশন নেই। তাছাড়া color tone বিষয়ে আমার ব্যক্তিগত আপত্তি আছে (অন্যান্যরা সহমত হলে তা এভাবেই রাখা যেতে পারে)। তাছাড়া ওটাকে ফ্লোটিং অবস্থায় যে কোনো একপাশে (ডানে/বামে) সাজানো যেতে পারে।
  5. ঢাকা কলেজের ইতিহাস নিয়ে যত কথা আছে, বর্তমান ঢাকা কলেজ নিয়ে তার বিন্দুমাত্রও নেই। ঢাকা কলেজের বর্তমান দুর্বিষহ হাল, রাজনৈতিক হাল-হকিকত, শিক্ষার মানগত অবনতি -এসব বিষয়ে প্রচুর [ তথ্যসূত্র] থাকলেও তার উল্লেখ এই নিবন্ধে নেই। একুশ শতকের বিবরণ আরো বেশি বেশি দরকার।
  6. তথ্যছকে তথ্যের পরিমাণ আরো বাড়ানো যেতে পারে বর্তমান তথ্যগুলো দিয়ে।

আপাতত এই সমস্যাগুলো পাওয়া গেলো। মন্তব্য অথবা কার্যক্রম আশা করছি। —মঈনুল ইসলাম (আলাপ * অবদান) ০৪:০৯, ৩ অক্টোবর ২০১০ (ইউটিসি)

নিবন্ধটি ২-৭ দিনতো দূরে থাক, ৫ মাসেও কাঙ্ক্ষিত সংশোধন-প্রপ্ত হয়নি। তাই আপাতত নিবন্ধটিকে ভালো নিবন্ধের প্রস্তাবনা থেকে বাদ দেয়া হলো। তবে উপর্যুক্ত সমস্যাগুলো সংশোধনস্বাপেক্ষে যেকোনোসময় নিবন্ধটি আবার ভালো নিবন্ধ করার প্রস্তাবনা রাখা যাবে। ধন্যবাদ। —মঈনুল ইসলাম (আলাপ * অবদান) ২১:৩৮, ১৬ এপ্রিল ২০১১ (ইউটিসি)

কলেজের শেষে বিশ্ববিদ্যালয় টেমপ্লেটের ব্যবহার[সম্পাদনা]

ঢাকা কলেজ নিবন্ধটির শেষে {{বাংলাদেশের সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়}} শীর্ষক নির্দেশকিা ফলকটি ব্যবহার করা হয়েছে। ঢাকা কলেজ এখনো পরর্যন্ত কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় হিসাবে উন্নীত নয় বিধায় এ নির্দেশকিা ফলকটি প্রাসংঙ্গিক মনে হচ্ছে না। বিবেচনার জন্য আবেদন। -- Faizul Latif Chowdhury (আলাপ) ১৪:৫১, ২৬ এপ্রিল ২০১৪ (ইউটিসি)

লোগো সংস্করণ[সম্পাদনা]

ঢাকা কলেজের এই লোগোটি পুরোনো বর্তমান লোগো থেকে অনেক আলাদা। কেউ দয়া করে, বর্তমান লোগোটি আপলোড করুন। MuttakiSakib (আলাপ) ২০:০৮, ২৮ জানুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

Gnome-edit-redo.svgMuttakiSakib: নতুন লোগো কোনটি? --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ২০:১০, ২৮ জানুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

এটা ঢাকা কলেজের নতুন লোগো https://drive.google.com/file/d/1mBuj9bVLdpGzrauIqRY0Ly5XE-nLjaKO/view?usp=drivesdk MuttakiSakib (আলাপ) ১৪:৩৭, ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

Gnome-edit-redo.svgMuttakiSakib: আমি লোগোর মাঝে খুব একটা পার্থক্য দেখতে পাচ্ছি না। যাইহোক, অনুগ্রহ করে লোগোর বাংলা সংস্করণ দিন। --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ১৭:৫৯, ২৯ জানুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

নতুন লোগোর কোনো ইংরেজি ভার্শন নেই। MuttakiSakib (আলাপ) ১৭:০২, ৩০ জানুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

এখনকার মত X mark.svg করা হয়নি। আমি দেখি যদি পারি নতুনটির বাংলা সংস্করণ আপলোড করে দিব। --আফতাবুজ্জামান (আলাপ) ১৪:৪৩, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ (ইউটিসি)

ঢাকা কলেজ এর জন্য কার্জন হলের নির্মাণ হয়েছে।[সম্পাদনা]

রাজধানী ঢাকার লাল রঙের দৃষ্টিনন্দন একটি স্থাপত্য যে কারও নজর কাড়বে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় অবস্থিত এই ভবন কার্জন হল নামেই পরিচিত। ভিক্টোরীয় স্থাপত্যরীতি, মোগল স্থাপত্যশৈলী ও বাংলার স্বতন্ত্র সংবেদনশীল বৈশিষ্ট্য নিয়ে ভবনটি তৈরি। ১৯০৪ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি ভারতবর্ষে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের প্রতিনিধি ভাইসরয় লর্ড কার্জন ন্যাথনিয়েল কার্জন ঢাকায় এসে কার্জন হলের উদ্বোধন করেন। ১৯০৮ সালে এর নির্মাণকাজ শেষ হয়। ফেসবুকে সক্রিয় ‘ঢাকা: ফোর হানড্রেড ইয়ারস হিস্ট্রি ইন ফটোগ্রাফ’ শীর্ষক একটি পাতায় ১৯০৮ সাল ও পরবর্তী সময়ের কার্জন হলের তিনটি পুরোনো ছবি পাওয়া গেল। ইতিহাসবিদ আহমদ হাসান দানীসহ কারও কারও মতে, উনিশ শতকের শেষভাগ থেকেই ঢাকা সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে মুখরিত হয়ে ওঠে। সভা, আলোচনা, বিতর্ক, সংবর্ধনাসহ নানা অনুষ্ঠানের জন্য একটি টাউন হল নির্মাণের দাবি ওঠে। সে জন্যই এটি নির্মাণ করা হয়েছিল। জাতীয় জ্ঞানকোষ বাংলাপিডিয়াতেও বলা হয়েছে, ভারতের ভাইসরয় লর্ড কার্জনের নামানুসারে এ ভবন টাউন হল হিসেবে নির্মিত হয়েছিল। ১৯১১ সালে বঙ্গভঙ্গ রদ হলে এটি ঢাকা কলেজ ভবন হিসেবে ব্যবহৃত হতে থাকে। ১৯২১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হলে ভবনটি বিজ্ঞান বিভাগের অংশ হিসেবে ব্যবহৃত হতে শুরু করে এবং এখনো এভাবেই চলছে। তবে শরীফ উদ্দিন আহমেদ সম্পাদিত ঢাকা কোষ-এ বলা হয়েছে, কার্জন হল মূলত ঢাকা কলেজের নতুন ভবন হিসেবে নির্মাণ করা হয়েছিল। বাংলাপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, ১৯৪৮ সালে জিন্নাহ যখন এই কার্জন হলে উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা ঘোষণা দেন, তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা এখান থেকে প্রথম প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন। কেউ যদি আজও কার্জন হলের মূল ভবনের সামনে যান, তবে ১৯০৪ সালে লর্ড কার্জনের উদ্বোধন করা নামফলকটি দেখতে পাবেন। পরবর্তী সময়ে বিজ্ঞান অনুষদের বিভাগের সংখ্যা বাড়ায় কার্জন হলের অবয়বের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে অন্য ভবনগুলো নির্মাণ করা হয়। ১১২ বছর ধরে ঢাকার অন্যতম শ্রেষ্ঠ স্থাপত্য আর কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে কার্জন হল। Sakayat (আলাপ) ০৮:২৫, ২ জুন ২০১৯ (ইউটিসি)