আর্থার বারেট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আর্থার বারেট
আর্থার বারেট.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামআর্থার জর্জ বারেট
জন্ম৪ এপ্রিল, ১৯৪৪
কিংস্টন, জ্যামাইকা
মৃত্যু৬ মার্চ, ২০১৮
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ ব্রেক গুগলি
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ১৩৫)
১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭১ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট২৩ জানুয়ারি ১৯৭৫ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৫৭
রানের সংখ্যা ৪০ ১,০৮৬
ব্যাটিং গড় ৬.৬৬ ১৭.৫১
১০০/৫০ ০/০ ১/০
সর্বোচ্চ রান ১৯ ১০২*
বল করেছে ১,৬১২ ১১৭৪০
উইকেট ১৩ ১৬৯
বোলিং গড় ৪৬.৩৮ ৩১.২১
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৩/৪৩ ৭/৯০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ৫৪/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৭ জুলাই ২০২০

আর্থার জর্জ বারেট (ইংরেজি: Arthur Barrett; জন্ম: ৪ এপ্রিল, ১৯৪৪ - মৃত্যু: ৬ মার্চ, ২০১৮) কিংস্টন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী জ্যামাইকীয় বংশোদ্ভূত ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন।[১] ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৭০-এর দশকে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে জ্যামাইকা দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ লেগ ব্রেক গুগলি বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিং করতেন আর্থার বারেট

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৬৬-৬৭ মৌসুম থেকে ১৯৮০-৮১ মৌসুম পর্যন্ত আর্থার বারেটের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। বেশ ভালোমানের লেগ স্পিনার হিসেবে আর্থার বারেটের পরিচিতি ছিল। তবে, দলে পেস আক্রমণের নবজোয়ারে তার খেলার সুযোগ বেশ কমে আসে। তার বোলিংয়ে বেশ নিখুঁতভাব লক্ষ্য করা যায়। কিন্তু, বলকে তিনি তেমন বাঁক খাওয়াতে পারতেন না।

লেগ স্পিনার আর্থার বারেট ১৯৬৬-৬৭ মৌসুম থেকে ১৯৭৫-৭৬ মৌসুম পর্যন্ত জ্যামাইকার পক্ষে খেলেন। এরপর অবশ্য ১৯৮০-৮১ মৌসুমে আরও এক মৌসুম খেলেছিলেন তিনি। ১৯৭০ সালে জ্যামাইকার সদস্যরূপে ইংল্যান্ড গমন করেন।

নিচেরসারির কার্যকরী ব্যাটসম্যান ছিলেন আর্থার বারেট। তবে, প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে কেবলমাত্র একবারই পঞ্চাশোর্ধ্ব রানের সন্ধান পেয়েছিলেন। ১৯৬৯-৭০ মৌসুমে কম্বাইন্ড লিওয়ার্ড ও উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডসের বিপক্ষে জ্যামাইকার সদস্যরূপে ১০২ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। এরপর, বল হাতে নিয়ে ৫/৩৯ ও ৫/৪৩ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন।[২] এর কয়েক সপ্তাহ পূর্বে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে তিনি তার সেরা বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। ইন্টারন্যাশনাল ক্যাভেলিয়ার্সের বিপক্ষে ৭/৯০ লাভ করেন আর্থার বারেট।[৩] ১৯৭৩-৭৪ মৌসুমে খেলায় সেরা বোলিং করেছিলেন। এবারও জ্যামাইকা দলের প্রতিপক্ষ ছিল কম্বাইন্ড লিওয়ার্ড ও উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস দল। ৫/২৩ ও ৬/৮৭ লাভ করেন। তন্মধ্যে, বিখ্যাত ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডস দুইবার তার শিকারে পরিণত হয়েছিলেন।[৪]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ছয়টিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন আর্থার বারেট। ১৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৭১ তারিখে কিংস্টনে সফরকারী ভারত দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২৩ জানুয়ারি, ১৯৭৫ তারিখে মুম্বইয়ে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৭৪-৭৫ মৌসুমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সদস্যরূপে ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা গমন করেন। অংশগ্রহণকৃত ছয় টেস্টে ১৩ উইকেট লাভ করেন। কিন্তু, এর জন্যে তাকে অবশ্য বেশ রান খরচ করতে হয়েছিল।

৬ মার্চ, ২০১৮ তারিখে ৭৩ বছর বয়সে আর্থার বারেটের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]