আব্দুর রশিদ (কুমিল্লার রাজনীতিবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইঞ্জিনিয়ার

আব্দুর রশিদ
আব্দুর রশিদ (কুমিল্লার রাজনীতিবিদ).png
শ্রমশক্তি ও জনকল্যাণ মন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
মে ১৯৮৬ – ১০ আগস্ট ১৯৮৭
কুমিল্লা-৮ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯ – ৩০ মে ১৯৮১
কুমিল্লা-২ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
৭ মে ১৯৮৬ – ৬ ডিসেম্বর ১৯৯০
পূর্বসূরীফরিদুল হুদা
উত্তরসূরীখন্দকার মোশাররফ হোসেন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯৩৭
কুমিল্লা, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২০ জানুয়ারি ২০০৬
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
জাতীয় পার্টি
জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল
প্রাক্তন শিক্ষার্থীআহছানউল্লা বিশ্ববিদ্যালয়
জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়

আব্দুর রশিদ (১৯৩৭–২০ জানুয়ারি ২০০৬) বাংলাদেশের কুমিল্লা জেলার রাজনীতিবিদ, প্রকৌশলী ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক যিনি কুমিল্লা-৮কুমিল্লা-২ আসনের সংসদ সদস্য ছিলেন।[১][২]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

আব্দুর রশিদ ১৯৩৭ সালে কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দির উত্তর নসরুদ্দি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা চুন্নু মিয়া বেপারী। তিনি ১৯৫২ সালে দাউদকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাশ করে ১৯৫৪ সালে জগন্নাথ কলেজ থেকে আইএসসি পাশ করেন। এর পর আহছানউল্লা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৫৮ সালে ডিস্টিংসন নিয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি লাভ করেন।

রাজনৈতিক ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আব্দুর রশিদ কুমিল্লা জেলা বোর্ডের প্রকৌশলী হিসেবে কর্মজীবন শুরু। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন। ৬ দফা আন্দোলন, ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণসহ তৎকালীন সকল রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে তিনি সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। ১৯৭৩ সালে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ছেড়ে জাসদে যোগদান করে কুমিল্লা জেলা সভাপতি নিযুক্ত হন।

তিনি ১৯৭৯ সালের দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের প্রার্থী হিসেবে তৎকালীন কুমিল্লা-৮ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ৩০ মে ১৯৮১ সালে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করেন।[৩]

১৯৮৬ সালের তৃতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করে। এরশাদের মন্ত্রীসভায় তিনি শ্রমশক্তি ও জনকল্যাণ মন্ত্রী নিযুক্ত হলেও ১০ আগস্ট ১৯৮৭ সালে তাকে মন্ত্রীসভা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।[১] ১৯৮৮ সালের চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে কুমিল্লা-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[২]

তিনি ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ও ১২ জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে কুমিল্লা-২ আসন থেকে পরাজিত হয়েছিলেন।[৪]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

আব্দুর রশিদ ২০ জানুয়ারি ২০০৬ সালে মৃত্যুবরণ।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. "৪র্থ জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৮ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  3. "২য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. কুমিল্লা, উত্তর, আবুল খায়ের (৭ অক্টোবর ২০১৮)। "কুমিল্লা-১ ও ২: দুই আসনে গৃহবিবাদে আ.লীগ"আরটিভি। ২৩ জুলাই ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জুলাই ২০২০