আবুল কাশেম সন্দ্বীপ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আবুল কাশেম সন্দ্বীপ
জন্ম(১৯৪৪-০৪-০১)১ এপ্রিল ১৯৪৪
মৃত্যু১০ ডিসেম্বর ১৯৯৫(1995-12-10) (বয়স ৫১)
পেশাসাংবাদিক, গীতিকার
পুরস্কারএকুশে পদক (১৯৯৮)

আবুল কাশেম সন্দ্বীপ (১ এপ্রিল ১৯৪৪ - ১০ ডিসেম্বর ১৯৯৫) ছিলেন একজন বাংলাদেশী শিক্ষাবিদ, সাংবাদিক, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সংগঠক এবং প্রথম সংবাদ পাঠক। তাঁর জন্ম ১৯৪৪ সালের ১ এপ্রিল চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ থানার মাইটভাঙ্গা গ্রামে। তাঁর পিতার নাম নুর আহমেদ। আবুল কাশেম সন্দ্বীপ ১৯৫৯ সালে সাউথ সন্দ্বীপ হাইস্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন, ১৯৬৪ সালে চট্টগ্রামের সরকারি আই,আই কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক, ১৯৬৮ সালে চট্টগ্রাম কলেজ থেকে বাংলা সাহিত্যে স্নাতক (সম্মান) এবং একই বিষয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৯ সালে এম.এ ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৭৪ সালে ভারত থেকে কো-অপারেটিভ বিষয়ে ফেলোশিপ এবং ১৯৭৫-৭৬ সালে সোভিয়েত রাশিয়া থেকে ডিপ্লোমা ডিগ্রি অর্জন করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

সন্দ্বীপ ১৯৪৪ সালের ১ এপ্রিল চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা ছিলেন নূর আহমেদ। তিনি ১৯৫৯ সালে সাউথ স্যান্ডউইথ স্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। ১৯৬৮ সালে তিনি বাংলা সাহিত্যের বিএ (অনার্স) ডিগ্রি অর্জন করেন এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৯৬৯ সালে এমএ অর্জন করেন।

ছাত্রজীবন ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আবুল কাশেম সন্দ্বীপ ছাত্রনেতা হিসেবে ১৯৬২-৬৪ সালে সরকারি আই,আই কলেজ ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক, ১৯৬৪-৬৫ সালে চট্টগ্রাম কলেজ বাংলা বিভাগের সাহিত্য সম্পাদক, ১৯৬৫-৬৬ সালে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্র সংসদের বার্ষিকী সম্পাদক, ১৯৬৬-৬৭ সালে চট্টগ্রাম কলেজ ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া ১৯৬২-৬৭ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা আন্দোলনের ছাত্র সংগ্রাম কমিটির সদস্য এবং ১৯৬৯ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শহীদ মিনার নির্মাণ কমিটির আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি ১৯৬০-৭০ সাল পর্যন্ত দৈনিক জমানা (চট্টগ্রাম), সাপ্তাহিক জমানা (চট্টগ্রাম), দৈনিক আজাদী (চট্টগ্রাম)-এ সাংবাদিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

১৯৭০ সালে, তিনি চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি কলেজে সহ-অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ চলাকালে চট্টগ্রামের কালুরঘাটে স্বাধীন বাংলা বিপ্লবী বেতার কেন্দ্র গঠিত হয়, তিনি এর অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। তিনি এই বেতার কেন্দ্রে বার্তা বিভাগের দায়িত্ব পালন করেন। স্বাধীনতার পর তিনি কিছুদিন ঢাকা বেতার কেন্দ্রে নিযুক্ত ছিলেন এবং পরবর্তীতে বাংলাদেশ জাতীয় সমবায় ইউনিয়নের গণশিক্ষা প্রকল্পে পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[১]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর তিনি ১৯৯৫ সালের ১০ ডিসেম্বর ৫১ বছর বয়সে সাভারের তালবাগস্থ নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন।[২]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

এছাড়া তার স্মৃতির স্মরণে সাভার পৌরসভার সাভার থানা সড়কটির নাম ‘আবুল কাশেম সন্দ্বীপ’ হিসেবে নামকরণ করা হয়।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "আবুল কাসেম সন্দ্বীপ : স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের প্রথম কণ্ঠদাতা"। দৈনিক আজাদী। ১০ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "শব্দ সৈনিক আবুল কাশেম সন্দ্বীপের মৃত্যুবার্ষিকী আজ"www.ekushey-tv.com। ১০ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৩ এপ্রিল ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]