আনোয়ারা বেগম (শিক্ষাবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আনোয়ারা বেগম
আনোয়ারা বেগম, বাংলাদেশের প্রথম নারী উপাচার্য.jpeg
বাংলাদেশের ফার্স্ট লেডি
অধিকৃত কার্যালয়
৬ সেপ্টেম্বর ২০০২ – ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০০৯
রাষ্ট্রপতিইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ
পূর্বসূরীহাসিনা ওয়ার্দা চৌধুরী
উত্তরসূরীরাশিদা হামিদ
উপাচার্য
অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়
কাজের মেয়াদ
২০০৪ – ২০১১
পূর্বসূরীঅফিস সৃষ্ট
উত্তরসূরীআবুল হোসেন শিকদার
ব্যক্তিগত বিবরণ
মৃত্যু২১ এপ্রিল ২০১৮
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাশিক্ষাবিদ
যে জন্য পরিচিতবাংলাদেশের প্রথম নারী উপাচার্য

আনোয়ারা বেগম ছিলেন একজন বাংলাদেশী শিক্ষাবিদ। তিনি বাংলাদেশের প্রথম নারী উপাচার্য।[১] শিক্ষা ক্ষেত্রে তার বিশেষ অবদানের জন্য ২০০৬ সালে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে তাকে একুশে পদক প্রদান করা হয়।[২] তিনি বাংলাদেশের একজন প্রাক্তন ফার্স্ট লেডি[৩]

পেশা জীবন[সম্পাদনা]

আনোয়ারা বেগম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন।[৪] পরবর্তীতে তিনি প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চেয়ারম্যান ও শামসুন নাহার হলের প্রাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[৩] আনোয়ারা বেগম ছিলেন ঢাকার অন্যতম একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য এবং এর ট্রাস্টি বোর্ডের প্রথম চেয়ারম্যান সহ সদস্য ছিলেন।[৫][৬]

ফার্স্ট লেডি[সম্পাদনা]

সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের স্ত্রী হওয়ার সুবাদে তিনি ছিলেন বাংলাদেশের ফার্স্ট লেডি। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী আইভি রহমান ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলাজনিত কারণে ২৪ আগস্ট, ২০০৪ সালে প্রয়াত হন। তার মৃত্যুর ফলে ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের স্ত্রী আনোয়ারা বেগম বাংলাদেশের ফার্স্ট লেডি হিসেবে বহাল ছিলেন।[৭]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

আনোয়ারা বেগম ও তার স্বামী ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদের একটি ছেলে সন্তান ছিল নাম ইমতিয়াজ আহমেদ বাবু। ইমতিয়াজ ছিল তাদের পালক পুত্র।[৮] ইমতিয়াজ বাবুকে ৯ জানুয়ারী ২০১২-এ বেসরকারী অতীশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রারের উপর হামলার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। বাবু বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডে ছিলেন।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "প্রথম নারী উপাচার্য"বাংলাদেশ প্রতিদিন। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪। 
  2. "একুশে পদকপ্রাপ্ত সুধীবৃন্দ"। বাংলাদেশ সরকার। সংগ্রহের তারিখ জুন ২০, ২০১৬ 
  3. "President"। Munshigonj.com। জুন ১১, ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৬, ২০১৬ 
  4. "প্রয়াত রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহমেদের স্ত্রীর ইন্তেকাল"যুগান্তর। ২২ এপ্রিল ২০১৮। 
  5. "Ex-president Iajuddin's wife passes away"Daily Sun। ২২ এপ্রিল ২০১৮। 
  6. কালের কণ্ঠ, মুদ্রিত সংস্করণ, ৯ জানুয়ারী, ২০১২ইং, পৃষ্ঠা-শেষের পাতা
  7. আনোয়ারা বেগম: বাংলাদেশের তৎকালীন ফার্স্ট লেডি, সংগ্রহকাল: ২৯ ডিসেম্বর, ২০১১ইং
  8. "President's Life Sketch"Ministry of Foreign Affairs। ১০ আগস্ট ২০০৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  9. "ইয়াজউদ্দীনপুত্র 'এখন পুলিশ হেফাজতে নেই'"বিডি নিউজ টোয়েন্টিফোর। ৮ জানুয়ারি ২০১২। ২৩ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ জানুয়ারি ২০২২