অ্যাম্পিয়ার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যাম্পিয়ার
Galvanometer 1890 drawing.png
Current can be measured by a galvanometer, via the deflection of a magnetic needle in the magnetic field created by the current.
এককের তথ্য
একক সিস্টেমSI base unit
যার এককতড়িৎ প্রবাহ
প্রতীকA 
নামকরণ যার নামেঅঁদ্রে-মারি অম্পেয়্যার

অ্যাম্পিয়ার (ইংরেজি:Ampere) (এসআই এককের প্রতীক: A; ​​এসআই মাত্রার প্রতীক: I), প্রায়ই সংক্ষিপ্ত Amp;[১] হল তড়িৎ প্রবাহহের আন্তর্জাতিক একক পদ্ধতি[২][৩] এবং সাতটি এসআই[৪] ভিত্তি এককের একটি। বিখ্যাত ফরাসি বিজ্ঞানী আঁদ্রে মারি অম্পেয়্যার (১৭৭৫-১৮৩৬) এর নামানুসারে এই এককের নামকরণ করা হয়েছে। তিনি ছিলেন ফরাসি গণিতবিদ এবং পদার্থবিজ্ঞানী, এবং তিনি তড়িৎগতিবিজ্ঞানের জনক হিসেবে বিবেচিত। সব ইলেকট্রিকাল যন্ত্রতেই এর গ্রহণীয় অ্যাম্পিয়ারের সর্বোচ্চ মান উল্লেখ থাকে। ব্যাটারির মান বুঝানোর জন্য এর গায়ে ভোল্ট (V) ও অ্যাম্পিয়ার (Amp) উল্লেখ করা থাকে।এস আই পদ্ধতিতের মতে অ্যাম্পিয়ার হল একটা ইউনিট। এটি তড়িৎ চুম্বকীয় বল যা তড়িৎ পরিবাহীর মধ্যে তড়িৎ প্রবাহের সৃষ্টি করে। প্রথমে সি জি এস পধতির তড়িৎ এর দুটি ধারণা ছিল। এটি এস আই পদ্ধতির মতই এবং অন্যটি তড়িৎ চার্জ এর ভিত্তির একক হিসাবে ধরা হয় এবং একক চার্জের পরিমাপ করা হয় দুটি চার্জিত তামার প্লেটের মধ্যে। এরপর অ্যাম্পিয়ার নির্ধারণ করা হয় প্রতি সেকেন্ডে ১ কুলম্ব চার্জকে। এস আই পদ্ধতিতে চার্জের একক কুলম্ব এবং এটি পরিমাপ করা হয় ১ অ্যাম্পিয়ার বিদ্যুৎ ১ সেকেন্ডে যে পরিমাণ প্রবাহিত হয়। ভবিষ্যতে এস আই পদ্ধতির পরিবর্তন হতে পারে এবং তা ভিত্তি একক হতে পারে। কুলম্বের মতে তড়িৎ চার্জ নির্ধারিত হয় ইলেকট্রন এবং প্রোটন দ্বারা।

বিষয়বস্তু[সম্পাদনা]

১) বর্ণনা ২) ইতিহাস ৩) অনুধাবন ৪) ভবিষ্যৎ বর্ণনা ৫) প্রতিদিনের উদাহরণ

   ৫,১) সি পি উ == ডি সি 1 V
   ৫,২) পোর্টেবল ডিভাইস 12 V
   ৫,৩) অভ্যন্তরীণ জ্বালানী ইঞ্জিন যানবাহন 
   ৫,৪) উত্তর আমেরিকার অভ্যন্তরীণ সরবরাহ 120 V AC
   ৫,৫) ইউরোপিয়ান এবং কমনওয়েলথ অভ্যন্তরীণ সরবরাহ ২৩০-২৪০V AC

বর্ণনা[সম্পাদনা]

এস আই পদ্ধতিতে আমপিয়ারের বর্ণনা দেয় – অ্যাম্পিয়ার হল একটি তড়িৎ ধ্রুবক ,যদিও অসীম দৈরঘের দুটি সোজা সমান্তরাল পরিবাহক , নমনীয় বিত্তাকার এবং শূন্য মাধ্যমে ১ মিটার পার্থক্য তৈরি করে। তবে পরিবাহকের মধ্যে বলের দৈরঘ হবে -7 নিউটন।আম্পিয়ার বলের সুত্র ব্যাখ্যা করে যে- দুটি সমান্তরাল তারের মধ্যে তড়িৎ প্রবাহের ফলে আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বলের সৃষ্টি হয়। এই বল আম্পিয়ারের সংজ্ঞা প্রদান করে। এস আই পধতিতে চার্জের একক কুলম্ব। এর পরিমান হল ১ আম্পিয়ার তড়িৎ প্রবাহের ১ কুলম্ব চার্জ যা প্রতি সেকেন্ডে প্রদত্ত বিন্দুতে যায়।

সাধারণত Q বের করা হয় তড়িৎ প্রবাহের I এবং সময় t দ্বারা, Q=।t, ধ্রুবক তাৎক্ষণিক এবং গড় তড়িৎ প্রবাহ আম্পিয়ারে প্রকাশ করা হয়। যেহেতু চার্জ তড়িৎ ১,২ আম্পিয়ার এবং চার্জ সংগৃহীত সময় একটি বর্তনীর মাধ্যমে কুলম্বে প্রকাশ করা হয়। যেমন ব্যাটারির চার্জ ৩০০০০ কুলম্ব। আমাপিয়ারের এবং কুলম্বের সম্পর্ক ওয়াট (জুল/সেকেন্ড) ও জুলের মতই।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

আম্পিয়ার ছিল তড়িৎ প্রবাহের সেন্টিমিটার গ্রাম সেকেন্ড পদ্ধতির দশম ইউনিট। যা তখন আবাম্ফেয়ার নামে পরিচিত। যা দুইটি তারের মধ্যে এক সেন্টিমিটার পার্থকে প্রতি সেন্টিমিটার এ দুইটি বলের দৈর্ঘ্যর মধ্যবর্তী তড়িৎ প্রবাহ। ইউনিটির মাপ নির্ধারণ করা হয়েছে যাতে এমকে এসএ বেবস্থায় এটি থেকে প্রাপ্ত ইউনিট সহজলভ্য আআকারে করা হয়। আন্তর্জাতিক আমাপিয়ার হল আম্পিয়ারের প্রাথমিক পরিচয়। এটি ব্যাখ্যা করে এটি সিলভার নাইট্রেট থেকে প্রতি সেকেন্ডে ০,০০১১৮ গ্রাম সিল্ভার জমা করে।

অনুধাবন[সম্পাদনা]

ওয়াত বালেন্সে ব্যাবহার করে অ্যাম্পিয়ার এর আদর্শ মান উপলব্ধি করা যায় কিন্তু ব্যাবহারিক ক্ষেত্রে এটিকে ব্যাবহার করা হয় ওহমের সূত্র দাঁরা যা ইলেক্ট্রোমটিভ বল এবং রোধের একক হতে পাওয়া যায়(ভোল্ট এবং ওহঅহ্ম, এই দুটি সহজেই উৎপাদন করা যায়। এটি জসেফসন জাংসন এবং কুয়ান্টাম হোলের প্রভাব। বর্তমানে আম্পিয়ার বের করার জন্য অনিশ্চিত আপেক্ষিকতা যাতে প্রায় 107 টি অংশ আছে, এতে আরও ওয়াট ওহম ভোল্ট যুক্ত করা হয়েছে।

প্রস্তাবিত ভবিষ্যৎ[সম্পাদনা]

দুটি তারের মধ্যে বলের সম্পর্কের বর্ণনা না দিয়ে এটি প্রস্তাব করে যে অ্যাম্পিয়ারকে প্রাথমিক চার্জের প্রভাব হতে বিবেচনা করা উচিত। যেহেতু এক কুলম্ব এর মান প্রায় 6.২৪১০৯৩×১০18 প্রাথমিক চার্জের সমান। যা ইলেকট্রন প্রোটন বহন করে। এক অ্যাম্পিয়ার প্রায় 6.২৪১০৯৩×১০18 প্রাথমিক চার্জ প্রতি সেকেন্ডে। এটি প্রাথমিক চার্জ এর মান ১ কুলম্ব। এখানে প্রস্তাব করা হয় যে ১ অ্যাম্পিয়ার হল তড়িৎ প্রবাহের দিকে প্রতি সেকেন্ডে চার্জ এর মান। ২০০৫ সালে আন্তর্জাতিক ওজন ও পরিমাপ কমিটি এই প্রস্তাবে রাজি হয় । নতুন ধারণা পরবর্তীতে আন্তর্জাতিক ওজন ও পরিমাপ কমিটিতে আলোচনা করা হয় কিন্তু তা পরে সময়ের জন্য বাস্তবায়িত হয় নি।

নিত্যদিনের উদাহরণ[সম্পাদনা]

সাধারণত ভোল্টেজে এর ধ্রুবক শক্তি বিতরণ পদ্ধতি দ্বারা যুক্ত। এটি সিস্টেম দ্বারা পরিচালিত শক্তি (ওয়াট ) এবং অপারেটিং ভোল্টেজ দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। তাই নিচের উদাহরণগুলো ভোল্টেজ লেভেলের সাথে মিলিয়ে করা হয়েছে। সি পি ইউ ১ ভোল্ট ডি সি

  • ----- তড়িৎ নোটবুক সি পি ইউ (১৫-৪৫ ওয়াট , ১ ভোল্ট ); ১৫ -৪৫ অ্যাম্পিয়ার
  • ----- উচ্চ তড়িৎ ই পি ইউ (৬৫ – ১৪০ ওয়াট , ১,১৫ ভোল্ট ); ৫৫-১২০ অ্যাম্পিয়ার
সহজে বহনীয় যন্ত্র 
  • ----- শোনায় সাহায্যকারী (সাধারণত ১ মিলি ওয়াট , ১,৪ ভোল্ট ); ৭০০ মাইক্রো অ্যাম্পিয়ার
  • ----- ইউ এস বি এডাপ্ট্র (পাওয়ার সাপ্লাই- সাধারণত ১০ ওয়াট , ৫ ভোল্ট ); ২ অ্যাম্পিয়ার

অভ্যন্তরীণ জ্বালানী ইঞ্জিন যানবাহন – ১২ ভোল্ট ডি সি সাধারণত মোটর যন্ত্র ১২ ভোল্ট ব্যাটারি থাকে। এছাড়াও

  • --- আলোক প্যানেল যন্ত্র (সাধারণত ২ ওয়াট ); ১৬৬ মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • --- হেডলাইট (প্রত্যেক সাধারণত ৬০ ওয়াট ); ৫ অ্যাম্পিয়ার

উত্তর আমেরিকার অভ্যন্তরীণ সরবরাহ ১২০ ভোল্ট এ সি – বেশীরভাগ কানাডা, মেক্সিকো , আমেরিকার পাওয়ার সাপ্লাই ১২০ ভোল্ট ঘরের আসবাবপত্র সর্বচ্চো ১৫ আম্পিয়ার থেকে ২০ অ্যাম্পিয়ার তড়িৎ প্রবাহ থাকে।

  • --- চার্জ ইউ এস বি এডাপটর (সাধারনত ১০ ওয়াট ); ৪৩ মিলি আম্পিয়ার
  • --- ২২ ইঞ্চি / ৫৬ সেন্টিমিটার পোর্টেবল টেলিভিশন (৩৫ ওয়াট ); ২৯০ মিলি অ্যাম্পিয়ার
  • --- তড়িৎ বাতির টাংস্টেন (৬০-১০০ ওয়াট ); ৫০০-৮৩০ মিলি আম্পিয়ার
  • --- টোস্টার, কেটলি (১,৫ কিলোওয়াট ) ; ১২,৫ আম্পিয়ার
  • --- চুল শুকানোর যন্ত্র (১,৮ কিলোওয়াট ); ১৫ অ্যাম্পিয়ার

ইউরোপিয়ান এবং কমনওয়েলথ এর অভ্যন্তরীণ সরবরাহ – বেশীরভাগ ইউরোপিয়ান দেশগুলোতে পাওয়ার সাপ্লাই ২৩০ ভোল্ট আর কমনওয়েলথ দেশগুলোর ২৪০ ভোল্ট। --- ফ্লুরস্টে বাতি (১১-৩০ ওয়াট ) --- ২২ ইঞ্চি / ৫৬ সেন্টিমিটার পোর্টেবল টেলিভিশন (৩৫ ওয়াট ); ১৪৫-১৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার --- তড়িৎ টাংস্টেন বাতি (৬০-১০০ ওয়াট) ; ২৪০-৪৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার --- টোস্টার, কেটলি (২ কিলোওয়াট ) ; ৯ আম্পিয়ার --- ইমারসন হিটার (৪,৬ কিলোওয়াট) ; ১৯-২০ অ্যাম্পিয়ার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. SI supports only the use of symbols and deprecates the use of abbreviations for units."Bureau International des Poids et Mesures" (PDF)। ২০০৬। পৃষ্ঠা 130। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১১-২১ 
  2. "2.1. Unit of electric current (ampere)", SI brochure (8th সংস্করণ), BIPM, সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১১ 
  3. Base unit definitions: Ampere. Physics.nist.gov. Retrieved on 2010-09-28.
  4. অন্যান্য ছয়টি হল কিলোগ্রাম, সেকেন্ড, মিটার, কেলভিন, ক্যান্ডেলা, এবং মোল

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]