অ্যাথল ম্যাককিনন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যাথল ম্যাককিনন
অ্যাথল ম্যাককিনন.jpg
১৯৬৫ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে অ্যাথল ম্যাককিনন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামঅ্যাথল হেনরি ম্যাককিনন
জন্ম(১৯৩২-০৮-২০)২০ আগস্ট ১৯৩২
পোর্ট এলিজাবেথ, কেপ প্রদেশ
মৃত্যু২ সেপ্টেম্বর ১৯৮৩(1983-09-02) (বয়স ৫১)
ডারবান, নাটাল, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স
ভূমিকাবোলার, কোচ
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০৪)
১৮ আগস্ট ১৯৬০ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টেস্ট৩১ ডিসেম্বর ১৯৬৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৫২/৫৩ - ১৯৬২/৬৩ইস্টার্ন প্রভিন্স
১৯৬৩/৬৪ - ১৯৬৮/৬৯ট্রান্সভাল
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১১১
রানের সংখ্যা ১০৭ ১৬৮৭
ব্যাটিং গড় ১৭.৮৩ ১৪.৯২
১০০/৫০ ০/০ ০/৪
সর্বোচ্চ রান ২৭ ৬২
বল করেছে ২৫৪৬ ২৫৮০৫
উইকেট ২৬ ৪৭০
বোলিং গড় ৩৫.৫৭ ২১.১৪
ইনিংসে ৫ উইকেট ৩৮
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/১২৮ ৭/৩৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ৩২/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৭ জুন ২০২০

অ্যাথল হেনরি ম্যাককিনন (ইংরেজি: Atholl McKinnon; জন্ম: ২০ আগস্ট, ১৯৩২ - মৃত্যু: ২ ডিসেম্বর, ১৯৮৩) কেপ প্রদেশের পোর্ট এলিজাবেথ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও কোচ ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৬০-এর দশকে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে ইস্টার্ন প্রভিন্স ও ট্রান্সভাল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ স্লো লেফট-আর্ম অর্থোডক্স বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন অ্যাথল ম্যাককিনন

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

ক্রীড়া সাফল্যে উজ্জ্বীবিত বিদ্যালয় গ্রে হাই স্কুলে অধ্যয়ন করেছেন অ্যাথল ম্যাককিনন।[১] ১৯৫২-৫৩ মৌসুম থেকে ১৯৬৮-৬৯ মৌসুম পর্যন্ত অ্যাথল ম্যাককিননের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

১৯৫২-৫৩ মৌসুম থেকে ১৯৬২-৬৩ মৌসুম পর্যন্ত কারি কাপে ইস্টার্ন প্রভিন্সের পক্ষে খেলেন। এরপর, ১৯৬৩-৬৪ মৌসুম থেকে ১৯৬৮-৬৯ মৌসুম পর্যন্ত ট্রান্সভালের পক্ষে খেলেন। প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিং করে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৬২ তুলেন। সব মিলিয়ে ২১.১৪ গড়ে ৪৭০টি প্রথম-শ্রেণীর উইকেট ও ১৫.০৬ গড়ে ১৬৮৭ রান তুলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে আটটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন অ্যাথল ম্যাককিনন। ১৮ আগস্ট, ১৯৬০ তারিখে ওভালে স্বাগতিক ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ৩১ ডিসেম্বর, ১৯৬৬ তারিখে কেপ টাউনে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

১৯৬৪-৬৫ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকায় ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সফরের শেষ পর্যায়ে সিরিজের চতুর্থ টেস্টে তাকে দলে নিয়ে আসা হয়। প্রথম ইনিংসে ৫১ ওভারে ৪/১২৮ পান ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৫ ওভারে ৩/৪৪ পান। নিজের সেরা খেলা প্রদর্শনকালীন বলের উপর অসাধারণ নিয়ন্ত্রণ, স্ট্যাম্পের নিশানা বরাবর ফেলেন।

বামহাতি স্পিনার অ্যাথল ম্যাককিনন ১৯৬০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সাথে ইংল্যান্ড গমন করেন। একমাত্র খেলোয়াড় হিসেবে ১৯৬৫ সালেও ইংল্যান্ড গমনের সুযোগ পান।[২]

১৯৬৬-৬৭ মৌসুমে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের প্রথম দুই টেস্ট খেলেন। ঐ সিরিজে স্বাগতিকরা জয় পেয়েছিল। সব মিলিয়ে ৩৫.৫৭ গড়ে ২৬টি টেস্ট উইকেট পেয়েছেন।

অবসর[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর কোচের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছিলেন তিনি। ধৈর্য্যশীল ও জনপ্রিয় কোচ ছিলেন। ১৯৮৩-৮৪ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিদ্রোহী দলের অনানুষ্ঠানিক সফরের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা অবস্থায় হৃদযন্ত্রক্রীয়ায় আক্রান্ত হন।[২] অতঃপর, ২ ডিসেম্বর, ১৯৮৩ তারিখে ৫১ বছর বয়সে নাটালের ডারবান এলাকায় অ্যাথল ম্যাককিননের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Markman, Ivor। "St George's Park - Atholl Henry McKinnon"St George's Park History। Darryn van der Walt। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৯, ২০১৯ 
  2. Wisden 1984, p. 1204.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]