অম্বিকাচরণ গুহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
অম্বিকাচরণ গুহ
জন্ম ১৮৪৩
কলকাতা, বাংলা, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু ১৯০০
কলকাতা, বাংলা, ব্রিটিশ ভারত
জাতীয়তা ব্রিটিশ ভারতীয়
বংশোদ্ভূত বাঙালি
পেশা কুস্তিগীর
ধর্ম হিন্দুধর্ম
সন্তান ক্ষেত্রচরণ গুহ
পিতা-মাতা অভয়চরণ গুহ

অম্বিকাচরণ গুহ (১৮৪৩ – ১৯০০), অম্বু বাবু অথবা অম্বু গুহ নামেই বেশি পরিচিত, একজন ভারতীয় কুস্তিগীর যিনি বাংলায় "আখড়া" সংস্কৃতির প্রসারে পথপ্রবর্তক।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

অম্বিকাচরণ এক কুস্তিগীর পরিবারের সন্তান ছিলেন। তাঁর পিতামহ , শিবচরণ গুহ বাংলায় বিভিন্ন ধরনের ক্রীড়া বা খেলাধূলার পৃষ্ঠপোষকতা এবং জনপ্রিয়করণে অবদান রেখেছেন। অম্বিকাচরণ ১৯৪৩ সালে কলকাতার হোগলকুড়িয়ায় জন্মগ্রহণ করেন, যা বর্তমানে হাতিবাগানের কাছে মসজিদবাড়ি স্ট্রিট এলাকা। তাঁর পিতার নাম অভয়চরণ গুহ।

অম্বিকাচরণ আট অথবা নয় বছর বয়সে গুরুতরভাবে আহত হন। ফলে চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে নিজ বাড়িতেই পড়াশোনা চালিয়ে যেতে হয়। তিনি নিয়মিত শরীরচর্চা শুরু করেন এবং বাড়িতেই তিনি ঘোড়সওয়ারের দীক্ষা পান। তিনি মথুরার কালিচরণ চৌবের কাছে কুস্তির প্রশিক্ষণ নেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

১৮৫৭ সালে, মাত্র ১৬ বছর বয়সে, অম্বিকা তার পিতামহের পরামর্শে বাংলার প্রথম আখড়া প্রতিষ্ঠা করেন। অম্বিকা তখন বিভিন্ন ধরনের কুস্তি এবং ভারোত্তোলন কৌশল শিখতে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে ভ্রমণ করেন। তিনি সমকালীন ভারতীয় কুস্তিগীরদের সাথে কুস্তি লড়েন এবং অনেকের বিরুদ্ধেই জয়ী হন। তিনি তখন অম্বু বাবু অথবা রাজা বাবু নামে পরিচিতি লাভ করেন।

তাঁর আখড়া তখন উদীয়মান ভারতীয় কুস্তির এক তীর্থক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল। অম্বিকাচরণ তখন বাংলার বিকাশমান কুস্তিগীরদের প্রশিক্ষক হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। স্বামী বিবেকানন্দ তাঁর তরুণ জীবনে, অম্বু বাবুর আখড়ায় কুস্তি শিখেছিলেন।[১]

তাঁর কয়েকজন বিখ্যাত ছাত্রের নাম নিচের তালিকায় দেওয়া হল।

কিংবদন্তি[সম্পাদনা]

তাঁর পুত্র, ক্ষেত্রচরণ গুহ, (যিনি খেতু বাবু নামেই বেশি পরচিতি) তিনিও ছিলেন একজন প্রতিষ্ঠিত কুস্তিগীর। খেতু বাবুর ভাগ্নে, যতীন্দ্রচরণ গুহ, যিনি একজন স্বনামধন্য কুস্তিগীর ছিলেন। তিনি ছিলেন প্রথম এশীয় কোন কুস্তিগীর যিনি ১৯২১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে ওয়ার্ল্ড লাইট হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন।

বাংলায় আখড়া সংস্কৃতির উল্লেখযোগ্য প্রসার ঘটায় বাঙালি হিন্দু ধনীরা এর সাথে সম্পৃক্ত হন। বাংলা বিভিন্ন জায়গায় ব্যাঙের ছাতার মত কয়েক শত আখড়া গড়ে উঠলো, এদের মধ্যে থেকেই পরবর্তীতে জাতীয়তাবাদী বিপ্লবের উন্মেষ ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Swami Vivekananda in India: A Corrective Biography। Motilal Banarsidass। পৃ: 22।  লেখা "8120815866" উপেক্ষা করা হয়েছে (সাহায্য); |authorname= প্যারামিটার অজানা, উপেক্ষা করুন (সাহায্য)