হাবিবুর রহমান (রাজনীতিবিদ)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডাঃ হাবিবুর রহমান
ডাঃ হাবিবুর রহমান.jpg
বগুড়া-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
১৯৯১- ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬
ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬-জুন ১৯৯৬
জুন ১৯৯৬ - ২০০১
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৩১
কামারপাড়া গ্রাম, সোনাতলা উপজেলা, বগুড়া, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু১১ মে ২০০২
কামারপাড়া গ্রাম, সোনাতলা উপজেলা, বগুড়া জেলা
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল

ডাঃ হাবিবুর রহমান (জন্ম: ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৩১-মৃত: ১১ মে ২০০২) বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ। তিনি একজন চিকিৎসক, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের নেতা ও সাবেক সাংসদ। তিনি বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দিসোনাতলা) আসন থেকে মোট তিন বার (১৯৯১, ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬জুন ১৯৯৬) বিএনপির হয়ে সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন।[১][২][৩]

জন্ম ও প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

ডাঃ হাবিবুর রহমান ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৩১ সালে ব্রিটিশ ভারতের পূর্ব বাংলার (বর্তমান বাংলাদেশ) বগুড়া জেলার সোনাতলা উপজেলার কামারপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মৃত দৌলতুল্লা মন্ডল এবং মাতা মৃত জমেলা খাতুন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

শিক্ষাজীবন[সম্পাদনা]

ডাঃ হাবিবুর রহমান প্রাথমিক শিক্ষা সমাপ্ত করে ভর্তি হন সোনাতলা পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে। ১৯৪৮ সালে তিনি ম্যাট্রিকুলেশন পাশ করেন। অতঃপর রংপুর কারমাইকেল কলেজে থেকে ১৯৫০ সালে আই.এস.সি পাশ করেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ থেকে ১৯৫৬ সালে এমবিবিএস পাশ করেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ডাঃ হাবিবুর রহমান ১৯৫৮ সালে পাকিস্তানের পাঞ্জাব মেডিক্যাল হেলথ্ সার্ভিসে সার্জন হিসেবে কর্মজীবন শুরু করে মার্চ ১৯৭১ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত এই পদে বহাল ছিলেন। স্বাধিনতা যুদ্ধের কিছুদিন পুর্বে দেশে ফিরে আসেন এবং সোনাতলা উপজেলায় ইসলামিয়া মেডিক্যালে সার্জন হিসেবে যোগদান করেন। তিনি ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে আহত মুক্তিযোদ্ধাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

রাজনৈতিক জীবন[সম্পাদনা]

ডাঃ হাবিবুর রহমান চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দিসোনাতলা) আসন থেকে ১৯৮৮ সালের চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে স্বল্প ভোটের ব্যাবধানে পরাজিত হন। ১৯৯০ সালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলে (বি.এন.পি) যোগদান করেন। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের মনোনিত প্রার্থী হিসেবে ১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। অতঃপর ষষ্ঠসপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়লাভ করেন।[১][২][৩]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

ডাঃ হাবিবুর রহমান ১১ মে ২০০২ সালে বার্ধক্য জনিত কারণে নিজ বাসভবনে মারা যান করেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]