হাফ টিকিট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হাফ টিকিট
হাফ টিকিট চলচ্চিত্রের পোস্টার.jpg
পরিচালককালিদাস
প্রযোজকবোম্বে টকিজ
রচয়িতাসুরিদ কর এবং রমেশ পান্থ
শ্রেষ্ঠাংশেকিশোর কুমার
মধুবালা
প্রাণ
সুরকারসলিল চৌধুরী
সম্পাদকরাজ তলোয়ার
মুক্তি১৯৬২
দেশভারত
ভাষাহিন্দি

হাফ টিকিট (হিন্দি: हाफ़ टिकट) হচ্ছে ১৯৬২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত একটি হিন্দি চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটিতে কিশোর কুমার, মধুবালা এবং প্রাণ ছিলেন। এটি কিশোর কুমার অভিনীত সেরা পাঁচ জনপ্রিয় চলচ্চিত্রের একটি।[১]

বিষয়বস্তু[সম্পাদনা]

বিজয় বোম্বে যাবার জন্য তৈরি হয় কিন্তু তার কাছে টাকা থাকেনা, পরে সে একটি বাচ্চার বেশ ধরে অর্ধ-টিকিট নিয়ে বোম্বে যায়। রাজা বাবু ওরফে চাচা নামের একজন হীরা স্মাগলার থাকে যার সঙ্গে বিজয় ট্রেনে পরিচিত হয়, বিজয় 'মুন্না' ছদ্মবেশে ট্রেনে থাকে, সে রজনীদেবী নামের এক তরুণীর প্রেমে পড়ে যায় পরে।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

সঙ্গীত[সম্পাদনা]

শৈলেন্দ্রের গীতিতে চলচ্চিত্রটির সঙ্গীত পরিচালনা করেছিলেন সলিল চৌধুরী। চলচ্চিত্রটির পুরুষকণ্ঠের গানগুলো কিশোর কুমারের গাওয়া।[২][৩]

গান কণ্ঠশিল্পী মন্তব্য
"চাঁদ রাত তুম হো সাথ" লতা মঙ্গেশকর এবং কিশোর কুমার
"আঁখোঁ মেঁ তুম" গীতা দত্ত এবং কিশোর কুমার
"চিল চিল চিল্লা কে" কিশোর কুমার কিশোর কুমার এই গানে বাচ্চা সেজে নাচেন
"ভো এক নিগাহ কিয়া মিলি" লতা মঙ্গেশকর এবং কিশোর কুমার এই গানে হেলেন, প্রাণ এবং কিশোর কুমার থাকেন
"আকে সিঁড়ি লাগি দিল পে" কিশোর কুমার (পুরুষ এবং বিকৃত নারীকণ্ঠ) প্রাণ এবং কিশোর কুমারকে দেখানো হয়েছে
"আরে লেলো জি লেলো" কিশোর কুমার
"আরে বাহ রে বাহ মালিক" কিশোর কুমার

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Jigar Shah। "Half Ticket to Padosan: Kishore Kumar's top 5 films"hindustantimes.com 
  2. Manash Firaq Bhattacharjee (৪ আগস্ট ২০১৯)। "Kishore Kumar was the Mood of a Generation"thewire.in 
  3. "Kishore Kumar: The Ultimate King Of Melody"iwmbuzz.com। ৪ জুন ২০২০। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]