সেলেব জিহাদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সেলেব জিহাদ
সেলেব জিহাদ লোগো.png
সাইটের প্রকার
পর্নোগ্রাফি, সেলিব্রিটি গসিপ, বিদ্রূপ
উপলব্ধইংরেজি
সদরদপ্তরলস অ্যাঞ্জেলেস, ক্যালিফোর্নিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
আয়বিজ্ঞাপন
ওয়েবসাইটwww.celebjihad.com
নিবন্ধননা
চালুর তারিখ১৮ মার্চ ২০০৮; ১৩ বছর আগে (2008-03-18)
বর্তমান অবস্থাঅনলাইন

সেলেব জিহাদ হ'ল এমন একটি ওয়েবসাইট, যা জিহাদের বিদ্রূপ স্বরূপ সেলিব্রিটিদের ব্যক্তিগত (প্রায়শই যৌন) ভিডিও ফাঁস করার জন্য পরিচিত। [১][২][৩][৪][৫] ডেইলি বিস্ট এটিকে একটি "ব্যঙ্গাত্মক সেলিব্রিটি গসিপ ওয়েবসাইট" হিসাবে বর্ণনা করে। [৬]

ওয়েবসাইটটি নিজেকে "একটি প্রকাশিত গুজব, জল্পনা, অনুমান ও মতামত নির্ভর কথাসাহিত্যের পাশাপাশি বাস্তব তথ্যযুক্ত একটি ব্যঙ্গাত্মক ওয়েবসাইট হিসাবে বর্ণনা করে"। [৭] সাইটটি তার মালিককে "দুর্কা দুর্কা মোহাম্মদ" হিসাবে একটি কল্পিত সন্ত্রাসী হিসাবে তালিকাভুক্ত করেছে যার লক্ষ্য আমেরিকার "বিষাক্ত সেলিব্রিটি সংস্কৃতি" ধ্বংস করা। [৮]

ওয়েবসাইটটি, সাধারণত সেলফোন থেকে হ্যাক করে চুরি করা চিত্র ও ভিডিওর মুক্তির একটি ধারাবাহিকে অংশগ্রহণ করে। আগস্ট ২০১৭-এ এটি লিন্ডসে ভন, টাইগার উডস, মাইলি সাইরাস, ক্রিস্টেন স্টুয়ার্ট এবং ক্যাথেরিন ম্যাকফির নগ্ন ছবি প্রকাশ করেছে। ২১ আগস্ট পোস্ট করা উডস এবং ভনের চিত্র ২৩ আগস্ট আইনী হুমকির মুখে সরানো হয়; কার্লি বুথের ছবিগুলি ২৩ বা ২৪ আগস্ট মুছে ফেলা হয়েছিল। [৯] নভেম্বর ২০১৭ সেলেব জিহাদ ডাব্লিউডাব্লিউই -এর ডিভাস পেইজ, জোজো অফারম্যান এবং মারিয়া ক্যানেলিসের নগ্ন চিত্র অবমুক্ত করে, যা ছিল ডব্লিউডব্লিউই এর সেলিব্রিটিদের চিত্র ফাঁসের একটি দীর্ঘ ধারাবাহিক সর্বশেষ অংশ। [১০] [১১]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Husain, Taneem. "Can Islam Be Satirized? Celeb Jihad's "Explosive Celebrity Gossip" and the Divide between Islam and Mainstream American Culture." American Studies, vol. 56 no. 3, 2018, pp. 69-82. Project MUSE, doi:10.1353/ams.2018.0003
  2. Diana Falzone (আগস্ট ২৪, ২০১৭)। "How does Celeb Jihad continue to share hacked celebrity nude pics?"। Fox News। 
  3. Marlow Stern (আগস্ট ২৪, ২০১৭)। "Inside the Fake-Islamic Site Posting Hacked Nude Photos of A-List Celebrities"। Daily Beast। 
  4. Suman Varandani (মার্চ ৬, ২০১৭)। "Fappening 2.0 Nude Photo Leak Update: Celeb Jihad Reacts To Amanda Seyfried's Legal Threat" 
  5. "Emma Watson's legal team gets website Celeb Jihad to take down her racy photos"। New York Daily News। সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৬। 
  6. Stern, Marlow (২৪ আগস্ট ২০১৭)। "Inside the Fake-Islamic Site Posting Hacked Nude Photos of A-List Celebrities"Daily Beast Newsweek। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুন ২০১৯ 
  7. "Disclaimer"। Celeb Jihad। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৭ 
  8. "About"। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১০, ২০১৭ 
  9. "Paige Spiranac, Carly Booth leaked nude photos published to, removed from Celeb Jihad"। Golf News Net। ২০১৭-০৮-২৪। 
  10. Carolina (নভেম্বর ৬, ২০১৭)। "Hackers Leak Nude Photos of WWE Diva Maria Kanellis AGAIN"। HackRead। 
  11. Carolina (নভেম্বর ৫, ২০১৭)। "Hackers leak WhatsApp chat and private photos of WWE Diva Paige"। HackRead।