বিষয়বস্তুতে চলুন

সাইকা ইশাক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সাইকা ইশাক
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম
সাইকা ইশাক
জন্ম (1995-10-08) ৮ অক্টোবর ১৯৯৫ (বয়স ২৮)
কলকাতা,
পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনবাঁ-হাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো বাঁ-হাতি অর্থোডক্স
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় দল
একমাত্র ওডিআই
(ক্যাপ ১৪০)
২৮ ডিসেম্বর ২০২৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৭৯)
৬ ডিসেম্বর ২০২৩ বনাম ইংল্যান্ড
শেষ টি২০আই১০ ডিসেম্বর ২০২৩ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১১/১২–বর্তমানবাংলা
২০২৩–বর্তমানমুম্বই ইন্ডিয়ান্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ডব্লিউ-এফসি ডব্লিউ-এলএ ডব্লিউ-টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ১৫ ৫৩ ৬০
রানের সংখ্যা ১২৬ ২২০ ১২৪
ব্যাটিং গড় ৯.৬৯ ৮.১৪ ৬.৫২
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ২৬ ৩৫ ২২*
বল করেছে ১,৬৯১ ২,৫৯৩ ১,১৯৩
উইকেট ২৩ ৬০ ৫২
বোলিং গড় ২৯.৫১ ২০.৩৮ ১৯.৫৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৪/৪৯ ৫/৩০ ৪/৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৫/– ১১/– ১২/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

সাইকা ইশাক (জন্ম ৮ অক্টোবর ১৯৯৫) একজন বাঙালি ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটার, যিনি জাতীয় দলের পাশাপাশি ঘরোয়া ক্রিকেটে বাংলা মহিলা ক্রিকেট দল এবং মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে স্পিন বোলার হিসেবে খেলেন।[১]

ক্রিকেট জীবন[সম্পাদনা]

ঘরোয়া ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০১৩ সালে বাংলার হয়ে ইশাকের অভিষেক হয় এবং তারপর থেকে তিনি দলের নিয়মিত সদস্য। ২০২২-এর অক্টোবরে, তিনি মহিলাদের সিনিয়র টি২০ ট্রফিতে বাংলার প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন। পরের মাসে, তিনি মহিলা টি২০ চ্যালেঞ্জার ট্রফিতে খেলেন, যেখানে তিনি ভারত এ দলের অংশ ছিলেন।[২]

২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে উদ্বোধনী মহিলা প্রিমিয়ার লিগের নিলামে, ইশাককে মুম্বাই ইণ্ডিয়ান্স ১০ লাখে কিনেছিল।[৩][৪]

মুম্বাই ইণ্ডিয়ান্সের হয়ে তার অভিষেক মরশুমে, ইশাক টুর্নামেন্টের শীর্ষ প্রদর্শনকারীদের একজন হিসেবে আবির্ভূত হন, তিনি ৮ ম্যাচে ৫.৮ ইকোনমি রেটে ৯ উইকেট নিয়েছিলেন। তিনি ফাইনালে মুম্বই ইণ্ডিয়ান্সের জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন, সেখানে তারা উদ্বোধনী ডব্লিউপিএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে ফাইনাল ম্যাচে জিতেছিল। তিনি টুর্নামেন্টে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী ছিলেন।[৫]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

২০২৩ এর ডিসেম্বরে তিনি ভারতের জাতীয় দলে খেলার জন্য প্রথম ডাক পান।[৬] ২০২৩ সালের ৬ ডিসেম্বর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার আন্তর্জাতিক টি২০ ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে এরপর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের জন্য তিনি জাতীয় দলে সুযোগ পান।[৭]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ইশাক কলকাতার একটি বস্তিতে বেড়ে ওঠেন এবং অল্প বয়সে ক্রিকেট খেলা শুরু করেন। তার বাবা, যিনি তার মাত্র ১২ বছর বয়সে মারা গিয়েছিলেন, তিনি তার জন্য একটি বড় অনুপ্রেরণা ছিলেন এবং তিনি মহিলা টি২০ চ্যালেঞ্জ-এ তার প্রদর্শন তাঁর বাবাকে উৎসর্গ করেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Saika Ishaque Profile"ESPNcricinfo (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০২৩ 
  2. "Squads for Mastercard Senior Women's T20 Challenger Trophy announced"BCCI। সংগ্রহের তারিখ ৪ মে ২০২৩ 
  3. "WPL Auction 2023"Cricbuzz (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০২৩ 
  4. "Saika Ishaque Profile"News18 हिंदी (হিন্দি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৮ মার্চ ২০২৩ 
  5. "Saika Ishaque: From Kolkata's city slum to becoming WPL star"Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৯ এপ্রিল ২০২৩ 
  6. "Saika Ishaque earns maiden call-up for England, Australia series"Cricbuzz (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ৩ ডিসেম্বর ২০২৩ 
  7. "Team India's ODI & T20I squad against Australia announced"Board of Control for Cricket in India। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]