শাওমি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
শাওমি ইনকর্পোরেট
স্থানীয় নাম
北京小米科技有限责任公司
প্রাইভেট
শিল্প ভোক্তা ইলেক্ট্রনিক পণ্য
কম্পিউটার হার্ডওয়্যার
প্রতিষ্ঠাকাল ৬ এপ্রিল ২০১০; ৭ বছর আগে (২০১০-০৪-০৬)
প্রতিষ্ঠাতা লেই জুন (雷军)
সদরদপ্তর বেইজিং, চীন
অঞ্চলিক পরিসেবা
নির্বাচিত বাজারসমুহ
পণ্যসমূহ মোবাইল ফোন
স্মার্টফোন
ট্যাবলেট কম্পিউটার
স্মার্ট হোম ডিভাইস
আয় বৃদ্ধি ইউএস$২০ বিলিয়ন (২০১৫)
কর্মীসংখ্যা
প্রায় ৮,১০০[১]
ওয়েবসাইট Xiaomi Global
Xiaomi India
Xiaomi Bangladesh

শাওমি ইনকর্পোরেট [২] (চৈনিক উচ্চারণ [ɕjɑ̀ʊmì] ( শুনুন)) হচ্ছে একটি প্রাইভেট চীনা ইলেকট্রনিক্স কোম্পানি,[৩] যার সদরদপ্তর চীনের বেইজিং এ অবস্থিত। এটি বিশ্বের ৪র্থ[৪] বৃহত্তম স্মার্টফোন নির্মাতা, ২০১৫ সালে শাওমি ৭০.৮ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রি করে এবং কোম্পানিটি স্মার্টফোনের বিশ্ব বাজারের শেয়ারের প্রায় ৫ শতাংশ অধিকার করে।[৫] শাওমি স্মার্টফোন, মোবাইল অ্যাপস এবং সংশ্লিষ্ট ইলেক্ট্রনিক পণ্য ডিজাইন, ডেভলপ এবং বিক্রি করে থাকে।

ইতিহাস[সম্পাদনা]

শাওমি ২০১০ সালের ৬ এপ্রিল আটজন সহযোগীর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছিলো। প্রথম ধাপের অর্থায়নে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা তেমাসেক হোল্ডিংস, সিঙ্গাপুরের সরকারি মালিকানাধীন একটি বিনিয়োগ কোম্পানী, চীনা ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফান্ড আইডিজি(IDG) ক্যাপিটাল, কিইমিং ভেঞ্চার পার্টনার্স [৬] এবং মোবাইল প্রসেসর ডেভলপার কোয়ালকমকে অন্তর্ভুক্ত করে। ২০১০ সালের ১৬ আগস্ট তারিখে, শাওমি আনুষ্ঠানিকভাবে এর প্রথম অ্যান্ড্রয়েড-ভিত্তিক ফার্মওয়্যার এমআইইউআই(MIUI) চালু করে।[৭] ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে বাংলাদেশে আনুষ্ঠানিকভাবে বাজারজাত শুরু করে শাওমি।[৮]

ব্যবসার পলিসি[সম্পাদনা]

শাওমি স্মার্টফোন বিক্রির ক্ষেত্রে, শাওমি অন্যান্য স্মার্টফোন নির্মাতা যেমন- স্যামসাং এবং অ্যাপল থেকে ভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে থাকে। লেই জুন, শাওমির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) উল্লেখ করেন যে, কোম্পানিটি ফোনের দাম প্রায় তৈরি খরচের সমানই রাখে,[৯]যদিও এ ক্ষেত্রে ফোনের গুণগত মান এবং কর্মক্ষমতা অন্যান্য প্রিমিয়াম স্মার্টফোনের তুলনায় কোনও অংশে কম নয়। কোম্পানিটি এছাড়াও ফোন সংক্রান্ত অন্যান্য পেরিফেরাল ডিভাইস, স্মার্ট হোম পণ্য, অ্যাপস, অনলাইন ভিডিও এবং থিম ইত্যাদি বিক্রি করে মুনাফা অর্জন করে থাকে।

পণ্যসমূহ[সম্পাদনা]

শাওমি বিভিন্ন ধরনের পণ্য উৎপাদন করে থাকে, কিন্তু তার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার ভাষ্যমতে, কোম্পানিটি ভবিষ্যত পণ্য উৎপাদনের ক্ষেত্রে দীর্ঘ সময় মোবাইল ফোন, টিভি এবং রাউটার ইত্যাদি পণ্য উৎপাদনের ক্ষেত্রেই গুরুত্ব প্রদান করব।[১০]

পণ্যসমুহ[সম্পাদনা]

শাওমির বিভিন্ন ধরনের পণ্য তৈরি করে, তবে এর মধ্যে মোবাইল ফোন, টিভি এবং রাওটার উল্লেখযোগ্য।[১১]

ল্যাপটপ[সম্পাদনা]

এমআই নোটবুক এয়ার[সম্পাদনা]

শাওমি তাদের প্রথম আল্ট্রাবুক এমআই নোটবুক এয়ার এর মাধ্যমে চীনের কম্পিউটারের বাজারে প্রবেশ করে।

মোবাইল ফোনসমূহ[সম্পাদনা]

এমআই সিরিজ[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের জানুয়ারীর আগে পর্যন্ত শাওমি এর প্রধান মোবাইল হ্যান্ডসেটগুলো ছিলো শাওমি এম আই সিরিজ। শাওমি এম আই ৪ মার্চ, মে এবং যথাক্রমে ২০১৪ সালের মার্চ, মে এবং জুলাইতে চীন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড ও ভারতে চালু করা হয়।[১২]

এমআই নোট[সম্পাদনা]

২০১৫ সালের জানুয়ারিতে চীন এর বেইজিং এ, শাওমি আইফোন ৬ এর প্রায় অর্ধেক মূল্যে এম আই নোট ও এম আই নোট প্রো বাজারে আনে।[১৩]

রেডমি সিরিজ[সম্পাদনা]

শাওমি রেডমি নোট ৩

শাওমি রেডমি সিরিজ এমআই সিরিজের চেয়ে কম মূল্যের ফোন।[১৪]

এমআই প্যাড[সম্পাদনা]

শাওমির প্রথম ট্যাবলেট পিসি হচ্ছে শাওমি এমআই প্যাড, এটি ২০১৪ সালে বাজারে আসে।[১৫]

এমআইইউআই (অপারেটিং সিস্টেম)[সম্পাদনা]

এমআইইউআই(অপারেটিং সিস্টেম) হচ্ছে গুগোল এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের উপরে ভিত্তি করে শাওমি কর্তৃক উন্নীত অপারেটিং সিস্টেম। এটি শাওমির শুরুর দিকের একটি পণ্য।

এমআই ওয়াই-ফাই (নেটওয়ার্ক রাউটার)[সম্পাদনা]

শাওমির এমআইওয়াই-ফাই(MiWiFi) সিরিজের রাউটার প্রথম বাজারে আসে ২০১৪ সালের ২৩ এপ্রিল।

এমআই টিভি (স্মার্ট টিভি লাইন)[সম্পাদনা]

এমআই সিরিজের স্মার্ট টিভি ২০১৩ সাল হতে বাজারজাত করা শুরু করে শাওমি। এটি এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলে।

শাওমির আরও অন্যান্য পণ্য হচ্ছেঃ[সম্পাদনা]

  • এমআইবক্স (সেট-টপ বক্স)
  • এমআই ক্লাউড (ক্লাউড স্টোরেজ সার্ভিস)
  • এমআইটক(ম্যাসেজিং সার্ভিস)
  • এমআই পাওয়ার ব্যাংক (এক্সটার্নাল ব্যাটারি)
  • এমআই ব্যান্ড (ফিটনেস মনিটর এন্ড স্লিপ ট্র্যাকার)
  • স্মার্ট হোম পণ্য
  • ব্লাড প্রেসার মনিটর
  • এয়ার পিউরিফাইয়ার
  • ই অ্যাকশন ক্যামেরা
  • এম আই স্মার্ট স্কেল
  • এম আই ওয়াটার পিউরিফাইয়ার
  • স্মার্ট হোম কিট
  • নাইনবুট মিনি
  • স্মার্ট রাইস কুকার

স্বীকৃতি[সম্পাদনা]

এমআইটি টেকনোলজি রিভিউ অনুসারে শাওমি ২০১৫ সালের ৫০টি অন্যতম স্মার্ট কোম্পানির তালিকায় ২য় স্থানে রয়েছে। এছাড়াও ২০১৪ সালের সবচেয়ে ইনোভেটিভ কোম্পানির তালিকায় শাওমি ৩য় স্থানে রয়েছে, “বিশ্বের বৃহত্তম মোবাইল বাজারে স্মার্টফোন ব্যবসার মডেল উপস্থাপনের জন্য,” যদিও কোনো কোনো মন্তব্যকারীদের দ্বারা শাওমি এর উদ্ভাবনী ব্যবসায়িক মডেল বিদ্যমান স্মার্টফোন শিল্পে একটি সংহতিনাশক শক্তি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।

গিনেস বুক রেকর্ড কৃতিত্ব[সম্পাদনা]

শাওমি ২০১৫ এর ৬ এপ্রিল এমআই ফ্যান ফেস্টিভ্যাল এর মাধ্যমে এর ৫ম জন্মদিন উদযাপন করে, যেখানে অফার এবং ডিসকাউন্ট সুবিধাসহ একটি অনলাইন শপিং ডে পালন করা হয়। এক্ষেত্রে শাওমি তার কাস্টমাদের জন্য সরাসরি পরিচালিত ওয়েবসাইট এমআই ডট কম এর মাধ্যমে ২১,১২,০১০টি হ্যান্ডসেট বিক্রি করে, যা "২৪ ঘন্টার মধ্যে একক অনলাইন প্ল্যাটফর্মে সবচেয়ে বেশি মোবাইল ফোন বিক্রির" বিশ্ব রেকর্ড সৃষ্টির মাধ্যমে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ডে স্থান করে নেয়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "About Us"mi.com। Xiaomi। ২০১৪-০৬-০৫। সংগৃহীত ২০১৪-০৬-০৫ 
  2. "User Agreement"miui.com। Xiaomi। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  3. Osawa, Juro (২০১৪-১২-২০)। "China’s Xiaomi Raises Over $1 Billion in Investment Round"। www.wsj.com। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  4. "WW Smartphone Market Q2 2015"idc.com। IDC। সংগৃহীত জুলাই ২৪, ২০১৫ 
  5. "Top Five Smartphone Vendors for 2015 by sales Worldwide"EVOLITA। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  6. Bischoff, Paul। "Xiaomi unveils sensor panels for its smart home ecosystem"Tech in Asia। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  7. Kan, Michael। "Xiaomi looks beyond smartphones to smart home products"PC World। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  8. "গ্রামীণফোনের সাথে শাওমির যাত্রা"টেক সংবাদ। ২০১৬-০৮-১৪। সংগৃহীত ২০১৬-০৯-০৫ 
  9. Song, Huei। "XIAOMI ANNOUNCES NEW SMART HOME GADGETS – WEBCAM, POWER PLUG, LIGHTBULB AND REMOTE CENTER"lowyat.net। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  10. Shu, Catherine (২০১৩-০৮-২৮)। "Xiaomi, What Americans Need To Know"TechCrunch (AOL)। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  11. "Xiaomi Confronts Counterfeits as Fake Products Eat Into Sales - Bloomberg Business"Bloomberg.com। ১০ এপ্রিল ২০১৫। সংগৃহীত ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  12. "Xiaomi Now The World’s Third Biggest Smartphone Maker, Says IDC"। ২০১৪-১০-২৯। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  13. "The China Smartphone Market Picks Up Slightly in 2014Q4, IDC Reports"। IDC। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  14. "Xiaomi raises another $1.1 billion to become most-valuable tech start-up"। ডিসেম্বর ২৯, ২০১৪। সংগৃহীত ৮ জুন ২০১৬ 
  15. Xiaomi New Product Launch Event: Mi TV 2 and Mi Pad - News - MIUI Official Community। সংগৃহীত ২০১৪-০৫-১৪