শত কথার শত গল্প

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
শত কথার শত গল্প
শত কথার শত গল্প বই.jpg
গল্পের বইয়ের প্রচ্ছদ
সম্পাদকআবু সাঈদ
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
ধরন১০০ লেখকের ১০০ শব্দের ১০০টি গল্পগ্রন্থ
প্রকাশকস্বপ্ন ৭১ প্রকাশনা, ঢাকা
প্রকাশনার তারিখ
ফেব্রুয়ারি ২০১৮
মিডিয়া ধরনমুদ্রণ (হার্ডকভার)
পৃষ্ঠাসংখ্যা১২২
আইএসবিএন978-984-34-3998-7

শত কথার শত গল্প বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের ১০০ জন লেখকের ১০০ শব্দের ১০০টি গল্প নিয়ে প্রকাশিত প্রথম বই।[১] বইটি ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত হয়। বাংলা ভাষায় এমন আয়োজন নিয়ে এবারই প্রথম বইটি প্রকাশিত হয়েছে। [২]

সারসংক্ষেপ[সম্পাদনা]

দুই বাংলার লেখকদের নিয়ে ১০০ শব্দের ১০০জন লেখকের ১০০টি গল্প নিয়ে প্রথম গল্প সংকলন। এটা মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক স্বেচ্চাসেবী সংগঠন মুক্ত আসরের একটি উদ্যোগ। বইটি সম্পাদনা করেছে আবু সাঈদ। প্রচ্ছদ করেছেন নিয়াজ চৌধুরী তুলি। প্রকাশ করেছে স্বপ্ন ’৭১ প্রকাশন।[৩]

প্রশংসা[সম্পাদনা]

বইটি সর্ম্পকে একুশে পদকপ্রাপ্ত ভাষাসংগ্রামী, কবি, প্রাবন্ধিক, রবীন্দ্র-গবেষক আহমদ রফিক বলেছেন, ‘শত কথার শত গল্প’ ছন্দময়,শব্দবয়নে প্রকাশিত শত শব্দের শত গল্পের উপহার গল্পসাহিত্যের ভুবনে নিঃসন্দেহে নতুন ঐহিত্য সৃষ্টি করেছে। মুক্ত আসর ‘স্বপ্ন৭১’ এর এই অভিনব উদ্যোগ অভিনন্দনযোগ্য যা আমাদের গল্পসাহিত্যে নতুনধারা সৃষ্টির প্রেরণা জোগাবে। বিষয় ও প্রকরণের নতুনত্বে ও আয়তনের স্বল্পতায়। শিশুসাহিত্যিক আখতার হুসেন’র মতে, বিশ্বে খুব ছোট ছোট গল্প, যার আয়তন ১০০ শব্দের হবে না, এমন গল্প লেখা খুবই সমাদৃত। বাংলা সাহিত্যে অণুগল্প লিখেছেন বনফুলের পাশাপাশি আমাদের দিকপাল কথাসাহিত্যিকরাও। এখন আর তেমন চোখে পড়ে না। এই সংকলনটি অণুগল্পের ধারাটি আবার জাগ্রত করবে।

বইয়ের লেখকগণ[সম্পাদনা]

অঞ্জন আচার্য, অরুণ কুমার বিশ্বাস, অর্ণব সান্যাল, আনিসুল হক, আবু সাঈদ, আঞ্জুমান রোজী, আনিকা তাসনিম, আশফাকুজ্জামান, আলমগীর হোসেন ,আ ফ ম সোহেল, আয়েশা আলম প্রান্তি, আরিফুন নেছা সুখী, আফছা নাসরিন নাহার, ইশরাত জাহান, ইব্রাহীম রাসেল, ইসমাইল সাদী, ঈশিতা ভাদুড়ী, এন ডি মিথুন, এজহার উদ্দিন আরাফাত, এথিন সরকার, এ্যানি আসকার, ঐশ্বর্য মীম, কাজী ঐশী, কিঙ্কর আহসান, খায়রুল বাবুই, গওহার নঈম ওয়ারা, জন রাসেল,জাজাফী, জাকিয়া মৌ, জাকিয়া সুলতানা, জিনাত নাজিয়া, জিনিয়া জাফরিন, জহিরুল আলম পাটোয়ারী, ডানা মির্জা, তাসনুভা অরিন, তৈমুর খান, নুরুন আখতার, নুসরত্ নওরিন, নিশাত আরেফিন, নওরীন নাহার, নিগার সুলতানা বিলতু, পিয়াস মজিদ, পলাশ দত্ত, ফারহানা নিশি, ফরিদা ইয়াসমিন সুমি, ফাহিমা সুরভী, ফাতেমা ইসলাম নিনিয়া, ফাহিমা আক্তার, বায়েজিদ ভূঁইয়া জুয়েল, ফেরদৌস রহমান, মারুফ ইসলাম, মাসুম বিল্লাহ, মৌসুমী পারুই, মিনহাজুল ইসলাম হূদয়, মীর মাইনুল ইসলাম, মীর রবি, মৌসুমী রহমান, মানিক চৌধুরী, মোহাম্মাদ আলী, মাহবুব পলাশ, মামুনুর রহমান খাঁন, মাহেরা বিনতে রফিক, মাহবুবা সুলতানা, রয়েল পাল, রাশেদ শাওন, রানা আব্বাস, রেবেকা আক্তার, রাশেদা নাসরীন, রীতা সিদ্ধা, লিপি হালদার, লাবণ্য কান্তা, লোকমান আহম্মদ আপন, শরিফুল ইসলাম ভূঁইয়া, শারিকা আফরিন, শ্যামল সরকার, শান্তা তাওহিদা, শাহরিনা রহমান, শক্তি সাহা, শেখ রেহনুমা শ্রাবণী, শুভংকর কর্মকার, সারফুদ্দিন আহমেদ, সঞ্জিত দত্ত, সজীব মিয়া, সাহাদাত পারভেজ, স্বপ্নময় চক্রবর্তী, স্বদেশ রায়, স্বপ্না রেজা, স্বপ্নীলা চৌধুরী, সুলতানা স্বাতী, সুপা সাদিয়া, সামিউল্যাহ সমরাট, সাজেদুল আলম, সুমন গোস্বামী গুসকরা, সালমান হৃদয়, সুমাইয়া জামান, সুজনকুমার ভাদুড়ী, সালাহ উদ্দিন মাহমুদ, সাহিনা মিতা, সৈয়দ মাহফুজ আহমেদ ও হাবীব ইমন ।[৪]

সেরা লেখক পুরস্কার[সম্পাদনা]

দুই বাংলার ১৮৩ জন লেখক ১০০ শব্দের মধ্যে অনুগল্প লিখেন শত কথার শত গল্প বইয়ের জন্য। এর মধ্যে ১০০টি অনুগল্প বাছাই করে প্রকাশ করা হয় গল্পসংকলনটি। সংকলনের সাতটি গল্পকে সেরা গল্প হিসেবে নির্বাচিত করা হয়। আর এর লেখকদের পুরস্কৃতও করা হয়। মুক্ত আসর সেরা লেখক পুরস্কার-২০১৮ নামের প্রথম পুরস্কার পেয়েছেন অঞ্জন আচার্য, দ্বিতীয় কাজী ঐশী ও তৃতীয় খায়রুল বাবুই। এ ছাড়া চারজনকে দেওয়া হয় বিশেষ পুরস্কার। তাঁরা হলেন ভারতে তৈমুর খান, বাংলাদেশের শরিফুল ইসলাম ভুইয়া, নিগার সুলতানা বিলতু ও তাসনুভা অরিন। [৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলা ভাষায় প্রথম ১০০ শব্দের গল্প সংকলন 'শত কথার শত গল্প'"NTV Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০১ 
  2. "প্রাণ জুড়িয়ে যাওয়া মুগ্ধতা"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০১ 
  3. "বাংলা ভাষায় প্রথম ১০০ শব্দের গল্প সংকলন"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০১ 
  4. জাগোনিউজ ২৪। "বাংলা ভাষায় প্রথম ১০০ শব্দের গল্প সংকলন 'শত কথার শত গল্প'" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৪-০১ 
  5. "'শত কথার শত গল্পের' লেখকরা পুরস্কৃত"NTV Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০৫-১১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]