রারা হ্রদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
রারা হ্রদ (रारा ताल)
Rara.jpg
অবস্থানমুগু জেলা
স্থানাঙ্ক২৯°৩১′৪৫″ উত্তর ৮২°৫′৩৫″ পূর্ব / ২৯.৫২৯১৭° উত্তর ৮২.০৯৩০৬° পূর্ব / 29.52917; 82.09306স্থানাঙ্ক: ২৯°৩১′৪৫″ উত্তর ৮২°৫′৩৫″ পূর্ব / ২৯.৫২৯১৭° উত্তর ৮২.০৯৩০৬° পূর্ব / 29.52917; 82.09306
ধরনfresh water[১]
প্রাথমিক অন্তর্প্রবাহকর্নালি নদী
অববাহিকার দেশসমূহনেপাল
সর্বাধিক দৈর্ঘ্য৫.১ কিমি (৩.২ মা)
সর্বাধিক প্রস্থ২.৭ কিমি (১.৭ মা)
পৃষ্ঠতল১,০৬১ হেক্টর (২,৬২০ একর)[১]
সর্বাধিক গভীরতা১৬৭ মি (৫৪৮ ফু)
পানির আয়তন১০,৬৮২ মি (৩,৭৭,২০০ ঘনফুট)
পৃষ্ঠতলীয় উচ্চতা২,২৯০ মি (৭,৫১০ ফু)
রারা হ্রদ নেপাল-এ অবস্থিত
Rara Lake
Rara Lake
Kathmandu
Kathmandu
নেপালে রারা হ্রদের অবস্থান

রারা হ্রদ নেপালের সর্ববৃহৎ এবং গভীরতম স্বাদু জলের হ্রদ। এটি নেপালের হিমালয় অঞ্চলে অবস্থিত। রারা জাতীয় উদ্যানের প্রধান আকর্ষণ এই হ্রদ।.[১] ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে রারা হ্রদকে রামসার স্থান হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়। এই রামসার স্থানের আওতায় হ্রদ ছাড়াও পার্শ্ববর্তী জলাভূমি রয়েছে, যার মোট আয়তন ১,৫৮৩ হেক্টর।[২]

বৈশিষ্ট্য[সম্পাদনা]

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ২,৯৯০ মিটার (৯,৮১০ ফিট) উচ্চতায় রারা হ্রদের অবস্থান। এর জলপৃষ্ঠ ১০.৮ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বিস্তৃত। সর্বোচ্চ গভীরতা ১৬৭ মিটার (৫৪৮ ফিট)। হ্রদটি দৈর্ঘ্যে ৫.১ কিমি এবং প্রস্থে ২.৭ কিমি। রারা হ্রদের জল নিজর নদ হয়ে মুগু কর্নালি নদীতে পতিত হয়।[৩] হ্রদের পানির পিএইচ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি। এই পরীক্ষায় হ্রদের পানি সামান্য দূষিত নির্ণিত হয়েছে। ধর্মী আচার-অনুষ্ঠান ও পর্যটকদের আবর্জনার কারণে এই দূষণ হয়েছে।[৪]

জলবায়ু[সম্পাদনা]

গ্রীষ্মকালে রারা রাষ্ট্রীয় নিকুঞ্জের আবহাওয়া স্বস্তিদায়ক থাকে। এপ্রিল থেকে জুন গ্রীষ্মকাল।[৫] তবে উচ্চতাজনিত কারণে শীতকালে তাপমাত্রা অনেক কমে যায়। রারা হ্রদ ভ্রমণের ভাল সময় সেপ্টেম্বর, অক্টোবর, এপ্রিল এবং মে। শীতকালে তাপমাত্রা শূণ্য ডিগ্রীর নিচে নেমে যায় এবং হ্রদের উপরে এক মিটার পর্যন্ত বরফের আস্তরণ পড়ে। সেসময় হ্রদে আসার পথগুলোও অধিক তুষারপাতের কারণে বন্ধ হয়ে যায়। জুন থেকে অগাস্ট বর্ষাকাল। ১৯৯৪ থেকে ২০০৩ পর্যন্ত দশ বছরের গড় বৃষ্টিপা ৮০০ মিলিমিটার। হ্রদের জলপৃষ্ঠের গড় তাপমাত্রা ৭.৫ °C থেকে ৭.৬ °C।

উদ্ভিদ ও প্রাণীকুল[সম্পাদনা]

রারা হ্রদ চারদিকে রারা জাতীয় উদ্যান দ্বারা পরিবেষ্টিত। অনন্য উদ্ভিদ ও প্রাণীকুলের আবাস ধারণ করায় এই হ্রদের সবিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। ঐ অঞ্চলের উদ্ভিদ ও প্রাণীকুলকে মনুষ্য-সৃষ্ট ক্ষতির সম্ভাবনা থেকে সংরক্ষণের উদ্দেশ্যে জাতীয় উদ্যানটি ১৯৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। উদ্যানে ১০৭৪ প্রজাতির উদ্ভিদ রয়েছে, যার মধ্যে ১৬ প্রজাতি নেপালের স্থানীয়। প্রাণী রয়েছে এখানে ৫১ প্রজাতির এবং পখি ২১৪ প্রজাতির।[৬]

রারা হ্রদে তিন প্রকার স্থানীয় প্রজাতির মাছ এবং এক প্রজাতির ব্যাঙ রয়েছে। শীতকালে হ্রদে প্রচুর অতিথি পাখির সমাগম ঘটে। পাখিগুলো শীতকালজুড়ে হ্রদ ও এর আশপাশে বাস করে।

পর্যটন[সম্পাদনা]

রারা হ্রদ নেপালের সাধারণ পর্যটন গন্তব্যগুলোর মত নয়। হ্রদের আশপাশে পর্যতকদের জন্য থাকার স্থান, স্বাস্থ্যসেবা ইত্যাদি ব্যবস্থা না থাকায় এখানে পর্যটকদের আগমন কম ঘটে। এছাড়া এই হ্রদে আসতে দীর্ঘপথ পাড়ি দিতে হয়। কাঠমান্ডু থেকে বিমানে নেপালগুঞ্জ, সেখান থেকে আবার বিমানে জুমলা বা কোল্টিতে আসতে হয়। এখান থেকে তিনদিনের হাঁটা পথে রারা জাতীয় উদ্যানের অফিসে আসা যায়। এছাড়া বিকল্প উপায়ে নেপালগুঞ্জ থেকে সুরখেত আসা যায়, যা দশ-দিনের হাঁটাপথ। প্রতি বছর রারা হ্রদে অনধিক ২০০ পর্যটকের আগমন ঘটে। স্থানীয় উদ্ভিদ ও প্রাণীকুল দেখার জন্য রারা হ্রদ ও আশপাশের অঞ্চল পর্যটকদের জন্য বিশেষ আকর্ষণ।[৭]

উদ্যান এলাকার মধ্যে কোন স্থায়ী বসতি নেই। তবে আগে এখানে রারা ও চাপরু নামে দুইটি গ্রাম ছিল, যা পরে বাঁকে জেলায় স্থানান্তর করা হয়। কৃষিকাজ পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকান্ড। সাম্প্রতিক সময়ে কৃষিকাজের দরুন উদ্যানের পরিবেশ নষ্ট হবার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bhuju, U. R., Shakya, P. R., Basnet, T. B., Shrestha, S. (2007). Nepal Biodiversity Resource Book. Protected Areas, Ramsar Sites, and World Heritage Sites. International Centre for Integrated Mountain Development, Ministry of Environment, Science and Technology, in cooperation with United Nations Environment Programme, Regional Office for Asia and the Pacific. Kathmandu, আইএসবিএন ৯৭৮-৯২-৯১১৫-০৩৩-৫
  2. Bhandari, B. B. (2009). Wise use of Wetlands in Nepal. Banko Janakari 19 (3): 10–17.
  3. Upadhyaya, S. (২০০৯)। "High Altitude Ramsar Sites of Nepal"The Initiation: 135–148।  অজানা প্যারামিটার |coauthors= উপেক্ষা করা হয়েছে (|author= ব্যবহারের পরামর্শ দেয়া হচ্ছে) (সাহায্য)
  4. Khadka, M.। "Study of Himalayan Lakes in Nepal" (PDF) 
  5. "Rara National Park"। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ নভেম্বর ২০১৬ 
  6. Rara National Park.(n.d.). Retrieved from http://icimod.org/hkhconservationportal/PA.aspx?ID=64
  7. Jumla Rara Lake Trekking.(n.d.). Retrieved from http://www.raratrekking.com([স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]