ফোক্সুন্ডো হ্রদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
ফোক্সুন্ডো হ্রদ
Panorama phoksumdo lake from camp.jpg
অবস্থান ডোল্পা জেলা, নেপাল
স্থানাঙ্ক ২৯°১২′৩০″ উত্তর ৮২°৫৭′৩০″ পূর্ব / ২৯.২০৮৩৩° উত্তর ৮২.৯৫৮৩৩° পূর্ব / 29.20833; 82.95833স্থানাঙ্ক: ২৯°১২′৩০″ উত্তর ৮২°৫৭′৩০″ পূর্ব / ২৯.২০৮৩৩° উত্তর ৮২.৯৫৮৩৩° পূর্ব / 29.20833; 82.95833
অববাহিকার দেশসমূহ নেপাল
সর্বাধিক দৈর্ঘ্য ৫.১৫ কিমি (৩.২০ মা)
সর্বাধিক প্রস্থ ৮০০ মি (২,৬০০ ফু)
পৃষ্ঠতলীয় ক্ষেত্রফল ৪৯৪ হেক্টর (১.৯১ মা)
সর্বাধিক গভীরতা ১৪৫ মি (৪৭৬ ফু)
পানির আয়তন ৪০,৯০,০০,০০০ মি (১.৪৪×১০১০ ঘনফুট)
পৃষ্ঠতলীয় উচ্চতা ৩,৬১২ মি (১১,৮৫০ ফু)

ফোক্সুন্ডো হ্রদ, (নেপালি: फोक्सुण्डो ताल, Phoksuṇḍo tāl), হচ্ছে নেপালের শী ফোক্সুন্ডো জাতীয় উদ্যানের একটি আল্পাইন মিঠা পানির অলিগট্রফিক হ্রদ, যা সমুদ্র পৃষ্ট থেকে ৩,৬১১.৫ মি (১১,৮৪৯ ফু) উচ্চতায় ডোল্পা জেলায় অবস্থিত। ফোক্সুন্ডো হ্রদের ক্ষেত্রফল ৪৯৪ হেক্টর (১.৯১ মা) যার মধ্যে জলসীমার আয়তন ৪০,৯০,০০,০০০ মি (১.৪৪×১০১০ ঘনফুট) নির্গমন পথ ৩.৭১৫ মি/সে (১৩১.২ ঘনফুট/সে)।[১] ২০০৪ সালে, হাইড্রলজি ও আবহবিদ্যা বিভাগের জরীপ অনুসারে হ্রদের সর্বোচ্চ পরিমাপকৃত গভীরতা ছিল ১৪৫ মি (৪৭৬ ফু)।[২]

২০০৭ সালের সেপ্টেম্বরে, ফোক্সুন্ডো হ্রদকে রামসাগর ক্ষেত্রর মতো ডিজাইন করা হয়েছে।[৩]

হ্রদের দক্ষিণ মাথায়, রিঙ্গমো গ্রামে ৩০,০০০- ৪০,০০০-বছর-পুরনো ধ্বস বাঁধ যা হ্রদকে সৃষ্টি করেছে।[৪] বাঁধের পূর্বে, হ্রদের পানি ১৬৭ মি (৫৪৮ ফু) উচ্চতার জলপ্রপাতের দ্বারা পতিত হচ্ছে।

ধর্মীয় তাৎপর্য[সম্পাদনা]

দক্ষিণ দিকে ২০ টিরও অধিক স্তূপ রয়েছে, এবং একটি গোম্পা হ্রদের পূর্ব দিকে রয়েছে, যেখানে বার্ষিক উপাসনা এবং পূজাঅর্চনা করা হয়। ঐতিহ্যবাহী তিব্বতি সংস্কৃতি ডোল্পোর উপরের অংশে প্রচলিত রয়েছে; বৌদ্ধ ধর্ম এবং বোন ধর্ম, রিঙ্গমো গ্রামসহ ডোল্পোর নীচের অংশে প্রচলিত।[১]


গ্যালারী[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Bhuju, U. R., Shakya, P. R., Basnet, T. B., Shrestha, S. (2007). Nepal Biodiversity Resource Book. Protected Areas, Ramsar Sites, and World Heritage Sites. International Centre for Integrated Mountain Development, Ministry of Environment, Science and Technology, in cooperation with United Nations Environment Programme, Regional Office for Asia and the Pacific. Kathmandu, Nepal. আইএসবিএন ৯৭৮-৯২-৯১১৫-০৩৩-৫
  2. Nepalnews.com (2004). Rara is Nepal’s deepest lake: Survey
  3. Bhandari, B. B. (2009). Wise use of Wetlands in Nepal. Banko Janakari, Special Issue February 2009: 10–17.
  4. Weidinger, J. T. (2005). Predesign, failure and displacement mechanisms of large rockslides in the Langthang-, Annapurna- and Kanjiroba Himalayas of Nepal. Geophysical Research Abstracts, Vol. 7, 04125, 2005