ম্যাট ডিলন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ম্যাট ডিলন
Matt Dillon 2010.jpg
২০১০ সালে ডিলন
স্থানীয় নাম
Matt Dillon
জন্ম
ম্যাথু রেমন্ড ডিলন

(1964-02-18) ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৪ (বয়স ৫৫)
পেশাঅভিনেতা, পরিচালক
কার্যকাল১৯৭৯-বর্তমান
পরিবারকেভিন ডিলন (ভাই)

ম্যাথু রেমন্ড ডিলন (ইংরেজি: Matthew Raymond Dillon; জন্ম: ১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৪)[১][২] হলেন একজন মার্কিন অভিনেতা ও চলচ্চিত্র পরিচালক। তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় ১৯৭৯ সালে অভার দ্য এজ দিয়ে এবং তিনি মাই বডিগার্ড (১৯৮০), লিটল ডার্লিংস (১৯৮০), টেক্স (১৯৮২), রাম্বল ফিশ (১৯৮৩), দি আউটসাইডার্স (১৯৮৩) ও দ্য ফ্ল্যামিঙ্গো কিড (১৯৮৪) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে নিজেকে কিশোরদের আদর্শ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। ১৯৮০-এর দশকের পরবর্তী সময়ে তিনি ডাগস্টোর কাউবয় (১৯৮৯), সিঙ্গলস (১৯৯২), দ্য সেন্ট অব ফোর্ট ওয়াশিংটন (১৯৯৩), টু ডাই ফর (১৯৯৫), বিউটিফুল গার্লস (১৯৯৬), ইন অ্যান্ড আউট (১৯৯৭), দেয়ার্স সামথিং অ্যাবাউট ম্যারি (১৯৯৮), এবং ওয়াইল্ড থিংস (১৯৯৮) ছবিতে অভিনয় করে সফলতা অর্জন করেন। ১৯৯১ সালে প্রখ্যাত চলচ্চিত্র সমালোচক রজার ইবার্ট তাকে তার বয়সী অভিনেতাদের মধ্যে শন পেনের সাথে যৌথভাবে সেরা অভিনেতা হিসেবে উল্লেখ করেন।[৩]

২০০০-এর দশকে তিনি সিটি অব ঘোস্টস (২০০২) দিয়ে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন এবং ফ্যাক্টোটাম (২০০৫), ইউ, মি অ্যান্ড ডুপ্রি (২০০৬), ও নাথিং বাট দ্য ট্রুথ (২০০৮) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ২০০৪ সালে ক্র্যাশ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে অস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্পিরিট পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১০-এর দশকে তিনি সানলাইট জুনিয়র (২০১৩), এবং দ্য হাউজ দ্যাট জ্যাক বিল্ট (২০১৮) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন এবং ২০১৫ সালে ফক্স টেলিভিশনের ধারাবাহিক ওয়েওয়ার্ড পাইন্স-এর প্রথম মৌসুমে অভিনয় করে স্যাটার্ন পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ডিলন ১৯৬৪ সালের ১৮ই ফেব্রুয়ারি নিউ ইয়র্কের নিউ রোশেলে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা পল ডিলন ছিলেন একজন পোট্রেট চিত্রশিল্পী ও পুতুল ভল্লুক নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইউনিয়ন ক্যাম্পের বিক্রয় ব্যবস্থাপক এবং মাতা ম্যারি এলেন একজন গৃহিণী।[৪] তার পিতামহী ছিলেন কমিক স্ট্রিপ শিল্পী ও ফ্ল্যাশ গর্ডনের স্রষ্টা অ্যালেক্স রেমন্ডের বোন।[৫] ডিলন তার পিতামাতার ছয় সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয়। তার ভাই কেভিন ডিলন একজন অভিনেতা। তিনি আইরিশ বংশোদ্ভূত এবং তার পূর্বপুরুষদের কিছু অংশ স্কটিশ ও জার্মান ছিলেন। ডিলন রোমান ক্যাথলিক ধর্মাবলম্বী হিসেবে বেড়ে ওঠেন।[৬][৭][৮] তার শৈশব কাটে নিউ ইয়র্কের ম্যামারোনেকে।[৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Matt Dillon"বায়োগ্রাফি (ইংরেজি ভাষায়)। এঅ্যান্ডই টেলিভিশন নেটওয়ার্কস। ৩০ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  2. "Matt Dillon Biography (1964-)"ফিল্ম রেফারেন্স। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  3. ইবার্ট, রজার (২৬ এপ্রিল ১৯৯১)। "A Kiss Before Dying"শিকাগো সান-টাইমস। ১২ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  4. "Cigar Aficionado - People Profile - Matt Dillon"। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  5. "Fordham golf coach has way with the brush"ইউএসএ টুডে। ৯ অক্টোবর ২০০১। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  6. ডিলন, ম্যাট (৬ আগস্ট ২০০৫)। "Behind the mask"। লন্ডন: দ্য ডেইলি টেলিগ্রাফ। ১৭ ডিসেম্বর ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  7. ফ্লিন, পল (১১ আগস্ট ২০০৫)। "Matt's Crash landing"। ইভনিং স্ট্যান্ডার্ড। ২২ এপ্রিল ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  8. র‍্যাডার, ডটসন (২৩ জুলাই ২০০৬)। ""You Don't Shut the Door on Hope""। প্যারেড। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 
  9. গ্র্যান্ট, লি (৬ মে ২০০৫)। "The outsider"সান দিয়েগো ইউনিয়ন-ট্রিবিউন। ১৯ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]